মঙ্গলবার, ১৯ নভেম্বর ২০১৯ ইং

অনলাইন ডেস্ক

১০ সেপ্টেম্বর, ২০১৯ ১৫:৪৯

আজই উন্মোচিত হচ্ছে নতুন আইফোন

অ্যাপল-প্রেমীরা অধীর আগ্রহে অপেক্ষা করছেন নতুন আইফোনের জন্য। আজ ১০ সেপ্টেম্বর নতুন আইফোনের ঘোষণা দেবে মার্কিন প্রযুক্তিপণ্য নির্মাতা প্রতিষ্ঠান অ্যাপল।

যুক্তরাষ্ট্রের কুপারটিনোর স্টিভ জব থিয়েটারে আজ আইফোন ১১ উন্মুক্ত করতে পারে অ্যাপল।

এর আগে এ অনুষ্ঠান–সম্পর্কিত আমন্ত্রণপত্রে তারা লিখেছিল, ‘বাই ইনোভেশন অনলি’ কথাটি।

ধারণা করা হচ্ছে, এবারের অনুষ্ঠানে ২০১৯ সালের জন্য তিনটি মডেলের আইফোনের ঘোষণা আসতে পারে। আইফোন এক্সএস, এক্সএস ম্যাক্স ও এক্সআর মডেলের পরবর্তী সংস্করণ হবে এগুলো।

এর পাশাপাশি অ্যাপল ওয়াচ ফোরের হালনাগাদ সংস্করণ আসতে পারে।

এবার নতুন আইফোনের নাম হতে পারে আইফোন ১১ প্রো, আইফোন ১১ প্রো ম্যাক্স, ও আইফোন ১১। নতুন আইফোনে ফিচার হিসেবে পেছনে তিন ক্যামেরা সেটআপ থাকবে। তবে আইফোন এক্সআরের হালনাগাদ সংস্করণে দুই ক্যামেরা সেটআপ থাকবে। নতুন আইফোন এ১৩ প্রসেসর ব্যবহৃত হবে। এর আগের সংস্করণগুলোর তুলনায় নতুন আইফোন ব্যাটারির চার্জ বেশিক্ষণ থাকবে। এতে ওএলইডি ও এলসিডি ডিসপ্লে ব্যবহৃত হবে।

বাজারে নতুন আইফোনের ঘোষণা দেওয়ার পরপরই ১৩ সেপ্টেম্বর থেকে এর আগাম ফরমাশ শুরু হবে। ২০ সেপ্টেম্বর থেকে বিক্রি শুরু হবে নতুন আইফোন।

ধারণা করা হচ্ছে, নতুন আইফোনের ক্ষেত্রে দাম বাড়াবে না অ্যাপল। ২০১৮ সালের আইফোনের দামের মতোই এবারের মডেলগুলোর দাম হতে পারে। এর অর্থ নতুন আইফোনের প্রারম্ভিক দাম হবে আইফোন ১১ এর ক্ষেত্রে ৭৪৯ মার্কিন ডলার, আইফোন ১১ প্রোর দাম হবে ৯৯৯ মার্কিন ডলার আর প্রো ম্যাক্সের দাম হবে ১ হাজার ৯৯ মার্কিন ডলার।

নতুন আইফোনের পাশাপাশি এবার অ্যাপল ওয়াচ ৫ সিরিজ নিয়ে হাজির হতে অ্যাপল। এর আগে অ্যাপল ওয়াচের কাঠামো ছিল সিরামিকের। গুঞ্জন রয়েছে, এবার টাইটেনিয়াম ব্যবহার করা হতে পারে।

আজকের অনুষ্ঠানে সফটওয়্যারের দিক থেকে আইওএস ১৩ সংস্করণটি উন্মুক্ত করতে পারে অ্যাপল। গত জুলাইয়ে মাসে এর বিটা সংস্করণটি উন্মোচন করে অ্যাপল। নতুন আইওএস ১৩ সংস্করণটিতে ডার্ক মোড, পারফরম্যান্স আপগ্রেড, মেসেজ, মেইল, নোটস, রিমাইন্ডার আপগ্রেড ও স্ট্রিটভিউ ফিচার থাকবে।

আপনার মন্তব্য

আলোচিত