সোমবার, ২৭ মে ২০১৯ ইং

স্পোর্টস ডেস্ক

১৬ মে, ২০১৯ ২০:১৫

সোশ্যাল মিডিয়া নিয়ে রাহীকে সতর্ক করেছিলেন মাশরাফি

ওয়ানডে অভিষেক খুব বেশি সুখকর ছিল না আবু জায়েদ রাহীর। চাপ নিয়েই খেলতে নেমেছিলেন। পারফরম্যান্স ভালো না হওয়ায় দ্বিতীয় ম্যাচে সেই চাপটা জেঁকে বসেছিল আরো। তবু আরেকটা ম্যাচে তাকে সুযোগ দিল টিম ম্যানেজমেন্ট। রাহী ৫ উইকেট শিকার করে প্রমাণ দিলেন নিজের সামর্থ্যের।

২৫ বছর বয়সী রাহী বুধবার নিজের দ্বিতীয় ওয়ানডেতেই আয়ারল্যান্ডের বিপক্ষে নিয়েছেন ৫ উইকেট। সিলেটী এই পেসারের ভালো করার পেছনে প্রেরণা হিসেবে কাজ করেছে অধিনায়ক মাশরাফি বিন মর্তুজার বলা কিছু কথা। যার একটি ছিল, সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ব্যবহার নিয়ে। রাহীকে মাশরাফী বলেছিলেন, সমালোচনা সহ্য করতে পারলে সোশ্যাল মিডিয়ায় থাকো, না হলে নয়।

রাহীকে নিয়ে আসলে নানা আলোচনা, গুঞ্জন চলছিল। বিশেষ তার জায়গায় তাসকিন আহমেদ বিশ্বকাপ দলে ঢুকছেন এমন খবর খোদ দলের ম্যানেজমেন্ট সূত্র থেকেই প্রকাশ হয়। এরপর থেকেই সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে এ নিয়ে সরব ভক্তরা।

এর মাঝেই রাহী খেলতে নামেন মাঠে। ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে অভিষেক ম্যাচে কোনো উইকেট পাননি। ছিলেন ব্যয় বহুলও। তাতে তার বিশ্বকাপ স্বপ্ন মাটি হতে যাচ্ছে এমনই মনে করছিলেন অনেকে। তবে রাহী বাইরে কি হচ্ছে তাতে কান দেননি।

মনে রেখেছেন মাশরাফির বলা এই কথা, ‘‘প্রথম ম্যাচে উইকেট পাইনি, এটা আসলে মাথাতেই নেইনি। বাইরে অনেক কথা হয়েছে। মাশরাফি ভাই একটা কথা বলেছেন যে ‘সোশ্যাল মিডিয়া যদি সহ্য করতে পারো, তাহলে দেখো। আর যদি সহ্য করতে না পারো তবে বন্ধ করে দাও।’’

মাশরাফির মন্ত্রে উজ্জীবিত রাহী চাপহীন ভাবেই আয়ারল্যান্ডের বিপক্ষে বল করেছেন বলে জানালেন, ‘‘অভিষেক ম্যাচে চাপ থাকে। তবে এদিন কোনো চাপ ছিল না। মাশরাফি ভাই বারবার বলতে ছিলেন, তোর তো মন খুলে বল করা উচিত। যেমন প্রিমিয়ার লিগে বল করেছিলি, বিপিএলে যেমন মন খুলে বল করেছিস, এখানেও সেভাবেই বোলিং কর। যেটা করার ইচ্ছে কর।’’

রাহী তাই করেছেন। সফলও হয়েছেন। বিশ্বকাপ দলে নিজের জায়গাটা পাকাও কি করলেন না!

আপনার মন্তব্য

আলোচিত