বুধবার, ১৬ অক্টোবর ২০১৯ ইং

সিলেটটুডে ডেস্ক

১৯ সেপ্টেম্বর, ২০১৯ ১০:০৮

ছাত্রদলের নতুন সভাপতি ফজলুর, সম্পাদক ইকবাল

প্রায় ২৮ বছর পর সরাসরি ভোটে নির্বাচিত হয়েছে ছাত্রদলের নতুন নেতৃত্ব। সংগঠনের ষষ্ঠ কাউন্সিলে ১৮৬ ভোট পেয়ে সভাপতি নির্বাচিত হয়েছেন ফজলুর রহমান খোকন। সাধারণ সম্পাদক নির্বাচিত হয়েছেন ইকবাল হোসেন শ্যামল। তিনি পেয়েছেন  ১৩৯ ভোট।

বৃহস্পতিবার (১৯ সেপ্টেম্বর) ভোর ৫টার দিকে ভোট গণনা শেষে এই ফলাফল ঘোষণা করেন বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য মির্জা আব্বাস।

তার শাহজাহানপুরের বাড়িতেই রাতভর ভোটগ্রহণ ও গণনা অনুষ্ঠিত হয়েছে।

নতুন ছাত্রদল সভাপতি খোকনের নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী কাজী রওনুক ইসলাম শ্রাবণ ইসলাম পেয়েছেন ১৭৮ ভোট এবং সাধারণ সম্পাদক শ্যামলের নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী জাকিরুল ইসলাম জাকির পেয়েছেন ৭৮ ভোট।

ছাত্রদল সূত্র জানায়, নবনির্বাচিত সভাপতি খোকনের বাড়ি বগুড়া জেলায়। সাধারণ সম্পাদক শ্যামলের বাড়ি নরসিংদী। ৫৩৩ কাউন্সিলরের মধ্যে ৪৮১ জন ভোট প্রদান করেন।

রিটার্নিং কর্মকর্তা হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন বিএনপি যুগ্ম মহাসচিব খায়রুল কবির খোকন ও সহকারী রিটার্নিং কর্মকর্তা হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন শহীদ উদ্দিন চৌধুরী এ্যানী।

ভোট চলাকালীন এবং গণনার সময় সারারাত মির্জা আব্বাসের বাড়ির আঙ্গিনায় অবস্থান করেছেন ছাত্রদলের ভোটার ও প্রার্থীরা।

উপস্থিত ছাত্রদলের নেতারা জানান, ভোট গ্রহণের পর রাত দুইটার দিকে বিএনপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান ও ছাত্রদলের নতুন দায়িত্বপ্রাপ্ত অভিভাবক তারেক রহমান দিক নির্দেশনামূলক বক্তব্য রাখেন।

ছাত্রদলের নির্বাচিতদের ধৈর্য ধরে ও হঠকারিতা না করে কমিটি পূর্ণাঙ্গ করার নির্দেশ দেন বিএনপির শীর্ষ নেতৃত্ব। নির্বাচিতদের নিয়ে স্লোগান না দেওয়ার কথাও জোর দিয়ে বলা হয়। এছাড়া কারও উস্কানিতে পা না দিয়ে অত্যন্ত সতর্কভাবে সামনে চলার আহ্বান জানানো হয়েছে।  

উল্লেখ্য, সর্বশেষ ১৯৯২ সালে ছাত্রদলের কাউন্সিল অনুষ্ঠিত হয়। ইলিয়াস আলী ও রুহুল কবির রিজভীর নেতৃত্বাধীন সেই কমিটি মাত্র তিন মাসের মাথায় ভেঙে দেন বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া। এরপর থেকে বিএনপির মনোনীত নেতাদের মাধ্যমে ছাত্রদলের কমিটি গঠিত হয়ে আসছিল। প্রায় ২৮ বছর পর অনুষ্ঠিত এবারে কাউন্সিলে সভাপতি পদের জন্য প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন ৯ জন ও সাধারণ সম্পাদক পদে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন ১৭ জন।

আপনার মন্তব্য

আলোচিত