শুক্রবার, ১৫ নভেম্বর ২০১৯ ইং

কমলগঞ্জ প্রতিনিধি

১৬ অক্টোবর, ২০১৯ ০০:২৪

শমশেরনগর বণিক কল্যাণ সমিতির নির্বাচনের বৈধতা চ্যালেঞ্জ করে রিট

মৌলভীবাজারের কমলগঞ্জ উপজেলার শমশেরনগর বণিক কল্যাণ সমিতির ত্রি-বার্ষিক নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়েছিল ২৭ সেপ্টেম্বর (শুক্রবার)। এই নির্বাচনে নানা অভিযোগ তুলে ফলাফল বাতিল করে পুনরায় নির্বাচন দেওয়ার জন্য এক সভাপতি প্রার্থী গত ৩ অক্টোবর কমলগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার কাছে লিখিত অভিযোগও করেছিলেন।

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার কাছে লিখিত অভিযোগের পর সভাপতি প্রার্থী আইয়ুব আলী গত ১৪ অক্টোবর নবনির্বাচিত কমিটির কাছে নির্বাচনের বৈধতা চ্যালেঞ্জ করে ক্ষমতা হস্তান্তর না করতে উচ্চ আদালতে রিট পিটিশন (রিট পিটিশন নং ১১০০৪) দায়ের করেন।

সুপ্রিম কোর্টের ডিভিশন বেঞ্চের বিচারপতি শেখ হাসান আরিফ ও বিচারপতি রাজিক-আল জলিল-এর আদালত নির্বাচিত কমিটির কাছে ক্ষমতা হস্তান্তর না করতে নিষেধাজ্ঞা জারি করেন। এ বিষয়ে ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য স্থানীয় সরকার মন্ত্রণালয়ের সচিব, মৌলভীবাজারের জেলা প্রশাসক, কমলগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও শমশেরনগর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যানকে নোটিশ প্রদান করা হয়েছে।

রিট আবেদনকারী শমশেরনগর বণিক কল্যাণ সমিতির সভাপতি প্রার্থী আইয়ুব আলী বলেন, আমি নানা অভিযোগের তথ্য প্রমাণসহ সুবিচার প্রার্থনা করে গত ৩ অক্টোবর কমলগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার কাছে আবেদন করি। নির্বাহী কর্মকর্তার কাছ থেকে কোন তদন্ত না হওয়ায় বা ব্যবস্থা গ্রহণ না করায় বাধ্য হয়ে উচ্চ আদালতে রিট পিটিশন দায়ের করি।
    
শমশেরনগর বণিক কল্যাণ সমিতির নির্বাচন পরিচালনা কমিটির প্রধান সাবেক ইউপি সদস্য আব্দুল মোহিত উচ্চ আদালতের রিট আবেদনে ক্ষমতা হস্তান্তরে নিষেধাজ্ঞার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, তারপরও নির্বাচিত সভাপতিসহ অন্যান্যরা তাদের কাছে ক্ষমতা হস্তান্তর করতে জোর চাপ সৃষ্টি করছেন। বিষয়টি তিনি কমলগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তাকে অবহিত করেছেন বলে জানান।

শমশেরনগর ইউপি চেয়ারম্যান মো. জুয়েল আহমদ উচ্চ আদালতের নিষেধাজ্ঞার কথা স্বীকার করে বলেন, বিষয়টি নিয়ে তারা ভাবছেন। তবে আদালতের নির্দেশনার প্রতি সম্মান জানাতে হবে।

কমলগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা আশেকুল হক বলেন, তিনি শুনেছেন উচ্চ আদালতের নিষেধাজ্ঞার কথা। তার কার্যালয়ে নির্দেশনা আসলে তিনি দেখে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করবেন।

আপনার মন্তব্য

আলোচিত