বুধবার, , ১৭ অক্টোবর ২০১৮ ইং

স্পোর্টস ডেস্ক

২৬ সেপ্টেম্বর, ২০১৮ ০২:১৯

এশিয়া কাপের ইতিহাসে এমনটি ঘটেনি আর

ভারতকে রুখে দিলো আফগানিস্তান

নিয়মরক্ষার ম্যাচ হলেও ভারত-আফগানিস্তানের ম্যাচ ছড়ালো চরম উত্তেজনা। আফগানদের বিপক্ষে ভারতকে দিতে হলো কঠিন পরীক্ষা। যে পরীক্ষায় উতরাতে পারেনি আগেই এশিয়া কাপের ফাইনাল নিশ্চিত করা ভারত। চরম নাটকীয়তায় ভরা ম্যাচে কেউ জেতেনি, টাইয়ে শেষ হয়েছে ভারত-আফগান লড়াই।

এশিয়া কাপের ইতিহাসে প্রথমবারের মতো ঘটলো এমন ঘটনা। এরআগে এশিয়া কাপে আর কোনো ম্যাচ টাই হয়নি। একইসঙ্গে এই এশিয়া কাপের এই প্রথমবারের মতো জয় বঞ্চিত থাকলো ভারত।

মোহাম্মদ শাহজাদের ১২৪ রানের ওপর ভর করে আফগানিস্তান নির্ধারিত ৫০ ওভারে ৮ উইকেটে করেছিল ২৫২ রান। সেই লক্ষ্যে খেলতে নেমে ৪৯.৫ ওভারে অলআউট হওয়ার আগে ভারতের স্কোরও হয় একই, ২৫২। তাই টাইয়ে শেষ হয় ম্যাচটি।

শেষ ২ বলে জয়ের জন্য ১ রান দরকার ছিল ভারতের। স্ট্রাইকে থাকা রবীন্দ্র জাদেজা সেটা পারেননি। রশিদ খানের বলে শেষ ব্যাটসম্যান হিসেবে তিনি আউট হয়ে গেলে দুই দলের স্কোর হয় সমান। জাদেজা হতাশায় মাথা নিচু করলেও আফগানদের কাছে এই টাই জয়ের চেয়ে কোনও অংশে কম নয়। শক্তিশালী ভারতকে জিততে না দেওয়া বলে কথা!

২৫৩ রানের লক্ষ্যে দুর্দান্ত শুরু এনে দেন লোকেশ রাহুল ও আম্বাতি রাইডু। নিয়মিত ওপেনার রোহিত শর্মা ও শিখর ধাওয়ানের অভাব টের পেতে দেননি তারা। উদ্বোধনী জুটিতে ১১০ রান যোগ করে শক্ত ভিত গড়েন রাহুল-রাইডু। ঝড়ো ব্যাটিংয়ে ইনিংস সাজিয়েছেন রাইডু। ৪৩ বলে হাফসেঞ্চুরি করার পর অবশ্য খুব বেশিক্ষণ টিকতে পারেননি। প্রথম ব্যাটসম্যান হিসেবে মোহাম্মদ নবীর বলে আউট হয়ে যান। তার আগে ৪৯ বলে ৪ বাউন্ডারি ও ৪ ছক্কায় করেন ৫৭ রান।

আরেক ওপেনার রাহুলও তুলে নেন হাফসেঞ্চুরি। তবে তিনিও ফিফটির পর বেশিদূর যেতে পারেননি। রশিদ খানের ঘূর্ণিতে এলবিডব্লিউ হয়ে থামেন ৬০ রানে। ৬৬ বলের ইনিংসটি সাজান ৫ বাউন্ডারি ও ১ ছক্কায়। এরপরই ধাক্কা খায় ভারত।

ব্যাটিং অর্ডারে উপরে ওঠে এসে চার নম্বরে নামেন অধিনায়ক হিসেবে অনেকদিন পর ফেরা মহেন্দ্র সিং ধোনি। দলের হাল ধরে ভালো একটি ইনিংস খেলার প্রত্যাশা ছিল তার। কিন্তু আম্পায়ারের ভুল সিদ্ধান্তে এলবিডব্লিউয়ে হতাশ হয়ে ফিরতে হয় তাকে। রিভিউ আগেই শেষ হওয়ায় কিছুই করার ছিল না ধোনির। ১৭ বলে মাত্র ৮ রান করে আউট তিনি।

খানিক পর মনিশ পাণ্ডেও ফিরে যান প্যাভিলিয়নে। নিয়মিত একাদশের বেশ কয়েকজন খেলোয়াড়ের বিশ্রামে পাওয়া সুযোগটা একেবারেই কাজে লাগাতে পারেননি তিনি। ৮ রানে থামতে হয় আফতাব আলমের বলে উইকেটরক্ষক মোহাম্মদ শাহজাদের গ্ল্যাভসবন্দি হয়ে।

কেদার যাদবকে সঙ্গে নিয়ে ওই অবস্থা থেকে ঘুরে দাঁড়িয়েছিলেন দিনেশ কার্তিক। কিন্তু দুঃখজনক রানআউট হয়ে কেদার ১৯ রানে ফিরে গেলে চাপ আরও বাড়ে ভারতের। সেটা আরও বেশি করে চেপে ধরে কার্তিকের আউটে। ধৈর্যশীল ব্যাটিংয়ে দলকে এগিয়ে নিয়ে যাচ্ছিলেন তিনি। কিন্তু আবারও আম্পায়ারের ভুল সিদ্ধান্তের শিকার ভারত! ক্যারিবিয়ান আম্পায়ার গ্রিগোরি ব্রাথওয়েটের আরেকটি ভুল সিদ্ধান্তে এলবিডব্লিউ হয়ে ফিরতে হয় কার্তিককে। রিভিউ না থাকায় ৪৪ রানে শেষ হয় কার্তিকের লড়াকু ইনিংস।

এরপর জাদেজা চেষ্টা করে গেছেন শেষ পর্যন্ত। দলকে জিতিয়েও দিচ্ছিলেন তিনি। কিন্তু শেষে এসে আর পারেননি। ২৫ রানে তিনি আউট হওয়ার পরই ভারত-আফগান ম্যাচ শেষ হয় টাইয়ে।

আফগানদের হয়ে দুটি করে উইকেট নিয়েছেন রশিদ খান, মোহাম্মদ নবী ও আফতাব আলম।

আপনার মন্তব্য

আলোচিত