মঙ্গলবার, ১৯ নভেম্বর ২০১৯ ইং

সিলেটটুডে ডেস্ক

২০ অক্টোবর, ২০১৯ ১৫:১১

মেননকে ‘নিশিরাতের সরকারের সঙ্গী’ বললেন রিজভী

আওয়ামী লীগের নেতৃত্বাধীন ১৪ দলের শরিক বাংলাদেশের ওয়ার্কার্স পার্টির সভাপতি রাশেদ খান মেননকে ‘নিশিরাতের সরকারের সঙ্গী’ বলে আখ্যা দিয়েছেন। তবে গত নির্বাচন নিয়ে মেননের বক্তব্যকে ‘মহাসত্য’ বলেও আখ্যা দিয়েছেন রিজভী। বিএনপির এই জ্যেষ্ঠ যুগ্ম মহাসচিব বলছেন, ‘নিশিরাতের সরকারের সঙ্গী রাশেদ খান মেনন যে কোনো কারণেই হোক, এবার নিজের মুখে মহাসত্যটি স্বীকার করেছেন।’

রোববার এক সংবাদ সম্মেলনে এসব কথা বলেন রুহুল কবির রিজভী। রাজধানী ঢাকার নয়াপল্টনে বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে এ সংবাদ সম্মেলন হয়।

গতকাল শনিবার বরিশালে ওয়ার্কার্স পার্টির বরিশাল জেলা শাখার সম্মেলনে রাশেদ খান মেনন বলেন, “আমি ও প্রধানমন্ত্রীসহ যারা নির্বাচিত হয়েছি- আমাদের দেশের কোনও জনগণ ভোট দেয়নি, কারণ ভোটাররা কেউ ভোটকেন্দ্রে আসতে পারেনি”

ঢাকা-৮ আসনে নৌকা প্রতীক নিয়ে গত দুই সংসদ নির্বাচনে বিজয়ী হয়েছেন মেনন, বিগত সরকারে দুই দফায় দুই মন্ত্রলায়ের মন্ত্রীও ছিলেন তিনি। প্রথমে বেসরকারি বিমান পরিবহন ও পর্যটন মন্ত্রণালয় এবং পরে সমাজকল্যাণ মন্ত্রণালয়।

রাশেদ খান মেননের এই বক্তব্য প্রসঙ্গে রুহুল কবির রিজভী বলেন, ‘অবশেষে সত্য কথাটা অকপটে জনগণের সামনে স্বীকার করতে হলো মেনন সাহেবকে। বিবেকের তাড়নায় মেনন সাহেব যে সত্য কথাগুলি বলতে শুরু করেছেন, হয়তো কয়েকদিন পর ওবায়দুল কাদের এবং হাছান মাহমুদরাও বলবেন। আর এই কথাগুলি যতই তাদের নিকট থেকে বেরিয়ে আসবে ততই বন্ধক রাখা আত্মা মুক্ত হবে।’

বিএনপির এই নেতা আরও বলেন,‘কথায় বলে, ধর্মের কল বাতাসে নড়ে। সত্যকে কখনো ধামাচাপা দেওয়া যায় না। সত্য কোনো না কোনোভাবে প্রকাশিত হয়ই।’

রুহুল কবির রিজভী বলেন, ‘২০১৮ সালের ২৯ ডিসেম্বর মধ্যরাতে জনগণের ভোট ডাকাতি করে রাতের গর্ভে সরকারের জন্ম দেওয়া হয়েছে। বাংলাদেশের ইতিহাসে এত বড় দুর্নীতি, এত বড় কলঙ্ক, জনগণের ভোট নিয়ে এত বড়ো জুয়া খেলা অতীতে আর কখনোই ঘটেনি। নির্বাচনের নামে ২০১৮ সালের ২৯ ডিসেম্বর মধ্যরাতে আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী ও প্রশাসনের কর্মকর্তাদের দিয়ে জনগণের ভোট কেটে নেওয়া, ২০১৪ সালের ৫ জানুয়ারির ভোট ডাকাতিকেও হার মানিয়েছে।’

বিএনপির এই নেতা বলেন, গত এক দশকে দেশে দুর্নীতি-অনাচার-দুর্বৃত্তায়ন এখন এমন পর্যায়ে পৌঁছেছে চরিত্রহীন সুবিধাবাদী মানুষেরা আওয়ামী লীগকে মনে করছে টাকা বানানোর হাতিয়ার।

রাশেদ খান মেননের এই বক্তব্য নানা মহলে আলোচনার জন্ম দিয়েছে। এনিয়ে প্রতিক্রিয়া জানিয়েছেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদেরও। রোববার সচিবালয়ে সাংবাদিকদের সঙ্গে আলাপকালে ওবায়দুল কাদের বলেন, উনি (রাশেদ খান মেনন) এতদিন পরে কেন প্রশ্ন তুললেন? মন্ত্রী হলে কি তিনি নির্বাচন নিয়ে বিরূপ মন্তব্য করতেন? এমন কথা বলতেন?

আপনার মন্তব্য

আলোচিত