আজ রবিবার, , ২০ মে ২০১৮ ইং

বইমেলার ডায়েরি-৩

 প্রকাশিত: ২০১৮-০২-০৪ ০১:৪৩:৫৪

রেজা ঘটক:

শনিবার ছিল অমর একুশে বইমেলার তৃতীয় দিন। আজও ছিল ছুটির দিন। বইমেলা শুরু হয়েছে সকাল ১১টায়, শেষ হয়েছে রাত ৯টায়। আজও শিশুমনিদের জন্য ছিল শিশু প্রহর। সকাল ১১টা থেকে দুপুর ১টা পর্যন্ত ছোট্ট বন্ধুরা মেতে ছিল বইমেলায়। বিকালে বইমেলায় বড়দের আগমন বাড়তে থাকে। কিন্তু উপস্থিতি ছিল গতকালের চেয়ে অনেক কম।

ছোট্ট সোনামণিদের যারা ছবি আঁকা শিখতে চাও, এমনকি যারা একটু বড় হয়েছ কিন্তু ছবি আঁকার খুব ইচ্ছে, তাদের জন্য আজ শিল্পী সব্যসাচী হাজরা'র একটি চমৎকার নিরীক্ষাধর্মী বই প্রকাশ পেয়েছে। বইটির নাম "রঙ তুলিতে ছোপছাপ"। তোমরা যারা ছবি আঁকতে চাও, তাদের জন্য "রঙ তুলিতে ছোপছাপ" এবারের বইমেলার সেরা সংগ্রহ হবে। কালই বইটি সংগ্রহ করতে ভুলো না।

"রঙ তুলিতে ছোপছাপ" বইটির প্রকাশনা উৎসবও হয়েছে ভিন্ন মেজাজে। একটি ইজেলে ছবি এঁকে বইটির শুভ উন্মোচন করেছেন শিল্পী হাশেম খান। "রঙ তুলিতে ছোপছাপ" বইটি পাওয়া যাবে কথাপ্রকাশে। সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে ৫ নাম্বার প‌্যাভেলিয়নে। বইটির মূল্য পাঁচশো টাকা।

আজ বইমেলায় এসেছে নির্মলেন্দু গুণ রচনাবলী। নির্মলেন্দু গুণ রচনাবলী প্রকাশ করেছে কাকলী প্রকাশনী। নির্মলেন্দু গুণ রচনাবলী'র এবারের বইমেলায় পাঁচখণ্ড প্রকাশ পেয়েছে। প্রতি খণ্ডের মূল্য এক হাজার টাকা। নির্মলেন্দু গুণ রচনাবলী সম্পর্কে কবি নির্মলেন্দু গুণ খুবই আশাবাদী। যারা বইমেলার শেষ পর্যন্ত থাকবে তারা গুণদার সাথে সেলফি তুলতে পারবে।

অমর একুশে বইমেলায় এখনো আমাদের জন্য চা-স্টলের ব্যবস্থা হয়নি। টিএসসি-তে পর্যন্ত নিরাপত্তা অজুহাতে চা-স্টলগুলো বন্ধ রয়েছে। আমরা বইমেলা চলাকালীন খুব চা-কষ্টে আছি। চা ছাড়া যে কবি-লেখকদের আড্ডা জমে না, এটা বাংলা একাডেমিকে আমরা আর কীভাবে বুঝাব! বইমেলার উভয় প্রাঙ্গণে আমরা চা-স্টল চাই।

ধীরে ধীরে অমর একুশে বইমেলার সাজসজ্জা গুছিয়ে উঠছে। বইমেলা প্রাঙ্গণে প্রকাশনা খোঁজার জন্য প্রতিটি মোড়ে মোড়ে দিক নির্দেশনা মানচিত্র স্থাপন করা জরুরি। স্টল নাম্বারের সিরিয়াল দিয়ে এই ম্যাপ স্থাপন খুব জরুরি এখন। বইমেলার মাঠে দশবার ফোন দিয়ে কাউকে খুঁজে পেতে বেশ ঝামেলা হচ্ছে। আশা করি বাংলা একাডেমি বিষয়টির প্রতি দ্রুত সুনজর দিবেন।

বইমেলায় বই বিক্রি গতকালের চেয়ে আজ একটু কম ছিল। তবে বই প্রকাশ পেয়েছে বেশি। অমর একুশে বইমেলার তৃতীয় দিনে মেলায় নতুন বই এসেছে ১২০টি। বাংলা একাডেমির জনসংযোগ দফতর থেকে পাঠানো বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়। যার মধ্যে- গল্প- ১১টি, উপন্যাস-১৯টি, প্রবন্ধ ১৩টি, কবিতা ২৬টি, গবেষণা ৩টি, ছড়া ৪টি, শিশুসাহিত্য ৬টি, জীবনী ৫, মুক্তিযুদ্ধ ৪টি, নাটক ১, বিজ্ঞান ৭, ভ্রমণ ৪টি, স্বাস্থ্য ১, সায়েন্স ফিকশন ১ এবং অন্যান্য ১৬টি।

সবাইকে অমর একুশে বইমেলার শুভেচ্ছা। বইমেলা অমর হোক। ভাষা শহীদদের আত্মার শান্তি কামনা করি। জয়তু অমর একুশে গ্রন্থমেলা। জয়তু ভাষার মাস।
৩ ফেব্রুয়ারি ২০১৮

  • রেজা ঘটক: কথাসাহিত্যিক, চলচ্চিত্র নির্মাতা।

আপনার মন্তব্য