শনিবার, , ২০ অক্টোবর ২০১৮ ইং

নিজস্ব প্রতিবেদক

০৬ আগস্ট, ২০১৮ ২২:৪২

সিসিকের স্থগিত ২ কেন্দ্র এলাকায় যান চলাচলে নিষেধাজ্ঞা

অনিয়মের অভিযোগে সিলেট সিটি করপোরেশনের (সিসিক) স্থগিত হওয়া দুই কেন্দ্রে নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে ১১ আগস্ট (শনিবার)। এ কারণে ওই দুই কেন্দ্র এলাকায় মোটরসাইকেল চলাচলে নিষেধাজ্ঞা জারি করেছে পুলিশ প্রশাসন। একই সঙ্গে বৈধ অস্ত্র বহন, যান্ত্রিক যান/নৌ চলাচলে নিষেধাজ্ঞা জারি করা হয়েছে।

কেন্দ্র দু’টি হলো- ১১৬ নং গাজী বুরহান উদ্দিন গরম দেওয়ান সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, ১৩৪ নং হবিনন্দি সরকারি প্রথমিক বিদ্যালয়।

সোমবার (০৬ জুলাই) সিলেট অতিরিক্ত উপ পুলিশ কমিশনার মুহম্মদ আব্দুল ওয়াহাব স্বাক্ষরিত গণবিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, নির্বাচন উপলক্ষে সিলেট মেট্রোপলিটন পুলিশ মোটরসাইকেল চলাচলে নিষেধাজ্ঞা, বৈধ অস্ত্র বহন ও প্রদর্শনের ওপর নিষেধাজ্ঞা এবং যন্ত্রচালিত যানবাহন/নৌ-যান চলাচলের ওপর নিষেধাজ্ঞা আরোপ করেছে।

গত সোমবার (৩০ জুলাই) সিলেট সিটি করপোরেশন নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়। এদিন অনিয়মের অভিযোগে নগরের ২৪ নং ওয়ার্ডের গাজি বুরহান উদ্দিন গরম দেওয়ান সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় (নারী-পুরুষ) এবং ২৭ নং ওয়ার্ডের হবিনন্দি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় (নারী-পুরুষ) কেন্দ্রে ভোটগ্রহণ স্থগিত করে নির্বাচন কমিশন।

সিসিক নির্বাচনে ২৭টি ওয়ার্ডে ১৩৪টি কেন্দ্রের মধ্যে ১৩২টির ঘোষিত ফলাফল অনুযায়ী আরিফুল হক চৌধুরী ধানের শীষ প্রতীকে পেয়েছেন ৯০ হাজার ৪৯৬ ভোট। আওয়ামী লীগ প্রার্থী বদরউদ্দিন আহমদ কামরান নৌকা প্রতীকে পেয়েছেন ৮৫ হাজার ৮৭০ ভোট।

১৩২ কেন্দ্রের ফলাফলে চার হাজার ৬২৬ ভোটে আরিফুল হক চৌধুরী এগিয়ে থাকলেও এ দুই কেন্দ্রের মোট ভোট চার হাজার ৭৮৭। সে হিসেবে স্থগিত কেন্দ্রের ভোটের চেয়ে ১৬১ ভোট পিছিয়ে আরিফ। যে কারণে নির্বাচন কমিশন কেন্দ্র দু’টিতে ফের নির্বাচন ঘোষণা করে।

এছাড়া একই দিনে সংরক্ষিত ৭নং ওয়ার্ডে (১৯, ২০ ও ২১)  দু’জন প্রার্থীর মধ্যে নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। ওই ওয়ার্ডে সংরক্ষিত কাউন্সিলর প্রার্থী নাজনীন আক্তার কনা (জিপগাড়ি) ও প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থী নার্গিস সুলতানা (চশমা) চার হাজার ১৫৫ ভোট করে সমান পেয়েছেন। তাই সংরক্ষিত এ ওয়ার্ডে আবার নির্বাচন হবে।

আপনার মন্তব্য

আলোচিত