শনিবার, , ২০ অক্টোবর ২০১৮ ইং

গোলাপগঞ্জ প্রতিনিধি

২৩ মে, ২০১৮ ০১:০৮

গোলাপগঞ্জে তুচ্ছ ঘটনাকে কেন্দ্র করে সংঘর্ষে আহত ৭

সিলেটের গোলাপগঞ্জে তুচ্ছ ঘটনাকে কেন্দ্র করে দু’পক্ষের মধ্যে সংঘর্ষে ৭ জন আহত হয়েছেন। মঙ্গলবার (২২ মে) বিকেল ৪ টার দিকে উপজেলার ফুলবাড়ী ইউনিয়নের হেতিমগঞ্জ কায়স্থগ্রাম এলাকায় এ ঘটনাটি ঘটে।

সংঘর্ষের আহতদের চিকিৎসার জন্য বিভিন্ন হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়েছে। খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে পুলিশ উপস্থিত হয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে।

উভয় পক্ষের আহতরা হলেন সিরাজ উদ্দিনের পুত্র লিপন আহমদ (১৮), ফজলু আহমদ (১৫), আব্দুল জব্বারের মেয়ে নাঈমা বেগম(২০), ছেলে আক্তার আহমদ (২৮), আব্দুছ সালামের পুত্র মারুফ আহমদ (২৬), সিরাজ উদ্দিনের স্ত্রী আসমা বেগম (৩৫), আসমা বেগমের ভাই জলাল আহমদ (৩৩)।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, উপজেলার ফুলবাড়ী ইউনিয়নের কায়স্থগ্রাম (উমাপতি) এলাকার একটি সরকারী রাস্তার মধ্যখানে তিনটি বাশের খুঁটি পুতা নিয়ে দু’গোষ্টীর সংঘর্ষ বাধে। ঐ এলাকার আতারক আলীর পুত্র আব্দুল কালাম কিছু দিন পূর্বে রাস্তার মধ্যখানে যান চলাচল বন্ধের জন্য একটি বাশের খুঁটি পুতে রাখেন। পরে প্রতিবেশী আব্দুর রাজ্জাকের ছেলে আক্তার হোসেনের ভ্যান গাড়ি করে ধান নিয়ে আসার জন্য ঐ খুঁটি রাস্তা থেকে তুলে নেন। এনিয়ে কথা কাটাকাটি থেকে দু’পক্ষের মধ্যে সংঘর্ষ বাধে। এরআগে গত সোমবার ইফতারের পূর্ব থেকে তাদের মধ্যে একাধিক বার ইটপাটকেল ছুড়াছুড়ি হয়।

এ ঘটনায় উভয় পক্ষের বসত ঘরে বড় ধরনের ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে। নতুন ঘর, পাকা দেয়াল ও টিনসেটের ঘর ভেঙে ফেলা হয়েছে। এলাকাবাসীর মুরব্বিরা বিষয়টি মীমাংসার উদ্যোগে নিয়েও তারা ব্যর্থ হন। এই সূত্র ধরে মঙ্গলবার (২২ মে) সাড়ে ৪টার দিকে আবারো উভয় পক্ষের সংঘর্ষ বাধে।

এ ঘটনায় উভয়ের পক্ষ থেকে মামলার প্রস্তুতি চলছে বলে জানা যায়।

এ ব্যাপারে গোলাপগঞ্জ মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) একেএম ফজলুল হক শিবলী জানান, মারামারি খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে উপস্থিত হয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে। বিষয়টি মীমাংসার চেষ্টা করা হচ্ছে। এ ঘটনায় থানায় কোন মামলা দায়ের হয়নি।

আপনার মন্তব্য

আলোচিত