আজ সোমবার, , ২০ আগস্ট ২০১৮ ইং

শামসুল ইসলাম শামীম

১৪ মে, ২০১৮ ০১:০৩

‘আগুন পাখি জ্বলছে হৃদয়ে’

গৌরবের এক যুগ পূর্ণ করলো নগরনাট। সিলেটের এই সাংস্কৃতিক সংগঠনটির যেমন স্পষ্ট রাজনৈতিক আদর্শ রয়েছে, তেমনি তারা মননে লালন করছে সুকুমার সংস্কৃতির অঙ্গিকার। সঙ্গীত এবং নাটক, দু’টো ধারাকেই নগরনাট সমান ভাবে ধারণ করে আছে স্বকীয় মেধায়।

যুগপূর্তি উপলক্ষে রোববার সন্ধ্যায় রিকাবীবাজার কবি নজরুল অডিটোরিয়ামের মুক্তমঞ্চে আয়োজন করে যুগপূরতি অনুষ্ঠান ‘আগুন পাখি জ্বলছে হৃদয়ে’।

অসাম্প্রদায়িকতায় প্রোজ্জ্বল, তারুণ্যদিপ্ত নগরনাট তাদের প্রতিটি পরিবেশনায় মানুষের চেতনায় নাড়া দিয়ে গেলেও বধির ‘মানুষ’ সে নাড়ায় কতোটা সাড়া দিতে পারে? এমন প্রশ্ন সহজাত ভাবেই মৌলিক মানুষের মনে দানা বাঁধে।

‘রেফারী’; নগরনাটের এই নাটিকা চেতনাবোধ সম্পন্ন মানুষের গহণ গোপনে যে ঝাঁকুনি দিয়ে গেছে তা যদি ‘রেফারী’র তোয়াক্কা না করা ‘শিকারী’দের চেতনাবোধে নূন্যতম নাড়া দিতে পারতো তবে নিঃসন্দেহে আজকের সমাজ সকলের জন্য অভয়ারণ্য হতে পারতো। কিন্তু আফসোস, মনুষ্যরুপী ‘শিকারী’দের মনুষ্যহীনতায় আজও পাহাড় অথবা নদীর তীরে পড়ে থাকে আদিবাসী প্রজাপতিমেয়ের খুবলে খাওয়া নিথর দেহ। দাঁতাল শুয়োরের কাছে পরাস্ত তরুনীর খান্ডব্দেহ সামনে নিয়ে আজও ‘অথর্ব’ পিতা রেললাইনে আত্মাহুতির দেয়ার ‘স্বপ্ন’ দেখে! ‘রেফারী’ যে বার্তা এই সমাজের নাগের ডগায় ঝুলিয়ে দিয়েছে, সে বার্তা কি আমরা নিতে পেরেছি? এই স্বগত প্রশ্ন বুকে নেয়া ভিন্ন কি আর করতে পারে অথর্ব মানুষ।

‘আগুন পাখি জ্বলছে হৃদয়ে’র দ্বিতীয় অংশে ‘গানবাহান’র পরিবেশনা ছিলো অসাধারণ। ছোট্ট গানের পাখিদের আদুরে সুরলিপি দর্শকদের চমৎকৃত করেছে। নগরনাটের এই আয়োজনে শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তির নাট্য সংগঠন দিক থিয়েটার, সিলেটের লাক্কাতুরা চা বাগানের সংগঠন প্রত্যাশা ও ছন্দনৃত্যালয়ও তাদের পরিবেশনা উপস্থাপন করে। সকলের পরিবেশনাই ছিলো নজরকাড়া।

সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান পর্বের পূর্বে কবি শুভেন্দু ইমামকে সম্মাননা স্মারক তুলে দেওয়া হয়।

নগরনাট তাঁর নিজস্ব পরিবেশনায় চেতনার যে বহ্নি জ্বালিয়েছে দর্শক মনে তা অতুলনীয়। সঙ্গীত যে কি অসাধারণ গণজাগরন সৃষ্টি করতে পারে, তার ছোট্ট একটি উদাহরণ হতে পারে নগরনাটের ‘আমায় আগুন পাখি আগুন পাখি ডাকে’ গানটি!

‘আগুন পাখি আগুন পাখি, দ্রোহের গান’; বন্ধু অনন্ত বিজয় চিরঞ্জীব । জয়তু নাগরনাট, আমাদের শীতক্লিষ্ট মনে এভাবেই আগুন জ্বালিয়ে যেও!

শামসুল ইসলাম শামীম: সিলেট ব্যুরো প্রধান, বাংলাভিশন।    

আপনার মন্তব্য

আলোচিত