রবিবার, ১৮ আগস্ট ২০১৯ ইং

সিলেটটুডে ডেস্ক

২২ মে, ২০১৯ ১৭:৫২

ওজন কমানোর ঘরোয়া উপায়

ওজন নিয়ন্ত্রণে রাখতে সুবিন্যাস্ত ঘর প্রভাব রাখে। অর্থাৎ ঘর সাজানো গোছানো হলে তা ঠিকভাবে পরিচালনাও করা যায়।

জীবনযাপন বিষয়ক একটি ওয়েবসাইটে প্রকাশিত প্রতিবেদন অবলম্বনে ওজন কমাতে ঘরের সুবিন্যাস কীভাবে প্রভাবে সে সম্পর্কে জানানো হল।

ঠিক স্থানে ফলের বাটি রাখা: গবেষণায় দেখা গেছে, ফল খাওয়া পরে যদি নাস্তা খাওয়া হয় তাহলে ওজন হ্রাস পায়। তাই যেখানে নাস্তা খাওয়া হয় তার পাশেই ফলের ঝুড়ি রেখে দিন। ফল খেয়ে পেট অনেকটা ভরে আসবে এবং তখন অল্প পরিমাণে ভাজা পোড়া নাস্তা খাওয়া হবে। ওজন বৃদ্ধির সম্ভাবনও কমবে।

ছোট বাটি ব্যবহার: সকল বড় বাটির পরিবর্তে ছোট বাটি ব্যবহার শুরু করুন। এই সামান্য পরিবর্তন দৃশ্যমান পরিবর্তন আনবে। এর মূল কারণ হল- যখন আমরা বড় পাত্রে খাবার খাই তখন তা পরিপূর্ণ করে খাওয়ার প্রবণতা কাজ করে। আর ছোট বাটিতে খেলে খাবারের এই পরিমাণ নিয়ন্ত্রণ করা যায়। তাই স্বাভাবিকভাবেই ওজন নিয়ন্ত্রণে থাকে।

রেফ্রিজারেইটর গোছানো: রেফ্রিজারেইটর পরিষ্কার পরিচ্ছন্ন ও গুছিয়ে রাখা উচিত। এখানে যতটা সম্ভব স্বাস্থ্যকর খাবার যেমন- সিদ্ধ ডিম বা দই ইত্যাদি রাখুন। রেফ্রিজারেইটরের মাঝামাঝি অংশে যেখানে চোখ বেশি যায় সেখানে এইসব খাবার রাখতে পারেন। তাহলে অস্বাস্থ্যকর খাবার খাওয়ার ঝুঁকি কমে যায়।

মাপ অনুযায়ী পোশাক: আমাদের সবারই এমন দুএকটা পোশাক আছে যা আর গায়ে লাগে না। এই রকম পোশাক ও উঁচু জুতা চোখের সামনে রাখুন। এগুলো দেখে মনে ওজন কমানোর প্রচেষ্টা জেগে উঠবে।

ঢাকনাযুক্ত খাবারের বাক্স: শুনতে হাস্যকর লাগলেও এটা বেশ কার্যকর পদ্ধতি। ওজন কমাতে চাইলে ভাজা-পোড়া নাস্তা ঢাকনাযুক্ত বাক্সে রাখুন যেন বাইরে থেকে দেখা না যায়। এতে এই ধরনের খাবারের উপর আকর্ষণ কমা কাজ করবে।

আপনার মন্তব্য

আলোচিত