রোববার, ২৬ জানুয়ারি ২০২০ ইং

সিলেটটুডে ডেস্ক

১২ ডিসেম্বর, ২০১৯ ২১:৪৩

ভারত যাচ্ছেন না স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীও

পুরনো ছবি

পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. এ কে আব্দুল মোমেনের পর স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খাঁন কামালও ভারত সফর স্থগিত করেছেন।

বৃহস্পতিবার (১২ ডিসেম্বর) রাতে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের জনসংযোগ কর্মকর্তা শরীফ মাহমুদ অপু এ তথ্য নিশ্চিত করে জানান, শুক্রবার (১৩ ডিসেম্বর) ব্যক্তিগত সফরে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর ভারত যাওয়ার কথা ছিল। কিন্তু তিনি যাচ্ছেন না। পরে সুবিধাজনক সময়ে তিনি ভারতে যাবেন।

শুক্রবার সকাল ১১টায় সিলেটের তামাবিল হয়ে মেঘালয়ে যাওয়ার কথা ছিল স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর। মন্ত্রী, একজন সংসদ সদস্য, মন্ত্রীর এপিএস ও জনসংযোগ কর্মকর্তার যাওয়ার কথা ছিল ওই সফরে।

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীকে আমন্ত্রণ জানিয়েছিলেন ভারতের মেঘালয় রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী কনরাড সাংমা। তার আমন্ত্রণে শুক্রবার সেখানে যাওয়ার কথা ছিল। এ সফরে মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক কয়েকটি অনুষ্ঠানে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর অংশ নেওয়ার কথা ছিল।

একইদিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী তার নির্ধারিত ভারত সফর বাতিল করেছিলেন। ভারতের পররাষ্ট্রমন্ত্রী এস জয়শঙ্করের আমন্ত্রণে বৃহস্পতিবার বিকালেই নয়া দিল্লি যাওয়ার কথা ছিল তার। পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় সফর বাতিলের কারণ হিসেবে বিজয় দিবস সামনে রেখে দেশে মন্ত্রীর ব্যস্ততার কথা বলেছে।

গত বুধবার (১১ ডিসেম্বর) তীব্র বিরোধিতা সত্ত্বেও ভারতের উচ্চকক্ষ রাজ্যসভায় পাস হয় 'বিতর্কিত' নাগরিকত্ব সংশোধনী বিল। এর ফলে বিলটি আইনে পরিণত হয়। দিনভর উত্তপ্ত বিতর্কের পর ১২৫-১০৫ ভোটের ব্যবধানে বিলটি পাস হয় রাজ্যসভায়। এর ফলে নাগরিকপঞ্জি থেকে বাদ পড়া ১৯ লাখ মানুষের নাগরিকত্ব বিষয়ে জটিলতা রয়েই গেল।

এদিকে, বাংলাদেশের পররাষ্ট্রমন্ত্রীর ভারত সফর বাতিলের পর দেশটির পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র বলেছেন, এই সিদ্ধান্ত উত্তর-পূর্ব ভারতে নাগরিকত্ব সংশোধন বিলের বিরুদ্ধে চলমান বিক্ষোভের সঙ্গে সম্পর্কিত নয়। মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র রাভিশ কুমার বৃহস্পতিবার আরও বলেছেন, শেখ হাসিনার সরকারের অধীনে বাংলাদেশ ধর্মীয় নিপীড়ন হচ্ছে বলে দাবি করেনি ভারত।

আপনার মন্তব্য

আলোচিত