সোমবার, ০৯ ডিসেম্বর ২০১৯ ইং

লিডিং ইউনিভার্সিটি প্রতিনিধি

০১ আগস্ট, ২০১৯ ২০:৪৩

লিডিং ইউনিভার্সিটিতে ডেঙ্গু জ্বরের উপর সেমিনার

সিলেটের বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয় লিডিং ইউনিভার্সিটিতে ডেঙ্গু জ্বরের উপর এক সেমিনার অনুষ্ঠিত হয়েছে।

বৃহস্পতিবার (১ আগস্ট) বেলা ১২টায় লিডিং ইউনিভার্সিটির গ্যালারী-১ এ ‘ডেঙ্গু জ্বর একটি গ্লোবাল পাবলিক হেলথ সমস্যা’-শীর্ষক সেমিনারে মূল বক্তা হিসেবে ডেঙ্গু জ্বর প্রতিরোধ এবং প্রতিকার বিষয়ক আলোচনা করেন সিলেটের সিভিল সার্জন ডা. হিমাংশু লাল রায়।

লিডিং ইউনিভার্সিটির উপাচার্য প্রফেসর ড. মো. কামরুজ্জামান চৌধুরীর সভাপতিত্বে সেমিনারে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বিশ্ববিদ্যালয়ের ট্রাস্টি বোর্ডের চেয়ারম্যান দানবীর ড. সৈয়দ রাগীব আলী।

কাজের সমন্বয় এবং জনসচেতনতার মাধ্যমে ডেঙ্গু জ্বর প্রতিরোধ ও প্রতিকার সম্ভব উল্লেখ করে লিডিং ইউনিভার্সিটির পাবলিক হেলথ বিভাগের উদ্যোগে আয়োজিত সেমিনারে সিভিল সার্জন ডা. হিমাংশু লাল রায় বলেন, ডেঙ্গু জ্বরে আতঙ্ক না হয়ে সঠিক পদক্ষেপ ও ব্যবস্থাপনার মাধ্যমে এর মোকাবেলা করতে হবে।

তিনি বলেন, যেহেতু বর্ষার সময় এ রোগের প্রকোপ বাড়তে পারে তাই এ সময় অধিক সতর্ক থাকা প্রয়োজন। ডেঙ্গু একটি উচ্চ মাত্রার জ্বর। এ জ্বর হলে প্রচণ্ড মাথা ব্যথা, মাংসপেশিতে এবং  চোখের পিছনে ও হাড়ে প্রচণ্ড ব্যথা থাকে। এ জ্বরে চামড়ায় লালচে দাগ (র‌্যাশ) হয়। এ রোগকে প্রতিহত করতে হলে প্রথমে রোগের বাহক মশাকে প্রতিহত করতে হবে। জমে থাকা পরিষ্কার পানিতে এদের উৎপত্তি হয়ে থাকে বলে উল্লেখ করেন।

তিনি বলেন, আমাদের বাড়ির আঙ্গিনায় যেমন ফুলের টবে, ডাবের খোসায় এবং টায়ারের মধ্যে যাতে জমানো পানি না থকে সেদিকে লক্ষ্য রাখতে হবে এবং মশারী টানিয়ে ঘুমাতে হবে। ১-৫ দিনের মধ্যে ডেঙ্গু জ্বরের পরীক্ষা করাতে হবে এবং আতঙ্কিত না হয়ে নিকটস্থ সরকারি স্বাস্থ্য কেন্দ্রে নিয়ে যেতে হবে। তিনি তরুণ শিক্ষার্থীদের প্রতি এ রোগ থেকে মুক্তি পেতে পরিষ্কার পরিচ্ছন্নতা ও সচেতনতা বৃদ্ধির বিষয়ে গুরুত্বারোপ করেন। এ সেমিনার আয়োজন করার জন্য তিনি লিডিং ইউনিভার্সিটিকে ধন্যবাদ দেন। 

প্রধান অতিথির বক্তব্যে ড. সৈয়দ রাগীব আলী বলেন, বর্তমান সময়ে বহুল আলোচিত রোগ হল ডেঙ্গু জ্বর। সকলের সচেতনতা ও পরিষ্কার পরিচ্ছন্নতার মাধ্যমে এ রোগ ছড়ানো থেকে রক্ষা পেতে পারে। তিনি বলেন, বর্তমান সরকারের জোরালো পদক্ষেপ এবং জনসচেতনতার মাধ্যমে অতিশীঘ্রই আমরা এ রোগ থেকে মুক্ত হবো। লিডিং ইউনিভার্সিটির শিক্ষার্থীদের ডেঙ্গু জ্বর প্রতিরোধ ও করণীয় বিষয়ে মূলবান এবং অতি প্রয়োজনীয় পরামর্শ প্রদান করার জন্য তিনি সিলেটের সিভিল সার্জনকে ধন্যবাদ জ্ঞাপন করেন।

সভাপতির বক্তব্যে উপাচার্য প্রফেসর ড. মো. কামরুজ্জামান চৌধুরী ডেঙ্গু জ্বরের বাহক মশা যাতে বংশবৃদ্ধি করতে না পারে সেজন্য শিক্ষার্থীদেরকে বাড়ির আশপাশ পরিষ্কার করে রাখতে এবং কোথায় যাতে জমানো পানি না থাকে সে বিষয়ে সচেতন হতে বলেন।  তিনি আশা প্রকাশ করেন, আজকের এ তরুণরা যদি এ বিষয়ে প্রচারণার মাধ্যমে জনসাধারণকে সচেতন হতে উদ্বুদ্ধ করে তাহলে বাংলাদেশ থেকে ডেঙ্গুর প্রকোপকে প্রতিহত করা যাবে।

লিডিং ইউনিভার্সিটির  ডেপুটি রেজিস্ট্রার (এডমিশন) মো. কাউসার হাওলাদারের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠিত সেমিনারে বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন বিশ্ববিদ্যালয়ের ট্রেজারার বনমালী ভৌমিক। স্বাগত বক্তব্য দেন লিডিং ইউনিভার্সিটির রেজিস্ট্রার মেজর (অব.) মো. শাহ আলম, পিএসসি।

সেমিনারে লিডিং ইউনিভার্সিটির আধুনিক বিজ্ঞান অনুষদের ডীন প্রফেসর ড. এম. রকিব উদ্দিন, সামাজিক বিজ্ঞান অনুষদের ডীন প্রফেসর মো. সামস-উল আলম জয়, কলা ও আধুনিক ভাষা অনুষদের ডীন প্রফেসর নাসির উদ্দিন আহমেদ, বিভিন্ন বিভাগের বিভাগীয় প্রধান, শিক্ষক-শিক্ষার্থী এবং বিশ্ববিদ্যালয়ের কর্মকর্তাবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

আপনার মন্তব্য

আলোচিত