সোমবার, ২১ অক্টোবর ২০১৯ ইং

নিজস্ব প্রতিবেদক

০৮ অক্টোবর, ২০১৯ ১৫:২৯

ভিসি ‘অসুস্থ’, ভিসি ‘সুস্থ’

বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিসি অধ্যাপক ড. সাইফুল ইসলাম

বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয়ের (বুয়েট) শিক্ষার্থী আবরার ফাহাদ হত্যার দুই দিনেও ক্যাম্পাসে অনুপস্থিত রয়েছেন ভিসি (উপাচার্য) অধ্যাপক ড. সাইফুল ইসলাম। তিনি কোথায় এনিয়ে কেউ কিছু জানে না। তবে আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও সেতুমন্ত্রী দাবি করেছেন ভিসি অসুস্থ, যদিও বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষকরা বলছেন ভিসি সুস্থ আছেন; তবে তিনি কোথায় এটা জানে না কেউ।

গত রোববার রাতে ইলেক্ট্রিক্যাল অ্যান্ড ইলেক্ট্রনিক ইঞ্জিনিয়ারিং (ইইই) বিভাগের দ্বিতীয় বর্ষের ছাত্র আবরার ফাহাদকে বুয়েট ছাত্রলীগের কয়েকজন নেতা পিটিয়ে হত্যার পর থেকে ভিসি কার্যত ক্যাম্পাসের বাইরে আছেন। আবরারের লাশ দেখতে যাননি ভিসি, অংশ নেননি তার জানাজায়ও। এমনকি এই হত্যাকাণ্ডের বিপক্ষে কোথাও কোন বিবৃতি দেননি বিশ্ববিদ্যালয়ের এই অভিভাবক।

এদিকে, আবরারের হত্যাকারীদের ফাঁসিসহ ৮ দফা দাবিতে মঙ্গলবার (৮ অক্টোবর) দ্বিতীয় দিনের মতো আন্দোলন করছেন সাধারণ শিক্ষার্থীরা। তারা ভিসিকে বিকাল ৫টার মধ্যে ক্যাম্পাসে এসে জবাবদিহি করার দাবি জানিয়েছেন। আন্দোলনকারীরা বলেছেন, মঙ্গলবার বিকাল ৫টার মধ্যে ভিসি ক্যাম্পাসে এসে জবাবদিহি না করা পর্যন্ত তারা ক্যাম্পাসে অবস্থান করবেন। বেলা ১১টা থেকে দুপুর সাড়ে ১২টা পর্যন্ত তারা বুয়েট শহীদ মিনারে অবস্থান করেন। এরপর বিক্ষোভ মিছিল নিয়ে ভিসির কার্যালয়সহ ক্যাম্পাসের বিভিন্ন জায়গা প্রদক্ষিণ করছেন শিক্ষার্থীরা।

শিক্ষার্থীদের আট দফা দাবি হলো- খুনিদের সর্বোচ্চ শাস্তি নিশ্চিত করতে হবে, ৭২ ঘণ্টার মধ্যে খুনিদের বিশ্ববিদ্যালয় থেকে আজীবনের জন্য বহিষ্কার করতে হবে, আবাসিক হলগুলোতে র‌্যাগের নামে এবং ভিন্নমত দমানোর নামে নির্যাতন বন্ধে প্রশাসনের সক্রিয় ভূমিকা নিশ্চিত করতে হবে, ঘটনার ৩০ ঘণ্টা পরও ভিসি কেন ঘটনাস্থলে উপস্থিত হননি, মঙ্গলবার বিকাল ৫টার মধ্যে ভিসিকে ক্যাম্পাসে উপস্থিত হয়ে শিক্ষার্থীদের কাছে এর জবাব দিতে হবে, হত্যা মামলার খরচ বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষকে বহন করতে হবে, এর আগের ঘটনাগুলোর বিচার করতে হবে, ১১ অক্টোবরের মধ্যে শেরেবাংলা হলের প্রভোস্টকে প্রত্যাহার করতে হবে এবং ক্যাম্পাসে ছাত্র রাজনীতি স্থায়ীভাবে নিষিদ্ধ করতে হবে।

বুয়েটের ভিসি সম্পর্কে মন্তব্য করেছেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের। মঙ্গলবার আওয়ামী লীগ সভাপতি শেখ হাসিনার রাজনৈতিক কার্যালয়ে সমসাময়িক রাজনৈতিক ইস্যুতে ডাকা এক সংবাদ সম্মেলনে সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে বুয়েটের ভিসি অসুস্থ বলে দাবি করেন ওবায়দুল কাদের। ওবায়দুল কাদের বলেন, বুয়েটের ভিসি অসুস্থ বলে এখনও শিক্ষার্থীদের কাছে যাননি, তবে তিনি যাবেন।

বুয়েট শিক্ষার্থী আবরার ফাহাদ হত্যার ঘটনায় আওয়ামী লীগ দায় নেবে কী না এমন প্রশ্নের জবাবে ওবায়দুল কাদের বলেন, ক্ষমতাসীন দলে অনেকেই ঢুকে পড়ে। এখানে দেখার বিষয়ে এক্ষেত্রে আমাদের ভূমিকা কী। অপকর্ম করে কেউ পার পায় না, পাবে না। বিএনপির সময় অপকর্মের বিরুদ্ধে কোনও প্রশাসনিক বা দলীয় ব্যবস্থা ছিল না। কিন্তু আওয়ামী লীগ সকল অপকর্মের বিরুদ্ধে।

তিনি বলেন, আমরা সাংগঠনিকভাবে ব্যবস্থা নেই এবং প্রশাসনিক ব্যবস্থা নেই। প্রশাসন মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর মনোভাব জানে এবং তাই কঠোর ব্যবস্থা নিচ্ছে। ৫ মিনিটের মধ্যে অভিযুক্তদের গ্রেপ্তার করা হয়েছে। বিচার প্রক্রিয়া চলছে। একদিনেই তো আর বিচার করা যায় না।

বুয়েটের ভিসি অসুস্থ বলে ওবায়দুল কাদের দাবি করলেও তিনি সুস্থ আছেন বলে জানিয়েছেন শিক্ষকরা। এমনকি সোমবার রাতে বুয়েট শিক্ষক সমিতির নেতারা ভিসির বাসভবনে বসে ক্যাম্পাসের চলমান পরিস্থিতি নিয়ে আলোচনা করেছেন। সেখানে শিক্ষকরা বিশ্ববিদ্যালয়ের সার্বিক চিত্র ভিসির কাছে তুলে ধরেন বলে জানিয়েছেন বুয়েটের ছাত্রকল্যাণ পরিচালক মিজানুর রহমান। মিজানুর রহমান বলেন, ভিসি স্যার সুস্থ আছেন, তবে তিনি শিক্ষার্থীদের আন্দোলন কীভাবে মোকাবিলা করবেন তা নিয়ে কিছুটা দ্বিধাদ্বন্দ্বে রয়েছেন।

তিনি বলেন, আবরার ফাহাদের হত্যাকাণ্ডকে ঘিরে শিক্ষার্থীদের মধ্যে উত্তেজনার বিষয়টি নিয়ে ভিসির সঙ্গে আমাদের আলোচনা হয়েছে। বিষয়টিকে স্বাভাবিক করার চেষ্টা করতে নির্দেশ দেন তিনি। তবে এই ঘটনাকে কেন্দ্র করে শিক্ষার্থীদের মাঝে অসন্তোষ বিরাজ করায় বড় ধরনের আন্দোলন শুরু হওয়ার আশঙ্কা রয়েছে তা নিয়েও ভিসির সাথে আলোচনা হয়েছে।

ছাত্রকল্যাণ পরিচালক বলেন, শিক্ষার্থীদের সঙ্গে আলোচনা করে বিষয়টি স্বাভাবিক করার চেষ্টায় ভিসিকে অনুরোধ জানানো হয়েছে। বিষয়টি তিনি দেখবেন বলে জানান ভিসি। কেউ যদি বলে ভিসি অসুস্থ তবে বিষয়টি হাস্যকর বলেন তিনি।

আপনার মন্তব্য

আলোচিত