রবিবার, ১৫ সেপ্টেম্বর ২০১৯ ইং

মিহির রঞ্জন তালুকদার

২৩ আগস্ট, ২০১৯ ০০:১০

প্রেমাবতার ভগবান শ্রীকৃষ্ণ

পৃথিবীতে যখনই ধর্মের গ্লানি হয় এবং পাপ বৃদ্ধি পায়, তখনই আমি শরীর ধারণ করিয়া পৃথিবীতে অবতীর্ণ হই। আমি যুগে যুগে অবতীর্ণ হইয়া সাধুদিগের পরিত্রাণ, পাপীদের বিনাশ এবং ধর্ম সংস্থাপন করি।

আজ ভগবান শ্রীকৃষ্ণের ৫২৪৫ তম শুভ জন্মাষ্টমী। পৃথিবীতে যখন অন্যায়, অত্যাচার বেড়ে যায় তখনই ভগবান বা ঈশ্বর কোনও না কোনও রূপে পৃথিবীতে আবির্ভূত হন। তেমনি দ্বাপর যুগের রোহনী নক্ষত্রের অষ্টমী তিথিতে পৃথিবীতে আবির্ভূত হয়েছিলেন ভগবান শ্রীকৃষ্ণ।

অধর্ম, অন্যায় অত্যাচার থেকে দেশকে রক্ষা করতে এবং কংস আর জরাসন্ধের মত অত্যাচারী রাজাদের দমন করার জন্য দ্বাপর যুগের আজকের এই দিনে জন্মগ্রহণ করেছিলেন ভগবান শ্রীকৃষ্ণ।

বস্তুত পৃথিবী থেকে অধার্মিক ব্যভিচারী ও দুষ্ট লোকদের দমন করে মানব প্রেম সৃষ্টি এবং শিষ্টের রক্ষা করার জন্যই ভগবান শ্রীকৃষ্ণ মহাবতার রূপে পৃথিবীতে আবির্ভূত হয়েছিলেন। আবার পৃথিবীতে ধর্মের মহিমা এবং ভক্তের প্রতি ভগবানের প্রেমের মহিমা বাড়ানোর জন্যই শ্রীকৃষ্ণ ও রাধা মর্তে মানবরূপে জন্ম নিয়েছিলেন। এ জন্যই তিনি সবার নিকট প্রেমাবতার নামেও পরিচিত।

রাধাকে উদ্দেশ্য করে শ্রীকৃষ্ণ যখন বলেছিলেন ‘এ হচ্ছে রাধা জগতে সবাই আমার কাছে আসে কিন্তু আমি তাঁর কাছে যাই’; এ কথার মধ্যেই রাধার প্রতি শ্রীকৃষ্ণের অকৃত্রিম ভালবাসার প্রকাশ পায়। এ জন্যই ভগবান শ্রীকৃষ্ণ আমাদের নিকট প্রেমাবতার নামেও পরিচিত।

ভগবান শ্রীকৃষ্ণ পৃথিবীতে ধর্ম স্থাপনের জন্য অনেক অধার্মিককে হত্যা করেছেন। পৃথিবীতে ভগবান শ্রীকৃষ্ণ আবির্ভূত হয়ে অনেক দুষ্টের দমন ও শিষ্টের পালন করেছিলেন।

ভগবান শ্রীকৃষ্ণের জন্মতিথিতে আমাদের প্রার্থনা সকল অন্যায় অত্যাচার দূর হয়ে পৃথিবীতে নেমে আসুক সুখ ও শান্তি ।

  • মিহির রঞ্জন তালুকদার: শিক্ষক, বালাগঞ্জ সরকারি কলেজ, সিলেট।

আপনার মন্তব্য

আলোচিত