মঙ্গলবার, ১৫ অক্টোবর ২০১৯ ইং

স্পোর্টস ডেস্ক

১৬ জুন, ২০১৯ ০২:৩১

কেমন হবে আর্জেন্টিনার একাদশ!

কলম্বিয়ার বিপক্ষে ম্যাচ দিয়ে আর্জেন্টিনার কোপা অভিযান শুরু হচ্ছে বাংলাদেশ সময় আজ ভোররাতে। ম্যাচে আর্জেন্টিনার একাদশ কেমন হবে, তার ইঙ্গিত দিয়েছেন আর্জেন্টিনার কোচ লিওনেল স্কালোনি। দেখে নেওয়া যাক কেমন হতে যাচ্ছে আর্জেন্টিনার একাদশ।

জাতীয় দলের হয়ে প্রথম শিরোপা জেতার লক্ষ্য নিয়ে কলম্বিয়ার বিপক্ষে মাঠে নামতে যাচ্ছেন লিওনেল মেসি। সাধারণত মাঠে নামার আগ পর্যন্ত একাদশ নিয়ে ধোঁয়াশা রাখা হলেও আর্জেন্টিনার কোচ লিওনেল স্কালোনি এক দিন আগেই জানিয়ে দিয়েছেন তাঁর একাদশ। কারা আছেন সেই একাদশে?

কলম্বিয়ার বিপক্ষে ৪-৩-৩ ছকে দলকে সাজানোর পরিকল্পনা করেছেন স্কালোনি। গোলপোস্টের নিচে তাঁর আস্থা রিভার প্লেটের ফ্রাঙ্কো আরমানি। গত বিশ্বকাপে দুটি ম্যাচ খেললেও সামর্থ্য দেখানোর তেমন সুযোগ পাননি আরমানি। এবার কোপায় নিজের জাত চেনানোর জন্য প্রতিজ্ঞাবদ্ধ আর্জেন্টিনার এই নতুন 'নম্বর ওয়ান'।

রক্ষণভাগে চারজন। রাইটব্যাক হিসেবে খেলবেন সদ্যই রেসিং ক্লাব থেকে পর্তুগিজ চ্যাম্পিয়ন পোর্তোতে নাম লেখানো রেনজো সারাভিয়া। কিছুদিন আগে ব্রাজিলের বিপক্ষে প্রীতি ম্যাচে নেইমারকে বোতলবন্দী করে রাখার দায়িত্ব ভালোই পালন করেছিলেন তিনি। এরপর থেকেই সারাভিয়া প্রীতির সূচনা আর্জেন্টাইন কোচের। লেফটব্যাক হিসেবে আছেন আয়াক্সের হয়ে দুর্দান্ত মৌসুম কাটানো নিকোলাস তাগলিয়াফিকো। চ্যাম্পিয়নস লিগে আলো ছড়ানো তাগলিয়াফিকো এরই মধ্যে ইউরোপের অন্যতম সেরা লেফটব্যাক হিসেবে নিজেকে প্রতিষ্ঠিত করেছেন। গুঞ্জন আছে রক্ষণভাগ জমাটের জন্য সুখ্যাতি থাকা অ্যাটলেটিকো মাদ্রিদের মতো ক্লাব তাঁকে পেতে চায়।

সেন্ট্রাল ডিফেন্সে জুটি বাঁধবেন ম্যানচেস্টার সিটির নিকোলাস ওটামেন্ডি ও ফিওরেন্টিনার জার্মান পেজ্জেলা। ফিওরেন্টিনার জার্সিতে নিজেকে প্রমাণ করেছেন পেজ্জেলা। গ্যাব্রিয়েল বাতিস্তুতার সাবেক ক্লাব ফিওরেন্টিনার নেতৃত্বভার এই সেন্টারব্যাকে কাঁধে। আর ওটামেন্ডিকে নিয়ে নতুন করে বলার কিছু নেই। আর্জেন্টিনা দলের অন্যতম পোড় খাওয়া এই যোদ্ধা ম্যানচেস্টার সিটি ক্লাবে পেপ গার্দিওলাকে কোচ হিসেবে পেয়ে হয়েছেন আরও ঋদ্ধ।

‘ব্যাক ফোরের’ সামনে তিনজন মিডফিল্ডার। ডিফেন্সিভ মিডফিল্ডার হিসেবে খেলবেন মেক্সিকোর ক্লাব আমেরিকার গিদো রদ্রিগেজ। আর্জেন্টিনার হয়ে তিনটি ম্যাচ খেললেও জাতীয় দলের হয়ে বড় টুর্নামেন্ট খেলার অভিজ্ঞতা নেই তাঁর। গিদো রদ্রিগেজের সামনে দুই আক্রমণাত্মক মিডফিল্ডার রিয়াল বেতিসের জিওভানি লো চেলসো ও পিএসজির লিয়ান্দ্রো পারেদেস। পিএসজির কোচ টমাস টুখেলের পরিকল্পনায় না থাকার কারণেই রিয়াল বেতিসে যেতে হয়েছে লো চেলসোকে। সেখানে চিনিয়েছেন নিজের জাত। লো চেলসোর দুর্দান্ত ফর্ম নজর এড়ায়নি টটেনহাম, ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডের মতো ক্লাবগুলোর। সুযোগ বুঝে বেতিসও লো চেলসোর দাম ৬৭ মিলিয়ন পাউন্ড হাঁকিয়েছে। শেষ ম্যাচগুলোতে লো চেলসোর সঙ্গে মেসির বোঝাপড়া দুর্দান্ত হওয়ার কারণে আশায় বুক বাঁধছেন আর্জেন্টিনার সমর্থকেরা।

ওদিকে চেলসো যাওয়ার পর লিয়ান্দ্রো পারেদেসকে রাশিয়ান ক্লাব জেনিত থেকে উড়িয়ে এনেছেন পিএসজি কোচ টুখেল। বেশ কয়েক বছর ধরেই ক্লাবের খেলাগুলোয় প্রতিভার স্বাক্ষর রাখা পারেদেস জাতীয় দলের হয়ে ঠিক নিজেকে মেলে ধরতে পারেননি। এই কোপাটা তাই পারেদেসের প্রমাণ করার মঞ্চ। পারেদেস আর ল চেলসোর পারফরম্যান্সের ওপর নির্ভর করছে আক্রমণভাগের পারফরম্যান্স।

আক্রমণভাগের নেতৃত্বে আছেন স্বয়ং লিওনেল মেসি। ম্যানচেস্টার সিটির সার্জিও আগুয়েরোকে মাঝখানে রেখে ডান দিকে লিওনেল মেসি ও বাম দিকে পিএসজির আনহেল ডি মারিয়াকে খেলাবেন স্কালোনি। আর্জেন্টিনার এই তিন পুরোনো যোদ্ধা এবার জাতীয় দলের হয়ে শিরোপা জেতার জন্য আরও বুভুক্ষু।

কলম্বিয়ার নতুন কোচ কার্লোস কুইরোজ আর্জেন্টিনার একাদশ দেখে এর মধ্যেই নিজের পরিকল্পনা করা শুরু করলে আশ্চর্যের কিছু থাকবে না। আর্জেন্টিনার এই একাদশের বিপক্ষে হামেস রদ্রিগেজ, রাদামেল ফালকাও, ডেভিনসন সানচেজ ও হুয়ান কুয়াদ্রাদোদের কীভাবে সাজাবেন কুইরোজ, সেটা দেখার জন্য ভোর চারটায় খেলা দেখতে বসে যাওয়া ছাড়া গতি নেই!

আপনার মন্তব্য

আলোচিত