মঙ্গলবার, , ১৮ ডিসেম্বর ২০১৮ ইং

হৃদয় দাশ শুভ, শ্রীমঙ্গল প্রতিনিধি

১০ নভেম্বর, ২০১৮ ২২:৪৯

বিপন্নের পথে ধনেশ

ছবি: খোকন থৌনাউজাম

ধনেশ বেশ বড় আকারের পাখি। বাংলাদেশে এই পাখির অস্তিত্ব আজ ভয়ানকভাবে বিপন্ন। বাংলাদেশের প্রধানত রাঙামাটি অঞ্চলে প্রধানত এদের দেখা পাওয়া যায়। পার্বত্য চট্টগ্রামের বন থেকে বিশাল আকৃতির (১৩০ সেঃ মিঃ) সাদাকালো ধনেশ হারিয়ে গেছে ৩০ বছর আগে।

ধনেশ পাখির ঠোঁট লম্বা। শরীরে কালো ও হলুদ রঙের নান্দনিক ছোপ রয়েছে। ধনেশের চোখের পাতার নিচে মানুষের মতো চুল আছে। প্রজননকালে বড় গাছের কোটরে বাসা বানায়।

স্ত্রী ধনেশ এই কুঠরির মধ্যে ঢুকে নিজের বিষ্ঠা দিয়ে প্রবেশ পথ বন্ধ করে দেয়। সরু একটা ফাটল রাখে যার মধ্যদিয়ে ঠোঁট বের করে পুরুষ ধনেশের কাছ থেকে খাদ্য নিতে পারে। আর ডিমের উপর বসে তা দেয়। পুরুষ পাখিটি শুধু ঠোটের জন্য একটু ফাঁক রেখে কোটরের মুখটা কাদামাটি দিয়ে ঢেকে দেয়। যতদিন ডিম না ফোটে মুখে করে খাবার এনে সঙ্গিনীকে উপহার দেয়। বাসা ভাঙতেও ঠোঁটকে তারা ব্যবহার করে।

রাজ ধনেশ আকারে ১.২ মি. আর ওজন ৬.২ কেজি মত হয়। এদের ইংরেজিতে বলে Hornbill। Genus, Subfamily উপর ভিত্তি করে এদের ৫৪টি প্রজাতির সন্ধান পাওয়া যায় ৷

সেইভ আওয়ার আনপ্রোটেক্টেড লাইফ (soul) এর নির্বাহী পরিচালক তানিয়া খান সিলেটটুডে টোয়েন্টিফোরকে জানান, ধনেশ মূলত উঁচু গাছে থাকে এবং বিভিন্ন ধরনের ফল খায়, সিলেট বিভাগে সাতছড়ি লাউয়াছড়া ও আদমপুরে এদের বেশী দেখা যায় ৷ তবে বনে ফলগাছ কমে যাওয়ায় এদের সংখ্যা দিন দিন কমে যাচ্ছে ৷

আপনার মন্তব্য

আলোচিত