আজ সোমবার, , ২০ আগস্ট ২০১৮ ইং

এমদাদ রহমান

১০ আগস্ট, ২০১৮ ১৬:১০

ওরা লাশ চেয়েছিলো!

নিরাপদ সড়কের দাবিতে কোমলমতি শিক্ষার্থীদের আন্দোলনকে ছিনতাই করে জামায়াত-বিএনপি চেয়েছিলো শিক্ষার্থীদের কয়েকটি লাশ। কয়েকটি লাশ ফেলে আন্দোলনের মোড় ঘুরিয়ে দিয়ে ওরা চেয়েছিলো সরকারের পতন!

কিন্তু তাদের সেই নোংরা দেশবিরোধী ষড়যন্ত্রে বাধা হয়ে দাঁড়ালেন প্রধানমন্ত্রী।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা'র বিচক্ষণ নির্দেশনা এবং আইনশৃংখলা বাহিনী ও দলীয় নেতাদের ধৈর্যশীল ভুমিকার জন্যই সেদিন বিশাল ষড়যন্ত্র থেকে রক্ষা পায় জাতি। শিক্ষার্থীরা ফিরে যায় ক্লাসে, আর ষড়যন্ত্রকারীদের মুখোশ উম্মোচন হতে থাকে একে একে। গুজব রটনাকারীরা আজ আইনের আওতায়।

শিক্ষার্থীদের লাশের উপর ভর করে ক্ষমতায় যাওয়ার স্বপ্ন ভঙ্গ হয় তারেক-মওদুদ-ফখরুলদের।

অন্যদিকে সুশীল বাবুদের ষড়যন্ত্রও ভেস্তে যায় শেখ হাসিনার বুদ্ধিদীপ্ত সিদ্ধান্তের কারণে।

বিশেষ করে পুলিশ বাহিনী অনেক ক্ষেত্রেই চরম অপমানিত হওয়ার পরও দেশের স্বার্থে সেদিন সর্বোচ্চ ধৈর্য্য ধারণ করে পরিস্থিতি মোকাবেলা করেছিল।
ধন্যবাদ আইনশৃংখলা বাহিনীকে।

ষড়যন্ত্র এখনো চলছে, কূটকৌশল অব্যহত আছে। তাই গুজব অপপ্রচার রুখতে আমাদের আরো সতর্কতা অবলম্বন করতে হবে। শুধু মাঠে নয়, ভার্চুয়াল জগতেও আরো স্বক্রিয় ভূমিক পালন করতে হবে।

লেখক: রজনৈতিক কর্মী, সাবেক ছাত্রনেতা।

আপনার মন্তব্য

আলোচিত