বুধবার, , ২০ মার্চ ২০১৯ ইং

সুনামগঞ্জ প্রতিনিধি

১১ জানুয়ারী, ২০১৯ ২২:২৭

স্বাধীনতাবিরোধীদের পক্ষে কখনই জনগণ রায় দেবে না: এমএ মান্নান

এ দেশের মানুষ উন্নয়ন চায়, তাই তারা উন্নয়নের পক্ষেই রায় দিয়েছেন উল্লেখ করে সুনামগঞ্জ-৩ আসনের নবনির্বাচিত সংসদ সদস্য ও পরিকল্পনা মন্ত্রী এম এ মান্নান বলেছেন, উন্নয়নের জন্যই কাজ করবো। দেশকে পিছিয়ে নিতে স্বাধীনতাবিরোধীরা একটি নীল নকশা করেছিলো। এদেশের আপামর জনতা, শিক্ষিত শ্রেণী বিশেষ করে তরুণ সমাজ এ চক্রান্তকে নস্যাৎ করে দিয়েছে।

শুক্রবার (১১ জানুয়ারি) বিকেলে সুনামগঞ্জ উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা বিভাগ কর্তৃক আয়োজিত সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

পরিকল্পনা মন্ত্রী বলেন, এ দেশের মানুষ স্বাধীনতাবিরোধী শক্তির সঙ্গে কখনোই আপস করবেন না। জনগণ তাদের পক্ষে কখনই রায় দেবে না। তাই একাদশ জাতীয় নির্বাচনে জনগণ আওয়ামী লীগকে ভোট দিয়ে প্রমাণ করে দিয়েছে।

শিক্ষকদের উদ্দেশে তিনি বলেন, দেশকে এগিয়ে নিতে হলে মানুষকে সচেতন হতে হবে। এজন্য শিক্ষাই একমাত্র পথ। শিক্ষার্থীদের ভাষা ও সংস্কৃতি সম্পর্কে ভালো শিক্ষা দিতে হবে। কোনো কৃত্রিম জ্ঞান শিশুদের মাঝে না ঢুকিয়ে প্রকৃত শিক্ষায় শিক্ষিত করে তুলতে হবে। সঠিক ইতিহাস তাদের জানাতে হবে, শিখাতে হবে। আত্মপরিচয় দিতে হবে যে, আমাদের আলাদা সত্তা আছে আমরা বাংলাদেশি। শিক্ষার্থীদের স্বাভাবিকভাবে বাড়তে দিতে হবে।

মন্ত্রী আরও বলেন, দেশের উন্নয়নে আমাদের সঙ্গে থাকেন, আপনাদের জন্য আরও সুযোগ-সুবিধা আসবে। আপনারা নিজেরা সহিষ্ণু হন এবং শিক্ষার্থীদের সহিষ্ণু হওয়ার শিক্ষা দিন। তাদের বুঝান পৃথিবীটা আমাদের সবার।

দক্ষিণ সুনামগঞ্জ উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তা মো. বজলুর রহমানের সভাপতিত্বে ও রথপাড়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক আশিষ কুমার চক্রবর্তীর পরিচালনায় সভায় বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন- দক্ষিণ সুনামগঞ্জ উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আবুল কালাম, উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) মো. সাফি উল্লাহ্, জেলা প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তা পঞ্চানন বালা, দক্ষিণ সুনামগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) ইখতিয়ার উদ্দিন চৌধুরী, শিক্ষক রণধীর মজুমদার, বাদল চন্দ্র দাশ, সঞ্জয় তালুকদার, বেনু মজুমদার, রাবেয়া রুবী ও সালেহ্ আহমদ প্রমুখ।

এরআগে উপজেলা আওয়ামী লীগের কার্যালয়ে সাংবাদিকদের সাথে আলাপকালে এম এ মান্নান বলেন, ‘মেগা প্রকল্প বাস্তবায়নে সর্বোচ্চ অগ্রাধিকার দেবো। এই ১০টি মেগা প্রকল্পই শেষ নয়, আরও মেগা প্রকল্প হবে। আমাদের দু’টি পদ্মা সেতু প্রায় হয়ে গেছে। তৃতীয় পদ্মা সেতুর কাজ শুরু করবো। চতুর্থ পদ্মা সেতু আমাদের সন্তানেরা করবে।’

এম এ মান্নান বলেন, ‘আমরা সব জেলার সংযোগ সড়ক চার ও ছয় লেন করবো। আমরা অনেক জায়গায় ইন্টারসেকশন লুপ তৈরি করবো। আমরা পিছিয়ে পড়া জেলাগুলোর যোগাযোগ ব্যবস্থা আরও শক্তিশালী করবো। জাতীয় অর্থনীতির মূল ধারায় ওই জেলাগুলোকে সম্পৃক্ত করবো।  যোগাযোগ ব্যবস্থার উন্নয়ন ও আর্থিক সুযোগ-সুবিধা ওই সব জেলায় নিয়ে গেলে তারা নিজেরাই এগিয়ে আসতে পারবে।’

তিনি আরও বলেন, ‘আমরা বাংলাদেশকে স্বাধীনতাবিরোধী শক্তির হাত থেকে চিরদিনের জন্য রক্ষা করতে চাই। স্বাধীনতাবিরোধীরা কখনও যেন ক্ষমতায় না আসতে পারে। যদি আসে, তবে তা হবে আমাদের পূর্বপুরুষদের জন্য চরম অপমানের।’

আপনার মন্তব্য

আলোচিত