শুক্রবার, ১৫ নভেম্বর ২০১৯ ইং

সিলেটটুডে ডেস্ক

০৮ এপ্রিল, ২০১৯ ১৯:০৮

প্রাণীদের জন্য আশ্রয় কেন্দ্র খুলবেন আনুশকা

প্রাণীদের জন্য মহারাষ্ট্রে একটি আশ্রয়কেন্দ্র এবং চিকিৎসাকেন্দ্র খুলবেন বলিউড তারকা আনুশকা শর্মা। কিছুদিনের মধ্যেই আনুশকা শর্মা নিজে এই বিষয়ে আনুষ্ঠানিক ঘোষণা দেবেন বলে জানান তাঁর এক মুখপাত্র।

আনুশকা শর্মার কাছের ওই বন্ধু বলেন, ‘২০১৮ সালে ব্যবসা সফল বিভিন্ন ছবির কাজ নিয়ে ব্যস্ততার পর আনুশকা এখন ব্যস্ত থাকতে চান শুধুই স্বামীকে (বিরাট কোহলি) নিয়ে। এভাবে তিনি পরিবার আর ক্যারিয়ারের মাঝে সামঞ্জস্য রাখতে চান। তিনি প্রাণীদের খুব ভালোবাসেন। তাই শিগগিরই তিনি প্রাণীদের জন্য মহারাষ্ট্রে একটি আশ্রয়কেন্দ্র এবং চিকিৎসাকেন্দ্র খুলবেন।’

গত বছর সেপ্টেম্বরে আনুশকা শর্মা খবরের শিরোনাম হন একেবারে ভিন্ন কারণে। ঘটনার সূত্রপাত সাবেক প্রেমিক আর স্বামী বিরাট কোহলির একটি টুইট থেকে। সেখানে তিনি লিখেছেন, ‘অনেক ঘটনা আছে। আসল ঘটনাটি শিগগিরই জানাব।’ তার কিছুদিন পরে বরুণ ধাওয়ান আনুশকাকে অসুস্থতা স্বত্বেও ‘সুই ধাগা’র প্রচারের অনুষ্ঠানে আসার জন্য ধন্যবাদ জানান। ব্যাস, হয়ে গেল। দুইয়ে দুইয়ে চার মিলিয়ে পুরো বলিউডে ছড়িয়ে পড়ে, মা হতে চলেছেন আনুশকা! কিন্তু সেই গুজব প্রমাণ করতে পারেনি যে, সেটি গুজব নয়।

২০০৮ সালে আদিত্য চোপড়ার ‘রব নে বানা দে জোড়ি’ চলচ্চিত্রে বলিউড বাদশাহ শাহরুখ খানের বিপরীতে অভিনয় দিয়ে বলিউডে খাতা খোলেন আনুশকা শর্মা। এরপর ২০১০ সালের রোমান্টিক কমেডি ‘ব্যান্ড বাজা বরাত’ দিয়ে প্রমাণ করলেন, খান ছাড়াও তিনি ছবি হিট করতে সক্ষম। প্রথম এই দুটো চলচ্চিত্রের জন্য আনুশকা শর্মা ফিল্মফেয়ার পুরস্কারে মনোনয়ন পান। আর তা জয় করেন ২০১২ সালে ‘যব তক হ্যায় জান’ চলচ্চিত্রে দারুণ অভিনয় দিয়ে। সেরা পার্শ্ব অভিনেত্রীর পুরস্কার পান তিনি। বলিউড আর ক্রিকেট তারকার চিরায়ত প্রেমের ভারতীয় সূত্র মেনে ২০১৩ সাল থেকে আনুশকা শর্মা শ্যাম্পুর বিজ্ঞাপন করতে গিয়ে ভারতীয় জাতীয় দলের ক্রিকেটার বিরাট কোহলির সঙ্গে প্রেমের সম্পর্কে জড়ান। ২০১৭ সালের ১১ ডিসেম্বর তাঁরা ইতালিতে বিবাহ বন্ধনে আবদ্ধ হন।

আপনার মন্তব্য

আলোচিত