রবিবার, ২৫ আগস্ট ২০১৯ ইং

সিলেটটুডে ডেস্ক

২৯ জুলাই, ২০১৯ ১৬:২২

লিডিং ইউনিভার্সিটিতে টেকসই ও নবায়নযোগ্য জ্বালানি বিষয়ক সেমিনার

লিডিং ইউনিভার্সিটির ইলেক্ট্রিক্যাল এন্ড ইলেক্ট্রনিক ইঞ্জিনিয়ারিং (ইইই) ডিপার্টমেন্টের আয়োজনে টেকসই ও নবায়নযোগ্য জ্বালানি ও এর চ্যালেঞ্জ বিষয়ক সেমিনার অনুষ্ঠিত হয়েছে।

রোববার (২৮ জুলাই) বিকাল ৩টায় বিশ্ববিদ্যালয়ের গ্যালারি-১ এ উপাচার্য প্রফেসর ড. মো. কামরুজ্জামান চৌধুরীর সভাপতিত্বে সেমিনারে প্রধান অতিথি ছিলেন বিদ্যুৎ, জ্বালানি ও খনিজ সম্পদ মন্ত্রণালয়ের বিদ্যুৎ বিভাগের টেকসই ও নবায়নযোগ্য জ্বালানি উন্নয়ন কর্তৃপক্ষের (স্রেডা) চেয়ারম্যান (অতিরিক্ত-সচিব) মো. হেলাল উদ্দিন।

এতে মূল প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন স্রেডার সদস্য (অতিরিক্ত-সচিব) সিদ্দিক জোবায়ের।

সেমিনারে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন লিডিং ইউনিভার্সিটির ট্রেজারার বনমালী ভৌমিক (অবসরপ্রাপ্ত অতিরিক্ত-সচিব) এবং স্রেডার পরিচালক (যুগ্ম-সচিব) মো. মনজুর মোরশেদ।

এতে স্বাগত বক্তব্য প্রদান করেন লিডিং ইউনিভার্সিটির সহযোগী অধ্যাপক এবং ইইই বিভাগের বিভাগীয় প্রধান রুমেল এম. এস. রহমান পীর।

প্রধান অতিথি মো. হেলাল উদ্দিন তার বক্তব্যে ছাত্র-ছাত্রীদেরকে জ্বালানি অপচয় কমাতে উৎসাহ দেন এবং নবায়নযোগ্য জ্বালানি সম্পর্কে সচেতন করেন।

তিনি বলেন, বাংলাদেশের বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ের মধ্যে লিডিং ইউনিভার্সিটিই প্রথম যেখানে স্রেডা এতো বড় প্রোগ্রামে অংশ নিয়েছে। তিনি ইইই বিভাগের বিভিন্ন ল্যাব ঘুরে দেখেন এবং সন্তোষ প্রকাশ করেন। শিক্ষার্থীদের করা অনেকগুলো প্রজেক্ট দেখে তিনি প্রশংসা করেন। এ সময় নবায়নযোগ্য জ্বালানি বিষয়ে লিডিং ইউনিভার্সিটির শিক্ষকদের প্রকাশিত গবেষণাপত্রগুলো তাকে বই আকারে উপহার দেওয়া হয়।

তিনি আশা প্রকাশ করেন যে স্রেডা এবং লিডিং ইউনিভার্সিটির মাঝে পারস্পরিক সহযোগিতা বৃদ্ধিতে দ্রুতই এমওইউ (সমঝোতা চুক্তি) স্বাক্ষরিত হবে এবং এ বিশ্ববিদ্যালয় থেকে শিক্ষক ও শিক্ষার্থীরা ভবিষ্যতে আরও বেশি করে স্রেডার পরিচালিত ট্রেনিং এ যোগ দিতে পারবে।

তিনি আরও বলেন, লিডিং ইউনিভার্সিটির ইইই বিভাগের ছাত্র-ছাত্রীরা স্রেডাতে যাতে ইন্টার্নি করার সুযোগ পায়, এমনকি এ বিশ্ববিদ্যালয় থেকে নবায়নযোগ্য জ্বালানি বিষয়ে কোন গবেষণা প্রস্তাব এলে স্রেডা কর্তৃপক্ষ ফান্ডিংয়ের ব্যবস্থা করবেন।

স্রেডার চেয়ারম্যান তার বক্তব্যে নেট মিটারিং বিষয়ে গুরুত্বারোপ করে বলেন, এসে যেমন জ্বালানির সাশ্রয়ী হবে তেমনি বিদ্যুৎ বিল বাবদ খরচও কমবে।

লিডিং ইউনিভার্সিটি স্রেডার সাথে ভবিষ্যতে একসাথে কাজ করার আশা প্রকাশ করে সভাপতির বক্তব্যে লিডিং ইউনিভার্সিটির উপাচার্য প্রফেসর ড. মো. কামরুজ্জামান চৌধুরী বলেন, এনার্জি সেক্টরে অনেক দক্ষ জনবলের প্রয়োজন রয়েছে। তাই শিক্ষার্থীরা এ বিষয়ে পড়াশুনা করতে পারে। এনার্জি ইকোনোমিকস নিয়ে ব্যবসায় প্রশাসন বিভাগের শিক্ষার্থীরা পড়াশুনা করে ক্যারিয়ার গড়তে পারে বলেও তিনি মত প্রকাশ করেন।

লিডিং ইউনিভার্সিটির শিক্ষার্থীদের নিয়ে টেকসই জ্বালানি এবং এর চ্যালেঞ্জ বিষয়ে সেমিনারে স্রেডা কর্তৃপক্ষের মূল্যমান অংশগ্রহণকে সাধুবাদ জানিয়ে তিনি স্রেডা এবং লিডিং ইউনিভার্সিটির ইইই বিভাগকে ধন্যবাদ জানান।

লিডিং ইউনিভার্সিটির ইইই বিভাগের শিক্ষার্থী সুমাইয়া আলীর সঞ্চালনায় সেমিনারে বিশ্ববিদ্যালয়ের আধুনিক বিজ্ঞান অনুষদের ডিন প্রফেসর ড. এম. রকিব উদ্দিন, রেজিস্ট্রার মেজর (অব.) মো. শাহ আলম, পিএসসি, ভারপ্রাপ্ত প্রক্টর মো. রাশেদুল ইসলাম, ব্যবসায় প্রশাসন বিভাগের বিভাগীয় প্রধান ড. ওয়াহিদুজ্জামান খান, বিভিন্ন বিভাগের শিক্ষক-শিক্ষার্থী ও বিশ্ববিদ্যালয়ের কর্মকর্তাবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

আপনার মন্তব্য

আলোচিত