বুধবার, ২২ মে ২০১৯ ইং

স্পোর্টস ডেস্ক

০৪ মে, ২০১৯ ২৩:০৬

প্লাস্টিক-বর্জ্যে তৈরি বিশ্বকাপ জার্সি, প্রশংসিত শ্রীলঙ্কা

আসন্ন বিশ্বকাপে বাংলাদেশ জাতীয় ক্রিকেট দলের জার্সি নিয়ে হৈ চৈ কম হয়নি। জার্সিতে জাতীয় পতাকার লাল-সবুজ রং একসঙ্গে নেই বলে সোশ্যাল মিডিয়ায় রীতিমতো ঝড় তুলেছিলেন সমালোচকরা। পরে নতুন ডিজাইনের জার্সি বানিয়ে সে ঝড় সামাল দেয় বিসিবি।

এবার বাংলাদেশ নয়, সোশ্যাল মিডিয়ার আলোচনায় দক্ষিণ এশিয়ার পড়শি দেশ শ্রীলঙ্কার জার্সি। লঙ্কানদের বিশ্বকাপ পোশাক ভাসছে প্রশংসার বন্যায়।

গত শুক্রবার (০৩ মে) কলম্বোর তাজ সমুদ্র হোটেলে জাঁকালো অনুষ্ঠানে শ্রীলঙ্কার বিশ্বকাপ জার্সি উন্মোচন করা হয়। এসময় দেখানো হয় দলের অনুশীলন জার্সিও।

অপূর্ব ডিজাইন হলেও লঙ্কান জার্সি প্রশংসা কুড়চ্ছে অন্য কারণে। তাদের এবারের জার্সিটি তৈরি হয়েছে সাগরে ফেলা প্লাস্টিক বর্জ্য থেকে।

শ্রীলঙ্কা ক্রিকেট বোর্ডের দীর্ঘদিনের পোশাক স্পন্সর এমএএস হোল্ডিংস। এর আগে সবসময় আমদানি করা ফেব্রিকের জার্সি বানালেও এবার তারা বেছে নিয়েছে পরিবেশবান্ধব প্রযুক্তি।

প্রতিষ্ঠানটির পরিবেশগত স্থায়িত্ব বিভাগের পরিচালক শারিকা সেনানায়েক বলেন, শ্রীলঙ্কার উপকূল থেকে সংগ্রহ করা প্লাস্টিক বর্জ্য থেকে স্থানীয়ভাবে বিশ্বমানের পণ্য তৈরির মাধ্যমে আমরা পরিবেশ রক্ষার বার্তা দিতে চাই। এ প্রকল্পের মাধ্যমে সারাবিশ্বে পরিবেশবান্ধব পোশাক ছড়িয়ে দিতে চায় এমএএস।

নতুন প্রযুক্তি ছড়িয়ে দেওয়ার মাধ্যমে এ অঞ্চলের পরিবেশগত চ্যালেঞ্জ মোকাবিলার পথ খুঁজে দেখা হচ্ছে বলেও জানান তিনি।

শ্রীলঙ্কা দলের মূল জার্সিতে গ্রাফিক্সের মাধ্যমে একটি কচ্ছপের চিত্র ফুটিয়ে তোলা হয়েছে। লঙ্কান উপকূলে দূষণের কারণে নিরীহ এ প্রাণীটি বিপন্ন হয়ে পড়েছে। জার্সিতে কচ্ছপের ছবির মাধ্যমে সব ধরনের সামুদ্রিক প্রাণী রক্ষার আহ্বান জানানো হয়েছে।

ঐতিহ্যবাহী নীল-হলুদ রংয়ের মূল জার্সির বুকে সাদা হরফে দেশের নাম ‘শ্রীলঙ্কা’ লেখা রয়েছে। বামপাশে শ্রীলঙ্কার জাতীয় পতাকা ও ডানপাশে বিশ্বকাপের লোগো রয়েছে।

অনুশীলন জার্সি তৈরি হয়েছে নীল-কালোর মিশ্রণে। এতেও দৃষ্টিনন্দন গ্রাফিক্সে ঢেউ তৈরি করে সমুদ্রের প্রতীক ফুটিয়ে তোলা হয়েছে।

দূষণরোধের বিজ্ঞাপনে শ্রীলঙ্কান ক্রিকেট বোর্ড সহযোগী স্পন্সর হিসেবে পাশে পেয়েছে ভারতের পানি বিশুদ্ধকরণ পণ্য প্রস্তুতকারক প্রতিষ্ঠান কেন্ট আরও সিস্টেমস লিমিটেডকে। প্রতিষ্ঠানটি ক্রিকেটের সঙ্গেও দীর্ঘদিন ধরে যুক্ত। তারা ইতোমধ্যে ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ড ও আইপিএল-এর বিভিন্ন দলকে স্পন্সর করেছে।

আপনার মন্তব্য

আলোচিত