বুধবার, ২০ নভেম্বর ২০১৯ ইং

নিজস্ব প্রতিবেদক

০২ নভেম্বর, ২০১৯ ১৯:৪৬

শিক্ষার্থী পরিবহনে এমসি কলেজে আরেকটি বাস চালু

সিলেটের ঐতিহ্যবাহী বিদ্যাপীঠ মুরারিচাঁদ (এমসি) কলেজের শিক্ষার্থীদের পরিবহনের জন্য আরেকটি বাস সার্ভিস চালু হয়েছে। এর আগে এই কলেজের শিক্ষার্থীদের জন্য নগরের ২ রুটে ২টি বাস শিক্ষার্থীদের পরিবহন সেবা দিচ্ছে। তবে নতুন বাসটি শিক্ষার্থীদের নিজস্ব পরিবহন তহবিলের ফান্ড থেকে ক্রয় করা হয়েছে।

গত ২৮ অক্টোবর দুপুরে ফিতা কেটে বাসের উদ্বোধন করেন এমসি কলেজের অধ্যক্ষ প্রফেসর নিতাই চন্দ্র চন্দ। শনিবার (২ নভেম্বর) থেকে বাসটি আনুষ্ঠানিক ভাবে শিক্ষার্থী পরিবহনে চলাচল শুরু করে।

বাসটির উদ্বোধনের সময় কলেজ প্রাঙ্গণে উপস্থিত ছিলেন উপাধ্যক্ষ অধ্যাপক সালেহ আহমদ, কলেজ শিক্ষক পরিষদ সম্পাদক তোতিউর রহমান, সহযোগী অধ্যাপক রজত কান্তি সোম, অরুণ পাল, গিয়াস উদ্দিন, আবুল আনাম মো. রিয়াজ, তৌফিক এজদানি ও বিভিন্ন বিভাগের শিক্ষক ও শিক্ষার্থীবৃন্দ।

কলেজ সূত্রে জানা যায়, শিক্ষার্থীদের নিজস্ব পরিবহন তহবিলের ফান্ড থেকে ৪২ লক্ষ ৬০ হাজার টাকা দিয়ে এই বাসটি কেনা হয়েছে। এই বাসের তদারকি করবে কলেজ প্রশাসন। সিলেট-তামাবিল রোড এই বাসটি এমসি কলেজে অধ্যয়নরত শিক্ষার্থীদের পরিবহন সেবা দিবে। এই বাসটি হরিপুর বাজার থেকে যাত্রা শুরু করবে। একাডেমিক ক্যালেন্ডার অনুসরণ করে এই বাসের প্রতিদিন এই সড়কে চলাচল করবে। সকাল ৯টায় হরিপুর থেকে বাসটি শিক্ষার্থীদের নিয়ে কলেজে আসবে। পুনরায় দুপুর ২টা শিক্ষার্থীদের হরিপুর পর্যন্ত নিয়ে যাবে এই বাস।  ৪৮ সিটের এই বাসে দাঁড়িয়ে, বসে প্রায় ৭০জন শিক্ষার্থীকে পরিবহন সেবা দেওয়া যাবে বলে জানান কলেজ কর্তৃপক্ষ।

কলেজের বাকি দুটি বাস কুমারগাও বাসস্ট্যান্ড ও  দক্ষিণ সুরমা হুমায়ুন রশিদ চত্বর থেকে সকাল ৯টায় ও দুপুর ২টায় একাডেমিক ক্যালেন্ডার অনুসরণ করে পরিবহন সেবা দিবে।

এ ব্যাপারে এমসি কলেজের অধ্যক্ষ প্রফেসর নিতাই চন্দ্র চন্দ বলেন, সিলেট-তামাবিল রোডের শিক্ষার্থীদের পরিবহন সেবার মাধ্যমে আজ আনুষ্ঠানিক ভাবে এই বাসটির উদ্বোধন হয়েছে। এই রুটের শিক্ষার্থীদের যাতায়তের সুবিধার্থে শিক্ষার্থীদের নিজস্ব পরিবহন তহবিলের ফান্ড থেকে এই বাসটি ক্রয় করা হয়েছে। কলেজ প্রশাসন এই বাসের তদারকি করবে। তবে বাসটি চালু থাকার জন্য শিক্ষার্থীদেরকেও নিয়মিত কলেজে আসতে হবে। শিক্ষার্থীদের কলেজে আসার ব্যাপারে অভিভাবকদের আরও সচেতন হতে হবে।

তিনি বলেন, আজ প্রথমদিন তাই স্বল্প সংখ্যক শিক্ষার্থী এই পরিবহন সেবা নিয়েছেন। এই রুটে বাসটি চালুর ব্যাপারে আরও প্রচার করতে হবে। শিক্ষার্থী ও অভিবাবকদের জানাতে হবে। আমরা ইতোমধ্যে নোটিস দিয়েছি। সবাই জানলে আসা করি আরও বেশি শিক্ষার্থী বাস ব্যবহার করবেন।     

উল্লেখ্য, ১৯৭৭ সালে প্রয়াত রাষ্ট্রপতি জিয়াউর রহমান ও ১৯৯৩ সালে সাবেক প্রধানমন্ত্রী বেগম খালেদা জিয়া শিক্ষার্থীদের পরিবহনের জন্য এমসি কলেজে দু'টি বাস উপহার দিয়েছিলেন।

আপনার মন্তব্য

আলোচিত