শুক্রবার, , ১৬ নভেম্বর ২০১৮ ইং

সিলেটটুডে ডেস্ক

২০ অক্টোবর, ২০১৮ ২২:৩০

অর্থমন্ত্রী বলেছিলেন হবে না, তবু আমরা করেছি

নিজস্ব অর্থে পদ্মা সেতু নির্মান প্রসঙ্গে প্রধানমন্ত্রী

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, অর্থমন্ত্রী এবং একজন উপদেষ্টার কঠোর বিরোধিতা পাশ কাটিয়ে তিনি নিজস্ব সম্পদ ব্যবহার করে পদ্মা সেতু নির্মাণের সিদ্ধান্ত নিয়েছিলেন।

শনিবার আওয়ামী লীগের সভাপতি বলেন, ‘আমার অর্থমন্ত্রী কঠোর আপত্তি করেছিলেন, তিনি বলেছিলেন এটা বিশ্বব্যাংক ছাড়া হবে না। আমার উপদেষ্টা বলেছিলেন, এটা বিশ্বব্যাংক ছাড়া হবে না।’

রাজধানীর বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষকদের সম্মেলনে প্রধানমন্ত্রী এসব কথা বলেন।

শেখ হাসিনা বলেন, নিজস্ব অর্থায়নে পদ্মা সেতু করার সিদ্ধান্তের সময় পুরো দেশ তাঁর সঙ্গে থাকলেও অর্থমন্ত্রী ও উপদেষ্টা এর বিরোধিতা করেছিলেন। তবে সেই উপদেষ্টার নাম উচ্চারণ করেননি তিনি।

‘আমরা এখন নিজেদের অর্থে পদ্মা সেতু নির্মাণ করছি, এই একটি সিদ্ধান্ত বাংলাদেশের ভাবমূর্তি পরিবর্তন করে দিয়েছে,’ যোগ করেন প্রধানমন্ত্রী।

শেখ হাসিনা বলেন, এই সেতুর জন্য তিনি, তাঁর বোন শেখ রেহানা, তাঁর ছেলে জয়, তাঁর মেয়ে পুতুল ব্যাপক নিপীড়নের শিকার হয়েছেন। তিনি বলেন, ‘কিন্তু আমরা কারও কাছে মাথা নত করিনি।’

প্রধানমন্ত্রী বলেন, কীভাবে সব সময় মাথা উচুঁ রাখতে হয় তা দেশের মানুষকে শিখতে হবে। আমাদের দেশ নিজেদের গড়ে তুলতে হবে।’

উন্নয়নের ধারা বজায় রাখতে আগামী নির্বাচনে দেশবাসীকে আওয়ামী লীগে ভোট দেওয়ার আহ্বান জানিয়ে শেখ হাসিনা বলেন, ‘যদি মানুষ মনে করে যে, উন্নয়নের চাকা সচল থাকা উচিত, তাহলে আমি মনে করি, তারা নৌকায় ভোট দিয়ে তাদের সেবা করার সুযোগ দেবে।’

দেশের শিক্ষাখাত উন্নয়নে নেয়া বিভিন্ন কর্মসূচির সংক্ষিপ্ত বিবরণ দিয়ে প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘শিক্ষিত জাতি ছাড়া ক্ষুধা ও দারিদ্র্যমুক্ত দেশ গঠন করা সম্ভব নয়। যে কারণে আমরা সব সময় শিক্ষাকে অগ্রাধিকার দেই।’

শেখ হাসিনা দেশের বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়গুলোর মানের বিষয়ে সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষকে নজর দেওয়ার আহ্বান জানান। তিনি জানান, সরকার আধুনিক প্রযুক্তি নির্ভর শিক্ষা ও কারিগরি প্রশিক্ষণের ওপর জোর দিয়েছে।

বাংলাদেশ বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষক ফেডারেশনের সভাপতি অধ্যাপক এ এস এম মাকসুদ কামালের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে আরো বক্তব্য দেন শিক্ষামন্ত্রী নুরুল ইসলাম নাহিদ, বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরি কমিশনের চেয়ারম্যান অধ্যাপক আবদুল মান্নান ও শিক্ষা সচিব সোহরাব হোসাইন।

আপনার মন্তব্য

আলোচিত