বৃহস্পতিবার, ১৯ সেপ্টেম্বর ২০১৯ ইং

সিলেটটুডে ডেস্ক

১৮ মে, ২০১৯ ১৪:১৩

বুদবুদ ওঠা কোমল পানীয় এড়িয়ে চলুন

গরমের দিন। তাই বন্ধুদের সাথে আড্ডায় কিংবা সিনেমা হলে কোমল পানীয়তে চুমুক দেন সবাই। আনন্দদায়ক এই অনুভূতি মন ভরানোর পাশাপাশি শরীর ভরছে চিনিতে। বুদবুদ ওঠা এসব কোমল পানীয় গ্রহণের ফলে শরীরে যাচ্ছে অতিরিক্ত চিনি। যা ফলে শরীরে যুক্ত হচ্ছে বাড়তি ক্যালরি। তাই ওজন কমানোর জন্য বুদবুদ ওঠা এসব কোমল পানীয় এড়িয়ে চলতে হবে।

এই কোমল পানীয় পান করার মাধ্যমে কী পরিমাণ ক্যালরি ও চিনি গ্রহণ করছেন সেটার একটা ধারণা দেওয়া হল স্বাস্থ্যবিষয়ক একটি ওয়েবসাইটে প্রকাশিত প্রতিবেদন অবলম্বনে।

ক্যালরি

সিনেমা দেখতে গিয়ে পপকর্ন ও কোমল পানীয় কেনা যেন সামাজিক প্রথা! পপকর্নের বদলে অনেকেই ফ্রেঞ্চ ফ্রাই, পপ চিকেন ইত্যাদিও কেনেন। সিনেমা হলে কেনা সাধারণ আকারের এক গ্লাস কোমল পানীয় থেকেই মিলতে পারে প্রায় ২শ’ ক্যালরি। আর মেশিন থেকে বড় কাপ ভরে ‘ফাউন্টেইন’ পানীয় নিলে আরও ক্ষতিকর। কারণ এই এক কাপ পানীয় থেকেই মিলতে পারে প্রায় ৪শ’ ক্যালরি।

চিনি

কোমল পানীয় পান করার মাধ্যমে ক্যালরি পাশাপাশি প্রচুর পরিমাণে চিনি পেটে যাচ্ছে, প্রায় ১০ চামচ। স্বাস্থ্যকর খাদ্যাভ্যাসের নিয়ম অনুযায়ী, দিনে ৬ চা-চামচের বেশি চিনি খাওয়া উচিত হয়। আরও বাজে ব্যাপার হল এই কোমল পানীয় তৃষ্ণা মেটায় ঠিকই তবে ক্ষুধা মেটায় না, পেট ভরায় না। ফলে পানীয়র সঙ্গে আরও কিছু খাবারও আপনি গ্রহণ করেন। যা ক্যালরি গ্রহণের মাত্রা আরও বাড়িয়ে দেয়।

স্বাস্থ্যগত ঝুঁকি

প্রচুর পরিমাণে চিনিযুক্ত পানীয় খাওয়ার কারণে ডায়াবেটিস, স্থূলতা ও হৃদরোগের ঝুঁকি বাড়ে। যারা ডায়েট সোডা পান করে ভার মুক্ত থাকতে চাচ্ছেন তাদের জন্য দুঃসংবাদ হল, ডায়েট সোডাও একই ঝুঁকির সঙ্গে সম্পর্কযুক্ত। বরং ডায়েট সোডা আপনার মনে চিনি খাওয়ার আকাঙ্ক্ষা বাড়ায়।

আপনার মন্তব্য

আলোচিত