রবিবার, ২৫ আগস্ট ২০১৯ ইং

মেলায় এসেছে স্বকৃত নোমানের ‘শেষ জাহাজের আদমেরা’

 প্রকাশিত: ২০১৭-০২-০৫ ১৯:৫৪:০৩

সিলেটটুডে ডেস্ক:

বইমেলায় প্রকাশিত হয়েছে স্বকৃত নোমানের নতুন উপন্যাস ‘শেষ জাহাজের আদমেরা’। মেলার প্রথম দিন থেকেই অনিন্দ্য প্রকাশের ৪৫৬-৪৫৯ নম্বর স্টলে উপন্যাসটি পাওয়া যাচ্ছে। এটি তাঁর অষ্টম উপন্যাস। গত দুই বছর ধরে তিনি উপন্যাসটি লিখেছেন।

সাম্প্রতিককালে বাংলাদেশ ও মিয়ানমার থেকে সমুদ্রপথে মানবপাচার দেশীয় ও আন্তর্জাতিক অঙ্গনে বহুল আলোচিত একটি ঘটনা। পাচারকারীদের খপ্পরে পড়ে মালয়েশিয়াগামী বহু বাংলাদেশি ও রোহিঙ্গা ক্ষুধা-তৃষ্ণায় পথেই মারা যায়। থাইল্যান্ডের জঙ্গলে আবিষ্কার হয় বহু গণকবর। মানবপাচারের এই মর্মান্তিক ঘটনাকে কেন্দ্র করে স্বকৃত নোমান লিখেছেন ‘শেষ জাহাজের আদমেরা’ উপন্যাসটি।

উপন্যাসের কাহিনীতে দেখা যায়, ৪০০ বছর আগে মগ-ফিরিঙ্গি হার্মাদরা অপহরণ করে সিতারাবানুর স্বামীকে। সিতারাকে তাড়া করে ভয়ংকর এক দুঃস্বপ্ন, তার শিশুপুত্রকে গিলে ফেলেছে সাগরের মস্ত এক কুমির। ৪০০ বছর পর নূরনিসাকে তাড়া করে আরেক দুঃস্বপ্ন. ধনেশ পাখি হয়ে উড়ে গেছে তার এক শিশুপুত্র। স্বপ্ন কি বাস্তবে রূপ নেয়? নইলে সমুদ্রস্নানের সময় কেন উড়ে যায় নূরনিসার পুত্র শিবু? ভাগ্যান্বেষী শত শত মানুষ কেন চলে যায় হাঙর-কুমিরের পেটে? ৫৮৩ জন যাত্রী নিয়ে এমভি সাউথ বেঙ্গল-৩ নামে একটি জাহাজ যাত্রা করে মালয়েশিয়ার উদ্দেশে। এই জাহাজেরই একজন যাত্রী রাহাত কমল। মূলত সে গবেষক। তার গবেষণার বিষয় ‘পূর্ববঙ্গ গীতিকায় সমকালীন প্রসঙ্গ।’ তাকে অপহরণ করে জাহাজটিতে তুলে দেয় পাচারকারীরা। ৪০০ বছর আগের সিতারাবানুকে দেখা যায় ৪০০ বছর পরেও! বঙ্গোপ সাগরের তীরে সে স্বামীর ফেরার প্রতীক্ষায় থাকে। দুই শতাব্দীর মানব পাচারের দুই ঘটনাকে লেখক গেঁথে দিয়েছেন শৈল্পিক-সুতোয়।

স্বকৃত নোমানের জন্ম ১৯৮০ সালের ৮ নভেম্বর, ফেনীর পরশুরাম উপজেলার বিলোনিয়া গ্রামে। তাঁর প্রকাশিত অন্যান্য উপন্যাসের মধ্যে রয়েছে : রাজনটী, বেগানা, হীরকডানা, কালকেউটের সুখ এবং গল্পগ্রন্থ : নিশিরঙ্গিনী, বালিহাঁসের ডাক। এইচএসবিসি-কালি ও কলম ব্র্যাক ব্যাংক-সমকাল হুমায়ূন আহমেদ তরুণ সাহিত্যিক পুরস্কার, এক্সিম ব্যাংক-অন্যদিন হুমায়ূন আহমেদ সাহিত্য পুরস্কারসহ নানা সম্মাননায় ভূষিত হয়েছেন এই তরুণ ঔপন্যাসিক।

আপনার মন্তব্য