বুধবার, , ১৭ অক্টোবর ২০১৮ ইং

সিলেটটুডে ডেস্ক

১৮ জুলাই, ২০১৮ ১৭:১৯

২০-২১ জুলাই সিলেটে সাংস্কৃতিক উৎসব

সংস্কৃতি বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের উদ্যোগে দেশব্যাপী একযোগে ৬৪টি জেলায় আগামী ২০ ও ২১ জুলাই ২ দিনব্যাপী সাংস্কৃতিক উৎসব আয়োজনের উদ্যোগ গ্রহণ করা হয়েছে। এরই অংশ হিসেবে সাংস্কৃতিক উৎসবকে সফল করার লক্ষ্যে সিলেট জেলা প্রশাসন ও জেলা শিল্পকলা একাডেমির ব্যবস্থাপনায় গ্রহণ করা হয়েছে নানা উদ্যোগ।

বুধবার (১৮ জুলাই) দুপুর সাড়ে ১২টায় কর্মসূচির অংশ হিসেবে জেলা প্রশাসকের সম্মেলন কক্ষে সংবাদ সম্মেলনের আয়োজন করা হয়।

সিলেটের স্থানীয় সরকার বিভাগের উপপরিচালক দেবজিৎ সিনহার সভাপতিত্বে সংবাদ সম্মেলনে অন্যান্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) সন্দ্বীপ কুমার সিংহ ও জেলা তথ্য অফিসের উপপরিচালক জুলিয়া যেসমিন মিলি।

সংবাদ সম্মেলনে জেলা কালচারাল অফিসার ও সাংস্কৃতিক উৎসব আয়োজন কমিটির সদস্য সচিব অসিত বরণ দাশ গুপ্ত ২ দিনব্যাপী অনুষ্ঠানের কর্মপরিকল্পনা সাংবাদিকদের সামনে উপস্থাপন করেন।

তিনি বলেন, সিলেট জেলায় বর্ণাঢ্য ও বর্ণিল আয়োজনের মধ্য দিয়ে ২ দিনব্যাপী সাংস্কৃতিক উৎসব আয়োজনের প্রস্তুতি চলছে। কর্মসূচির মধ্যে ২০ জুলাই বিকাল ৫টায় নগরীর রিকাবীবাজারস্থ কবি নজরুল অডিটোরিয়ামে সিলেটের জেলা প্রশাসক নুমেরী জামানের সভাপতিত্বে উৎসবের শুভ উদ্বোধন করবেন প্রধান অতিথি বিভাগীয় কমিশনার ড. মোছাম্মৎ নাজমানারা খানুম।

জাতীয় সংগীতের মধ্য দিয়ে উদ্বোধনী অনুষ্ঠানের শুভ সূচনা হবে এবং ৫টা থেকে ৬টা পর্যন্ত উদ্বোধনী অনুষ্ঠানটি চলবে। এরপর সন্ধ্যা ৬টা থেকে রাত ৯টা পর্যন্ত সিলেট জেলার স্বনামধন্য ও জনপ্রিয়, উদীয়মান এবং নবীন শিল্পীদের একক ও দলীয় পরিবেশনায় পর্যায়ক্রমে পরিবেশিত হবে দেশাত্মবোধক গান, রবীন্দ্রসংগীত, নজরুল সংগীত, আধুনিক গান, নৃত্য, অভিনয়, কবিতা আবৃত্তি, জেলা পরিচিতিমূলক গান ও জেলার ঐতিহ্যবাহী সাংস্কৃতিক পরিবেশনা।

একইভাবে ২১ জুলাই বিকাল ৫টা থেকে রাত ৮টা পর্যন্ত সাংস্কৃতিক পরিবেশনায় থাকছে নৃত্য, জারিগান, লালনগীতি, পল্লীগীতি, লোকগীতি, বাউল গান, পুঁথি পাঠ, সিলেটের আঞ্চলিক গান, জেলার ঐতিহ্যবাহী সাংস্কৃতিক পরিবেশনা এবং ঢাকা থেকে আগত শিল্পীর পরিবেশনা। এরপর রাত ৮টা থেকে ৯টা পর্যন্ত ২ দিনব্যাপী উৎসবের সমাপনী অনুষ্ঠান ও অংশগ্রহণকারী সকল শিল্পীদের মধ্যে প্রশংসাপত্র বিতরণ করা হবে।

এছাড়াও সংবাদ সম্মেলনে জেলা তথ্য অফিসের উপপরিচালক বলেন, ২ দিনব্যাপী আয়োজিত এই সাংস্কৃতিক উৎসবে জেলা তথ্য অফিসের ব্যবস্থাপনায় অনুষ্ঠানের পূর্বে এবং অনুষ্ঠান চলাকালীন সময়ে সরকারের জনকল্যাণমূলক কর্মকাণ্ডের উপর নির্মিত বিভিন্ন তথ্যচিত্র সমূহ এবং সংস্কৃতি বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের বিভিন্ন দপ্তর/সংস্থার উন্নয়ন কর্মকাণ্ডের ভিডিও তথ্যচিত্র সমূহ প্রদর্শন করা হবে।

সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন সিলেটের বিশিষ্ট সাংবাদিক ও সিলেট প্রেসক্লাবের সভাপতি ইকরামুল কবির, সিলেট জেলা প্রেসক্লাবের সভাপতি তাপস দাশ পুরকায়স্থ, প্রেসক্লাব ফাউন্ডেশনের সভাপতি আল আজাদ, সিলেট অনলাইন প্রেসক্লাবের সভাপতি মুহিত চৌধুরী ও ইলেকট্রনিক মিডিয়া জার্নালিস্ট এসোসিয়েশনের সাধারণ সম্পাদক দেবাশীষ দেবু প্রমুখ।

সাংস্কৃতিক উৎসবকে সফল করার জন্য সকলের অংশগ্রহণ, সহযোগিতা, উপস্থিতি, কামনা করেছেন উৎসব আয়োজন কমিটি।

আপনার মন্তব্য

আলোচিত