শুক্রবার, , ১৬ নভেম্বর ২০১৮ ইং

সিলেটটুডে ডেস্ক

১৭ অক্টোবর, ২০১৮ ২০:৫৯

মাসুদা ভাট্টিকে কটূক্তি, ব্যারিস্টার মঈনুলকে ক্ষমা চাওয়ার দাবি

একটি বেসরকারি টেলিভিশনের আলোচনায় লেখক ও সাংবাদিক মাসুদা ভাট্টির প্রতি কটূক্তির নিন্দা জানিয়েছেন পেশাজীবী নারীরা। এজন্যে সাবেক তত্ত্বাবধায়ক সরকারের উপদেষ্টা ব্যারিস্টার মঈনুল হোসেনকে প্রকাশ্যে নিঃশর্ত ক্ষমা চাওয়ার দাবি জানিয়েছেন তারা।

বুধবার (১৭ অক্টোবর) ২০১ জন পেশাজীবী নারীর স্বাক্ষরিত এক বিবৃতিতে এ দাবি জানানো হয়।

গত ১৬ অক্টোবর মধ্যরাতে একাত্তর টেলিভিশনের নিয়মিত আয়োজন একাত্তর জার্নালে ব্যারিস্টার মঈনুলের প্রতি এক প্রশ্নের জবাবে মাসুদা ভাট্টিকে ‘চরিত্রহীন’ শব্দে কটূক্তি করেন তিনি। এনিয়ে দিনভর সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ব্যাপক সমালোচনা চলে। অনুষ্ঠান পরিচালনায় ছিলেন মিথিলা ফারজানা। এতে অতিথি ছিলেন মাসুদা ভাট্টি এবং সাখাওয়াত হোসেন সায়ন্ত। আলোচনায় স্টুডিওর বাইরে থেকে যুক্ত হন ব্যারিস্টার মঈনুল হোসেন।

মাসুদা ভাট্টি ব্যারিস্টার মইনুল হোসেনের কাছে জানতে চান তিনি কি ঐক্যফ্রন্টে জামায়াতের প্রতিনিধিত্ব করছেন? এর জবাবে ব্যারিস্টার মঈনুল বলেন, ‘আপনার দুঃসাহসের জন্য আপনাকে ধন্যবাদ দিচ্ছি। আপনি চরিত্রহীন বলে আমি মনে করতে চাই।’

মঈনুল হোসেনের এ মন্তব্য প্রসঙ্গে বিবৃতিতে বলা হয়, ‘আমরা মনে করি, তার এই বক্তব্য নারীর জন্য অবমাননাকর, আপত্তিকর, চরম অসহনশীলতার পরিচায়ক। ব্যারিস্টার মঈনুল হোসেনের মতো যারা রাজনৈতিক সহনশীলতার কথা বলেন তাদের কাছ থেকে এ ধরনের শব্দচয়ন উদ্বেগজনক বলে আমরা মনে করি এবং আমরা এর তীব্র নিন্দা জানাই।’

‘অবিলম্বে মাসুদা ভাট্টি তথা নারীর জন্য মানহানিকর এই বক্তব্য প্রত্যাহার করে ব্যারিস্টার মইনুল হোসেনকে প্রকাশ্যে নিঃশর্ত ক্ষমা চাওয়ার দাবি জানাচ্ছি’ বলা হয় বিবৃতিতে।

বিবৃতি দানকারীদের মধ্যে আছেন মানবাধিকার কর্মী সুলতানা কামাল, মানবাধিকারকর্মী খুশী কবির, আইনজীবী ব্যারিস্টার তানিয়া আমীর, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ের চিকিৎসক নুজহাত চৌধুরী, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক শান্তা তাওহিদা, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক জয়নাব শান্ত, জাতীয় প্রেস ক্লাবের সাধারণ সম্পাদক ফরিদা ইয়াসমিন, বাংলাদেশ নারী সাংবাদিক কেন্দ্রের সভাপতি নাসিমুন আরা হক মিনু, সাধারণ সম্পাদক পারভীন সুলতানা ঝুমা, কোষাধ্যক্ষ আখতার জাহান মালিক, বাংলাদেশ নারী সাংবাদিক সমিতির সভাপতি নাছিমা আক্তার সোমা, সাধারণ সম্পাদক আঞ্জুমান আরা শিল্পী, সাংবাদিক মুন্নী সাহা, মিথিলা ফারজানা, নাসিমা খান মন্টি, নবনীতা চৌধুরী, শাহনাজ মুন্নী, ফারজানা রূপা, সুপ্রীতি ধর, রোজিনা ইসলাম, এলিটা করিম, উদিসা ইমন, আঙ্গুর নাহার মন্টি, ফারহানা মিলি, প্রিয়াঙ্কা আচার্য, ফাতেমা আবেদিন নাজলা, শারমিন রিনভী, নাদিরা কিরণ, শেখ সাবিহা আলম, জেসমিন পাপড়ি, রীতা নাহার, জান্নাতুল ফেরদৌসী মানু, মুনমুন শারমিন শামস, জাকিয়া আহমেদ, ইসরাত জাহান ঊর্মি, নাঈমা মৌ, ইফতেসাম নাসিম মৌ।

আপনার মন্তব্য

আলোচিত