মঙ্গলবার, ১০ ডিসেম্বর ২০১৯ ইং

সিলেটটুডে ডেস্ক

০৩ ডিসেম্বর, ২০১৯ ০০:২৪

ধর্ষকদের গণপিটুনি দেওয়া হোক: জয়া

ভারতের হায়দ্রাবাদে সম্প্রতি একজন পশু চিকিৎসককে ধর্ষণ করে পুড়িয়ে মারার ঘটনায় ক্ষোভে উত্তাল গোটা ভারত। এই জঘন্য কাণ্ডের নিন্দার ঝড় বইছে বলিউড তারকাদের মাঝেও।

বলিউড অভিনেত্রী থেকে সংসদ সদস্য হয়ে যাওয়া জয়া বচ্চন রাজ্যসভায় মত প্রকাশ করে বলেছেন, ‘ধর্ষকদের সর্বসমক্ষে এনে গণপিটুনি দেওয়া উচিত।’

গত বুধবার (২৭ নভেম্বর) তেলেঙ্গানার শামসাবাদের টোল প্লাজার কাছে এক পশু চিকিৎসককে ধর্ষণ করে খুন করে দুষ্কৃতিরা। সেই ঘটনার প্রেক্ষিতেই সোমবার (২ ডিসেম্বর) উত্তাল হয়ে ওঠে সংসদ। সংসদে কেউ কেউ দাবি তোলেন ধর্ষণে অভিযুক্তদের ফাঁসি দেওয়া বা খোজা করে দেওয়া উচিত।

ভারতের সমাজবাদী পার্টির সংসদ সদস্য জয়া বচ্চন। তিনি আবেগপ্রবণ হয়ে রাজ্যসভায় বলেন, ‘ধর্ষকদের মানুষের মাঝখানে এনে সর্বসমক্ষে গণপিটুনি দেওয়া উচিত।’ সরকারের উদ্দেশ্যে তার দাবি, ‘আগে কতবার এই ধরনের অপরাধের জন্য বলতে উঠেছি। আমি মনে করি, এবার সময় এসেছে। নির্ভয়া হোক বা কাঠুয়া কিংবা তেলেঙ্গানা—মানুষ জানতে চায়, ঘটনার বিচার দিতে সরকার কী করছে? এবার তা সুনির্দিষ্টভাবে জানাতে হবে। বার বার একই জায়গায় লজ্জাজনক ঘটনা ঘটছে। সুরক্ষার দায়িত্বে যারা রয়েছেন তারা প্রশ্নের মুখোমুখি হবেন না কেন? অনেক দেশ রয়েছে যেখানে এই ধরণের ঘটনা ঘটলে মানুষ নিজেরাই অপরাধীদের শাস্তি দেয়। এক্ষেত্রেও ধর্ষকদের মানুষের মাঝখানে এনে ছেড়ে দেওয়া উচিত ও গণপিটুনি দিতে হবে।’

হায়দ্রাবাদের ধর্ষণকাণ্ডের নিন্দা জানিয়ে অক্ষয় কুমার, সালমান খান, অভিষেক বচ্চন, ফারহান আখতার, রিচা চাঢা, ভিভিএস লক্ষ্মণ, যুবরাজ সিং, আনন্দ কুমার, যোগেশ্বর দত্ত, বিজয় দেবেরাকোণ্ডা, চিন্ময়ী শ্রীপাদ প্রমুখ সকলেই সামাজিক মাধ্যমে তুমুল সমালোচনা করেন।

তবে সবার মুখে যে কথাটি বারবার উচ্চারিত হয়েছে তা হলো, ধর্ষকদের শাস্তি আরও দ্রুত এবং আরও কঠোর হতে হবে।

এই ঘটনায় এখন পর্যন্ত চার অভিযুক্তকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। নিরাপত্তার গাফিলতির জন্য বহিষ্কার করা হয় তিন পুলিশ কর্মীকে। তেলেঙ্গানার মুখ্যমন্ত্রী জানিয়েছেন ধর্ষণের ঘটনার তদন্তে ফাস্ট ট্র্যাক কোর্ট অর্থাৎ দ্রুত বিচার আদালত গঠিত হয়েছে।

আপনার মন্তব্য

আলোচিত