মঙ্গলবার, ১৭ সেপ্টেম্বর ২০১৯ ইং

সিলেটটুডে ডেস্ক

০৮ সেপ্টেম্বর, ২০১৯ ১৪:১৩

পিপিবির রিটা রহমান রংপুরে ধানের শীষের প্রার্থী

রংপুর-৩ আসনের উপ-নির্বাচনে ২০ দলীয় জোটের অন্যতম শরিক পিপলস পার্টি অব বাংলাদেশের (পিপিবি) সভাপতি রিটা রহমানকে প্রার্থী করেছে বিএনপি। জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান এইচ এম এরশাদের মৃত্যুতে শূন্য হওয়া এই আসনে উপ-নির্বাচন হবে আগামী ৫ অক্টোবর।

বিএনপির জ্যেষ্ঠ যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী রোববার নয়া পল্টনে দলের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে সাংবাদিকদের বলেন, “রংপুর-৩ আসনে পিপলস পার্টি অব বাংলাদেশের রিটা রহমানকে ধানের শীষের প্রার্থী করা হয়েছে।”

জিয়ার মন্ত্রিসভার সদস্য মসিউর রহমান যাদু মিয়ার বড় মেয়ে রিটা রহমানকে একাদশ নির্বাচনেও এই আসনে প্রার্থী করেছিল বিএনপি।

নির্বাচন কমিশনের ঘোষিত তফসিল অনুযায়ী এই উপ-নির্বাচনের জন্য ৯ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত মনোনয়নপত্র জমা নেওয়ার পর সেগুলো যাচাই-বাছাই হবে ১১ সেপ্টেম্বর। এরপর ১৬ সেপ্টেম্বর মনোনয়নপত্র প্রত্যাহারের শেষ দিন রাখা হয়েছে।

একাদশ সংসদের বিরোধী দলীয় নেতা এরশাদের মৃত্যুর পর তার আসনটি শূন্য ঘোষণা করে সংসদ সচিবালয়। আসন শূন্য হওয়ার পরবর্তি ৯০ দিনের মধ্যে সেখানে নির্বাচন করার সাংবিধানিক বাধ্যবাধকতা রয়েছে।

এই উপনির্বাচনে ধানের শীষের প্রার্থী হতে রিটা রহমান ছাড়াও দলীয় মনোনয়নপত্র নিয়েছিলেন সদ্য প্রয়াত মহানগর সভাপতি মোজাফফর হোসেনের স্ত্রী সুফিয়া হোসেন, রংপুর মহানগর সহসভাপতি কাওসার জামান বাবলা, মহানগর সাধারণ সম্পাদক শহিদুল ইসলাম মিজু ও জেলা সাধারণ সম্পাদক রইসউদ্দিন।

শনিবার গুলশান কার্যালয়ে বিএনপির মনোনয়ন বোর্ড প্রার্থী হতে ইচ্ছুক পাঁচজনের সাক্ষাৎকার নেয়। মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর, স্থায়ী কমিটির সদস্য খন্দকার মোশাররফ হোসেন, মওদুদ আহমদ, জমিরউদ্দিন সরকার, মির্জা আব্বাস, গয়েশ্বর চন্দ্র রায়, আবদুল মঈন খান, নজরুল ইসলাম খান, আমীর খসরু মাহমুদ চৌধুরী, সেলিমা রহমান ও ইকবাল হাসান মাহমুদ টুকু মনোনয়ন বোর্ডে ছিলেন।

একাদশ সংসদ নির্বাচনে আওয়ামী লীগ তাদের মহাজোটের নেতা এরশাদকে আসনটি ছেড়ে দিলেও এবার প্রার্থী করেছে জেলা রংপুর জেলার সাধারণ সম্পাদক রেজাউল করিম রাজুকে।

অন্যদিকে জাতীয় পার্টির এখনও প্রার্থিতা চূড়ান্ত করেনি। দুই একদিনের মধ্যে এ বিষয়ে সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে বলে জানিয়েছেন দলের মহাসচিব মসিউর রহমান রাঙ্গাঁ।

আপনার মন্তব্য

আলোচিত