মঙ্গলবার, , ২২ জানুয়ারী ২০১৯ ইং

অনলাইন ডেস্ক

১৮ অক্টোবর, ২০১৮ ১৮:১৯

বিজ্ঞাপনের তথ্য ৯০০ শতাংশ বাড়িয়ে দেখায় ফেসবুক!

ফেসবুকে অনেকেই ভিডিও বিজ্ঞাপন দিচ্ছেন। এসব ভিডিও অনেক বেশি মানুষ দেখছেন বলে ফেসবুক মারফত জানতে পারছেন। কিন্তু ফেসবুকের দেখানো সব তথ্য কি ঠিক? এ বিষয়টি নিয়ে এখন প্রশ্ন উঠতে শুরু করেছে।

অভিযোগ উঠেছে, বিজ্ঞাপনদাতাদের প্রলুব্ধ করতে বিজ্ঞাপন দেখাসংক্রান্ত তথ্য ৯০০ শতাংশ বাড়িয়ে দেখায় ফেসবুক। এক বছর ধরে ফেসবুকের গড় বিজ্ঞাপন দেখার অতিরঞ্জিত তথ্য দেখানো হয়। বিষয়টি জেনেশুনেও এ ব্যাপারে চুপ করে রয়েছে ফেসবুক। বিষয়টি এবার আদালত পর্যন্ত গড়াল।

মঙ্গলবার (১৬ অক্টোবর) যুক্তরাষ্ট্রের ওকল্যান্ডের একটি ডিসট্রিক্ট কোর্টে একদল ছোট বিজ্ঞাপনদাতাদের গ্রুপের পক্ষ থেকে ফেসবুকের বিরুদ্ধে মামলা করা হয়েছে।

তাদের অভিযোগ, ফেসবুক তাদের প্ল্যাটফর্মে অতিরঞ্জিত তথ্য দেখিয়ে ভিডিও বিজ্ঞাপন দিতে প্রলুব্ধ করে। কারণ, বিজ্ঞাপনদাতাদের কাছে এমনভাবে তথ্য তুলে ধরা হয়, যাতে তাঁরা মনে করেন ফেসবুকে ভিডিও বিজ্ঞাপন মানুষ বেশিক্ষণ দেখেন। ফেসবুকের এ আচরণ অনৈতিক ও বিবেকবর্জিত। এর মাধ্যমে ফেসবুক বিজ্ঞাপনদাতাদের সঙ্গে প্রতারণা করছে।

এর আগেও ২০১৬ সালে বিজ্ঞাপনদাতারা ফেসবুকে বিজ্ঞাপনের তথ্য বাড়িয়ে দেখানোর অভিযোগে মামলা করেছিলেন। তবে, এবারের মামলায় ফেসবুকের অভ্যন্তরীণ তথ্যের ভিত্তিতে করা হয়েছে বলে দাবি করেছে বাদীপক্ষ।

অভিযোগে বলা হয়েছে, ২০১৫ সাল থেকেই ফেসবুকের ভিডিও-অ্যাড মেট্রিকসে সমস্যা রয়েছে। ফেসবুক বিষয়টি দীর্ঘদিন ধরে অবগত থাকলেও এক বছরের বেশি সময় ধরে চুপচাপ রয়েছে।

এখন যদি ফেসবুক তাদের মেট্রিকস ঠিক করে দেখায়, তবে অনেক বিজ্ঞাপনদাতা তাঁদের দর্শকসংখ্যা কম দেখবেন। এ ছাড়া তাঁরা যে পরিমাণ অর্থ খরচ করে ফেসবুকে বিজ্ঞাপন দিয়েছেন, তার সঙ্গে ওই বিজ্ঞাপন দেখার সংখ্যার মিল পাবেন।

ফেসবুক অবশ্য এ অভিযোগ অস্বীকার করেছে। তারা বলছে, এর কোনো ভিত্তি নেই। ফেসবুকের বিরুদ্ধে আনা অভিযোগ খারিজ করে দেওয়ার জন্য তারা আদালতে আরজি করেছে।

ফেসবুকের এক বিবৃতিতে জানানো হয়, বিজ্ঞাপনদাতাদের কাছে তথ্য লুকাতে চেয়েছি বলে যে অভিযোগ আনা হয়েছে, তা মিথ্যা। আমরা যখন ভুল ধরতে পেরেছি, তা সঙ্গে সঙ্গে গ্রাহককে জানানো হয়েছে।

২০১৬ সালে ফেসবুক তাদের দর্শক গণনা সংখ্যার সমস্যা ধরতে সক্ষম হয়। কিছু বিজ্ঞাপনদাতাকে বিষয়টি অবহিত করে বলে, ভিডিও বিজ্ঞাপন দেখার ক্ষেত্রে গড় দর্শকের সংখ্যার পূর্বাভাস ৬০ থেকে ৮০ শতাংশ বেশি দেখানো হচ্ছিল। বাদীপক্ষের অভিযোগ ফেসবুক সেটা বাড়িয়ে ১৫০ থেকে ৯০০ গুণ বেশি দেখায়। তারা একে ক্লাস অ্যাকশন মামলা হিসেবে অন্য বিজ্ঞাপনদাতাদের সঙ্গে চাইছে। এমনকি এর জন্য ক্ষতিপূরণের পাশাপাশি আদালতের কাছে তৃতীয় পক্ষের নিরীক্ষাও চেয়েছে।

তথ্যসূত্র: আরস টেকনিকা, এনগ্যাজেটস

আপনার মন্তব্য

আলোচিত