বৃহস্পতিবার, ১৪ নভেম্বর ২০১৯ ইং

সিলেটটুডে ডেস্ক

২৭ অক্টোবর, ২০১৯ ২২:২৮

‘সুইসাডাল ভেস্ট বিস্ফোরণে’ বাগদাদির মৃত্যু : ট্রাম্প

সিরিয়ায় যুক্তরাষ্ট্রের এক বিশেষ অভিযানে জঙ্গি সংগঠন আইএস নেতা আবু বকর আল বাগদাদি নিহত হয়েছেন বলে নিশ্চিত করেছেন যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। সুইসাইড ভেস্টে বিস্ফোরণে বাগদাদির মৃত্যু হয় বলে জানান ট্রাম্প।

বিবিসি জানায়, সিরিয়ার ইদলিবে মার্কিন সেনাদের অভিযানে একটি অন্ধ সুড়ঙ্গে আত্মঘাতী হামলায় বাগদাদির মৃত্যু হয়।

রোববার হোয়াইট হাউস থেকে সন্ধ্যায় ট্রাম্প জানান, ধরা পড়ার আগে বাগদাদি তার শরীরের সঙ্গে থাকা সুইসাইড ভেস্টে বিস্ফোরণ ঘটান।

তিনি জানান, তিন প্রাপ্তবয়স্ক সন্তানসহ নিজেকে উড়িয়ে দেন বাগদাদি। তবে ডিএনএ পরীক্ষার মাধ্যমে বাগদাদির পরিচয় নিশ্চিত হওয়া গিয়েছে।

মার্কিন প্রেসিডেন্ট বলেন, ‘এই দুর্বৃত্ত অন্যদের এত বেশি ভয় দেখানোর চেষ্টা করেছিল যে, জীবনের শেষ মুহূর্তগুলো তাকে আতঙ্কে কাটাতে হলো। মার্কিন নিরাপত্তা বাহিনী তাকে এমন পরিস্থিতিতে নামিয়ে এনেছিল।’

ইদলিবের এই অভিযানে কোনো মার্কিন সেনা হতাহত হয়নি বলে তিনি জানান। তবে বাগদাদির আরও বেশকিছু সঙ্গী নিহত হয়েছে।

১৯৭১ সালে উত্তর বাগদাদের সামারার কাছে এক এলাকায় জন্মগ্রহণ করেন বাগদাদি। বলা হয়ে থাকে, ২০০৩ সালে ইরাকে মার্কিন অভিযানের সময় শহরের একটি মসজিদের ইমাম ছিলেন তিনি। তবে অনেকের মতে, সাবেক ইরাকি নেতা সাদ্দাম হুসেইনের সময়েই তিনি জঙ্গিবাদের আদর্শ গ্রহণ করেন।

কেউ বলে থাকেন, সে সময় তিনি মার্কিন বাহিনী কর্তৃক গ্রেপ্তার হয়েছিলেন এবং বুকা ক্যাম্পে গ্রেপ্তারকৃত অন্যান্য আল-কায়েদা কমান্ডারদের সঙ্গে ছিলেন।

পরবর্তীতে মধ্যপ্রাচ্যের কুখ্যাত জঙ্গি সংগঠন ইসলামি স্টেট (আইএস)-এর নেতা হিসেবে আবির্ভূত হন তিনি। আইএসের কার্যক্রম পুরো পৃথিবীতে ছড়িয়ে দিয়ে যুক্তরাষ্ট্রের 'মোস্ট ওয়ান্টেড' সন্ত্রাসী হিসেবে নাম লেখান।

২০১১ সালের অক্টোবরে বাগদাদির বিষয়ে তথ্য দানের জন্য ১০ লাখ ডলার পুরস্কার ঘোষণা করে ওয়াশিংটন।

সর্বশেষ ২০১৪ সালে আইএস নেতা আবু বকর আল বাগদাদিকে প্রকাশ্য দেখা যায়। ইরাকের মসুলের গ্র্যান্ড আল নুরি মসজিদে বক্তৃতায় তিনি নিজেকে আইএস খেলাফতের নেতা দাবি করেন। এর আগেও কয়েকবার তার মৃত্যুর গুজব ছড়িয়েছিল।

আপনার মন্তব্য

আলোচিত