বুধবার, ২৬ জুন ২০১৯ ইং

বিনোদন ডেস্ক

০১ জুন, ২০১৯ ১৯:৩১

বিশ্বকাপে টাইগারদের জয় দেখতে চাই: কর্নিয়া

কর্নিয়া। তারকা কণ্ঠশিল্পী। বিশ্বকাপ ক্রিকেট উপলক্ষে সম্প্রতি প্রতীক হাসানের সঙ্গে 'ভালোবাইসা চলরে এবার বিশ্বকাপে যাই' শিরোনামের দ্বৈত গানে কণ্ঠ দিয়েছেন তিনি। এর পাশাপাশি ঈদে প্রকাশিত নতুন গান।

বিশ্বকাপ ক্রিকেট নিয়ে গান প্রসঙ্গে কর্নিয়া বলেন, বিশ্বকাপ ক্রিকেট নিয়ে গান করার ইচ্ছা অনেক দিনের। এর আগে ফুটবল বিশ্বকাপ নিয়ে গান করেছি। কিন্তু আগের চেয়ে এবারের আয়োজন নিয়ে আগ্রহ কিছুটা হলেও বেশি ছিল। কারণ এই বিশ্বকাপে নিজ দেশের ছেলেরা খেলবে। তাই ক্রিকেটের সবচেয়ে বড় আসরে বাংলাদেশ দলের সঙ্গে থাকতে পারার সুযোগ হাতছাড়া করতে চাইনি। যেহেতু আমি শিল্পী, তাই গানে গানে দেশের ক্রিকেট দল ও ভক্তদের উজ্জীবিত করার চেষ্টা করেছি। অনুরূপ আইচের লেখা 'ভালোবাইসা চলরে এবার বিশ্বকাপে যাই' গানটিতে আমার সঙ্গে কণ্ঠ দিয়েছেন প্রতীক হাসান। জুয়েল মোর্শেদের সুর ও সঙ্গীতের এই গান ক্রিকেট ভক্তদের মধ্যে সাড়া ফেলবে বলেই আমার ধারণা।

কর্ণিয়া বলেন, বাংলাদেশ ক্রিকেট দল এখন বিশ্বের প্রতিটি দলকেই হারানোর ক্ষমতা রাখে। কোন দল কেমন খেলছে, কে কতটা শক্তিশালী- এসব নিয়ে একদমই ভাবছি না। আমি শুধু বিশ্বকাপে টাইগারদের জয় দেখতে চাই। প্রতিপক্ষ যে দলই হোক, দেশের ছেলেরা লড়াই করে তাদের কাছে থেকে বিজয় ছিনিয়ে আনবে- এটাই আমার প্রত্যাশা।

ঈদে নতুন কাজ সম্পর্কে তিনি বলেন, ঈদ উপলক্ষে ম্যাক্স ব্যাগ এন্টারটেইনমেন্ট থেকে আসিফ ও আমার একটি দ্বৈত গান প্রকাশ পেয়েছে। 'তোমার হাসি' শিরোনামের এই গানের কথা লিখেছেন লিমন। নাজির মাহমুদের সুরে গানের সঙ্গীতায়োজন করেছেন মুশফিক লিটু। রোমান্টিক এক গল্পের সঙ্গে গানের ভিডিও নির্মাণ করা হয়েছে। মিউজিক ভিডিও পরিচালনা করেছেন সৌমিত্র ঘোষ ইমন। আপাতত এই একটি গানই ঈদে প্রকাশ পেয়েছে। এর বাইরে আরও কিছু একক গান করেছি, যেগুলো ঈদে কিংবা ঈদের পর এক এক করে প্রকাশ পাবে।

আসিফের সঙ্গে আবার দ্বৈত গান সম্পর্কে তিনি বলেন,  আমি কিন্তু কখনও বলিনি আসিফ ছাড়া অন্য কোনো শিল্পীর সঙ্গে দ্বৈত গান গাইব না। এটা ঠিক যে, আমরা একনাগাড়ে বেশ কিছু দ্বৈত গান গেয়েছি। এবারও গাইলাম ভক্তদের প্রত্যাশা পূরণের জন্য। আগে আমাদের 'কি করে তোকে বোঝাই', 'একবার ছুঁয়ে যা হৃদয়', 'এলোমেলো জীবন', 'মেঘ বলেছে' গানগুলো শ্রোতাদের মাঝে দারুণ সাড়া জাগিয়েছে। এ কারণে শ্রোতার পাশাপাশি গানের প্রকাশকরাও চাইছিলেন আমরা যেন আরও কিছু গান করি। তাদের প্রত্যাশা পূরণেই আবার গাইলাম। নতুন গানটিও ভিন্ন ধাঁচের, যা অনেকের ভালো লাগবে বলেই আমাদের বিশ্বাস।'

আপনার মন্তব্য

আলোচিত