মঙ্গলবার, ১৫ অক্টোবর ২০১৯ ইং

সিলেটটুডে ডেস্ক

০৮ অক্টোবর, ২০১৯ ১৮:৩৪

এমসি কলেজের ছাত্র সোহানের হত্যাকারীর শাস্তির দাবিতে মানববন্ধন

সিলেট এমসি কলেজের মেধাবী ছাত্র শাহেদুল হোসেন সোহানের হত্যাকারী ঘাতক ট্রাক ও চালককে অবিলম্বে গ্রেপ্তার করে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবিতে মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়েছে।

মঙ্গলবার (৮ অক্টোবর) সকাল ১১টায় তেমুখী বাইপাস পয়েন্টে এলাকাবাসীর উদ্যোগে এই মানববন্ধন করা হয়।

মানববন্ধনে বক্তারা বলেন, তেমুখী পয়েন্টে পুলিশ প্রতিনিয়ত গাড়ি থামাতে সিগন্যাল প্রদান করেন। তাদের এ সিগন্যাল থেকে বাঁচতে গিয়ে অসংখ্য গাড়ি চালক দ্রুত পালিয়ে যেতে চায়। আর এ ধরনের একটি ঘটনার কারণে একজন মেধাবী ছাত্র নিহত হয়েছে।

ড্রাইভারদের অসচেনতার ফলে এ ধরনের ঘটনা ঘটেছে বলে দাবি করে এলাকাবাসীর অভিযোগ, তেমুখী পয়েন্টে কোন স্পীড বেকার না থাকার ফলে এ ধরনের ঘটনা প্রায়ই ঘটে থাকে।

বক্তারা বলেন, পুলিশ প্রশাসনের কাছে ডিজিটাল প্রযুক্তি থাকার পরও আশ্চর্যজনকভাবে এখন পর্যন্ত পুলিশ কাউকে গ্রেপ্তার করতে পারেনি। এ ধরনের ঘটনায় পুলিশের ব্যর্থতার পরিচয় দিয়েছে। বক্তারা সিলেট এম. সি. কলেজের মেধাবী ছাত্র শাহেদুল হোসেন সোহানের হত্যাকারী ঘাতক ড্রাইভারকে অবিলম্বে গ্রেপ্তার করে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি জানান।

তেমুখী সমিতির সভাপতি মাসুক মিয়ার সভাপতিত্বে ও কুমার যুব সংঘের সাধারণ সম্পাদক বেলাল আহমদের পরিচালনায় মানববন্ধনে প্রধান অতিথির বক্তব্য দেন, সিলেট জেলা সিএনজি চালিত অটোরিকশা শ্রমিক ইউনিয়ন রেজি নং চট্ট ৭০৭ এর সভাপতি জাকারিয়া আহমদ।

আরও বক্তব্য দেন, নিহত ছাত্র শাহেদুল হোসেন সোহানের মামা আজাদ মিয়া, খালু অ্যাডভোকেট শফিকুল ইসলাম সবুজ।

অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য দেন ও উপস্থিত ছিলেন, তেমুখী ব্যবসায়ী সমিতির সাধারণ সম্পাদক জুবায়ের আহমদ সুমন, এম.সি কলেজের শিক্ষার্থী ফরিদুল বারী দিনার, সিলেট জেলা সিএনজি চালিত অটোরিকশা শ্রমিক ইউনিয়ন রেজি নং চট্ট ৭০৭ এর অন্তর্ভুক্ত মুক্তিযোদ্ধা উপ-পরিষদের সহ-সভাপতি আব্দুল হামিদ, সম্পাদক শিবলী আহমদ, সাংগঠনিক ইউসুফ আলী, আম্বরখানা উপ-পরিষদের সাবেক সভাপতি ফরিদ আহমদ, সাবেক সম্পাদক মোশাহিদ আলী, বর্তমান সভাপতি আব্দুল খালিক, ছাত্র নেতা আল আমিন আহমদ। এছাড়াও এলাকাবাসী, বিশিষ্ট ব্যক্তিবর্গ, বিভিন্ন স্কুল, কলেজ ও মাদ্রাসার অসংখ্য শিক্ষার্থীরাও উপস্থিত ছিলেন।

আপনার মন্তব্য

আলোচিত