রবিবার, ২৫ আগস্ট ২০১৯ ইং

স্পোর্টস ডেস্ক

১৫ আগস্ট, ২০১৯ ১১:০৪

আরও এক শিরোপা লিভারপুলের

উয়েফা সুপার কাপ ২০১৯

চ্যাম্পিয়ন্স লিগের শিরোপা জেতার পর আরও এক শিরোপা জিতেছে ইংলিশ ক্লাব লিভারপুল। উয়েফা সুপারকাপের ফাইনালে চেলসির বিপক্ষে ম্যাচ জেতে শিরোপা জেতার আনন্দে ভাসে।

বুধবার তুরস্কের ইস্তানবুলে টাইব্রেকারে ৫-৪ গোলে জিতে ইয়ুর্গেন ক্লপের দল। নির্ধারিত সময়ের পর অতিরিক্ত সময়েও সমতা থাকে ম্যাচ। টাইব্রেকারে চেলসির শেষ শটটি ঠেকিয়ে দলকে উয়েফা সুপার কাপের শিরোপা এনে দিলেন লিভারপুলের গোলরক্ষক আদ্রিয়ান।

অলিভিয়ে জিরুদের প্রথমার্ধের গোলে এগিয়ে গিয়েছিল চেলসি। দ্বিতীয়ার্ধে সমতা ফেরান সাদিও মানে। অতিরিক্ত সময়েও একটি করে গোল করে দুই দল।

৩৬তম মিনিটে চেলসিকে এগিয়ে নেন জিরুদ। যুক্তরাষ্ট্রের ফরোয়ার্ড ক্রিস্তিয়ান পুলিসিচের ডিফেন্স চেরা পাস পেয়ে দ্রুত গতিতে এগিয়ে ছোট ডি-বক্সের সামান্য বাইরে থেকে কোনাকুনি শটে ঠিকানা খুঁজে নেন ফরাসি এই ফরোয়ার্ড।

এ ম্যাচের দায়িত্বে থাকা ফ্রান্সের স্টেফানি ফ্রাপার্ত প্রথম নারী রেফারি হিসেবে উয়েফা আয়োজিত ছেলেদের বড় কোনো প্রতিযোগিতায় ম্যাচ পরিচালনা করলেন।

দ্বিতীয়ার্ধের শুরুতে বদলি হিসেবে নেমেই সমতা ফেরাতে বড় ভূমিকা রাখেন রবের্তো ফিরমিনো। ৪৮তম মিনিটে ফাবিনিয়োর উঁচু করে ডি-বক্সে বাড়ানো বল আগুয়ান গোলরক্ষক কেপা আরিসাবালাগা নিয়ন্ত্রণে নেওয়ার আগ মুহূর্তে টোকা দিয়ে ডান পাশে থাকা অরক্ষিত সাদিও মানেকে দেন ফিরমিনো। ফাঁকা পোস্টে সহজেই বল পাঠান গত মৌসুমে ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগের সর্বোচ্চ গোলদাতা।

৭৬তম মিনিটে আরিসাবালাগার নৈপুণ্যে বেঁচে যায় চেলসি। ৯৫তম মিনিটে লিভারপুলকে এগিয়ে নেন মানে। বাঁ প্রান্ত দিয়ে ডি-বক্সে ঢুকে বাইলাইনের কাছাকাছি থেকে ফিরমিনোর করা কাট ব্যাক নিয়ন্ত্রণে নিয়ে উঁচু কোনাকুনি শটে লক্ষ্যভেদ করেন সেনেগালের এই ফরোয়ার্ড।

ছয় মিনিট পর স্পট কিক থেকে সমতা ফেরান জর্জিনিয়ো। ট্যামি আব্রাহামকে ডি-বক্সে আদ্রিয়ান ফাউল করলে পেনাল্টি পায় ফ্র্যাঙ্ক ল্যাম্পার্ডের দল।

টাইব্রেকারে পাঁচটি শটেই গোল করে লিভারপুল। চেলসির হয়ে আব্রাহামের নেওয়া শেষ শটটি ফিরিয়ে দেন আদ্রিয়ান। নিজেদের ইতিহাসে চতুর্থবারের মতো উয়েফা সুপার কাপ ঘরে তুলল লিভারপুল। গত মৌসুমে চ্যাম্পিয়ন্স লিগ জয়ের পর লিভারপুলের কোচ হিসেবে দ্বিতীয় শিরোপা জিতলেন জার্মান কোচ ক্লপ।

প্রতি বছর নতুন মৌসুমের শুরুতে আগের মৌসুমের চ্যাম্পিয়ন্স লিগের শিরোপাজয়ী ও ইউরোপা লিগের চ্যাম্পিয়নের মধ্যে উয়েফা সুপার কাপের এই লড়াইটি হয়ে থাকে। এবারই প্রথম এতে মুখোমুখি হলো দুটি ইংলিশ ক্লাব। আর প্রতিযোগিতায় এ নিয়ে অষ্টমবারের মতো অংশ নিল একই দেশের দুটি ক্লাব।

আপনার মন্তব্য

আলোচিত