শুক্রবার, , ১৬ নভেম্বর ২০১৮ ইং

সিলেটটুডে ডেস্ক

০৫ নভেম্বর, ২০১৮ ২৩:৪৩

মাইন্ড ইওর ল্যাঙ্গুয়েজ: সিইসিকে মান্না

নির্বাচন কমিশনের (ইসি) সঙ্গে ঐক্যফ্রন্টের নেতাদের বৈঠকে উত্তপ্ত বাক্যবিনিময় হয়েছে।  সোমবার (৫ নভেম্বর) দুই ঘণ্টার বৈঠকে নির্বাচন কমিশনের প্রতি আস্থার প্রশ্ন, তফসিল ঘোষণা, ইলেকট্রনিক ভোটিং মেশিন (ইভিএম) ব্যবহারসহ বিভিন্ন বিষয় নিয়ে কথা কাটাকাটি হয়। এ সময় একে-অপরকে উদ্দেশ করে আক্রমণাত্মক ভঙ্গিতে কথা বলেন। বৈঠক  সূত্রে এসব তথ্য জানা গেছে।

তবে বৈঠক শেষে ঐক্যফ্রন্টের প্রতিনিধি দলের প্রধান আ স ম আব্দুর রব বলেছেন, ‘তাদের মধ্যে সুন্দর পরিবেশে আলোচনা হয়েছে।’

অপরদিকে উচ্চ বাক্যবিনিময় প্রসঙ্গে ইসি সচিব হেলালুদ্দীন আহমদ বলেছেন, ‘উত্তপ্ত কথা নয়, উনাদের গলার আওয়াজটাই এ রকম। উনারা রাজনৈতিক নেতৃবৃন্দ। স্বাভাবিকভাবেই এভাবে কথা বলতে অভ্যস্ত।’

সূত্র জানায়, নাগরিক ঐক্যের আহ্বায়ক ও জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের নেতা মাহমুদুর রহমান মান্না বৈঠকে বলেন, ‘তারা নির্বাচন কমিশনের প্রতি কোনও অনাস্থার কথা বলতে আসেননি। তবে এই নির্বাচন কমিশনের প্রতি জনগণের আস্থা নেই।’

মান্নার বক্তব্যের জবাব দেন প্রধান নির্বাচন কমিশনার (সিইসি) কে এম নুরুল হুদা। তিনি বলেন, ‘আপনাদের (রাজনৈতিক দল) ওপরও তো জনগণের আস্থা নেই।’

সিইসির এই বক্তব্যের পর মান্না বলেন, ‘মাইন্ড ইওর ল্যাঙ্গুয়েজ।’

এরপর প্রতিনিধি দলের আরেক সদস্য সুলতান মনসুর বলেন, ‘সিটি করপোরেশন নির্বাচনে দেখা গেছে এক দলের নেতা আরেক জেলায় জেলে। এভাবে চলতে পারে না।’  তিনি ইসিকে সতর্ক করে বলেন, ‘৫ জানুয়ারির মতো নির্বাচন আর করা যাবে না।’

এর আগে প্রতিনিধি দলের প্রধান আ স ম আব্দুর রব নির্বাচনে বিচারিক ক্ষমতা নিয়ে সেনা মোতায়েনের দাবি জানালে নির্বাচন কমিশনার শাহাদত হোসেন চৌধুরী বলেন, ‘সেনাবাহিনীকে বিচারিক ক্ষমতা দেওয়া অসাংবিধানিক।’ তিনি বলেন, ‘আগামী নির্বাচনে সেনা মোতায়েনের বিষয়ে কমিশনে কোনও আলোচনা হয়নি। তবে দেখা গেছে, অতীতের নির্বাচনগুলোতে সেনাবাহিনী মোতায়েন করা হয়েছে। ভোটের আগে আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতি দেখে কমিশন সিদ্ধান্ত নেবে।’  

বৈঠকে কমিশনার শাহাদাত হোসেন ইভিএমের নিরাপত্তাসহ এর ইতিবাচক নানাদিক তুলে ধরে চ্যালেঞ্জ দিয়ে বলেন, ‘এই ইভিএম হ্যাক করা সম্ভব হয়। এটা দিয়ে ভোট ম্যানুপুলেট (কারসাজি) করা যাবে না।’ জবাবে পাল্টা চ্যালেঞ্জ দিয়ে মান্না বলেন, ‘আমি আপনাকে চ্যালেঞ্জ দিলাম এই মেশিনে ভোট ম্যানুপুলেট করা যাবেই।’

বর্তমান কমিশন তার মেয়াদে কোনও নির্বাচনেই প্রশাসনকে তাদের নিয়ন্ত্রণে রাখতে পারেনি বলে বৈঠকে অভিযোগ তোলা হয়।

আপনার মন্তব্য

আলোচিত