রবিবার, ২১ জুলাই ২০১৯ ইং

নিজস্ব প্রতিবেদক

১৪ এপ্রিল, ২০১৯ ০১:৩৩

পহেলা বৈশাখে সিলেটে কোথায় কী আয়োজন

পহেলা বৈশাখ। বাঙালির প্রাণের উৎসব। বাংলা ১৪২৬ খ্রিস্টাব্দের নতুন বছরের উৎসব উদযাপনের জন্য ব্যাপক প্রস্তুতি নিয়েছে সিলেট নগরের বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠান ও সাংস্কৃতিক সংগঠন। মঙ্গল শোভাযাত্রা, মেলা, বাউল গানের আসর, সাপ খেলা, বানর খেলাসহ বর্ণাঢ্য আয়োজন করা হয়ে সিলেটের বৈশাখী উৎসবে।

জেনে নিন সিলেটে কোথায় কী আয়োজন রয়েছে-
সিলেট জেলা প্রশাসনের আয়োজনে পহেলা বৈশাখের দিন সকাল আটটায় জেলা প্রশাসকের কার্যালয় থেকে বের করা হবে মঙ্গল শোভাযাত্রা।

৫শতাধিক কণ্ঠে বর্ষবরণের গানের মাধ্যমে নগরের পূর্ব শাহি ঈদগাহ এলাকায় জেলা শিল্পকলা একাডেমি প্রাঙ্গণে বর্ষ বরণ করা হবে। জেলা শিল্পকলা একাডেমির বর্ষ বরণ অনুষ্ঠানে থাকছে বাউলগান, কাটি ও ঝুমুর নৃত্য, মণিপুরি নৃত্য, লোকগান, দেশের গান।

সাংস্কৃতিক সংগঠন শ্রুতির উদ্যোগে নগরের সুবিদবাজার এলাকার ব্লু-বার্ড এন্ড স্কুল কলেজ প্রাঙ্গণে সকাল ৭টায় দিনব্যাপী উৎসব শুরু হবে। শতকণ্ঠে বর্ষবরণের গান, ঐতিহ্যবাহী নাচ, আবৃত্তি, গুণীজন সম্মাননাসহ দিনব্যাপী নানা আয়োজন রয়েছে শ্রুতির অনুষ্ঠানে।

সাংস্কৃতিক সংগঠন একদল ফিনিক্সের উদ্যোগে নগরের নয়া সড়ক এলাকার কিশোরী মোহন বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ে সকাল ৭টায় শুরু হবে বর্ষবরণ অনুষ্ঠান। মঙ্গল শোভাযাত্রা, গান, আবৃত্তি, নৃত্য, বাংলার ঐতিহ্যবাহী গম্ভীরা, পালাগান, কাটিনৃত্য, ধামাইলগান ও পুঁথিপাঠ থাকবে তাদের আয়োজনে।

প্রতি বছরের মতো এবারও নববর্ষের সবচেয়ে বড় সমাগম ঘটবে শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় এবং এমসি কলেজে। বর্ষবরণ উৎসবের জন্য প্রস্তুত হচ্ছে এই দুটি প্রতিষ্ঠানও। শাহজালাল বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসে বিভিন্ন সংগঠন আলাদা আলাদাভাবে বর্ষবরণে অনুষ্ঠানমালার আয়োজন করেছে। সকালে সম্মিলিতভাবে আয়োজিত হবে মঙ্গল শোভাযাত্রা।

সিলেটে বর্ষবরণ অনুষ্ঠানের কথা আসলেই উঠে আসে আনন্দলোকের নাম। এবারও এই সঙ্গীত শিক্ষা প্রতিষ্ঠানটি শ্রীহট্ট সংস্কৃত কলেজ মাঠে আয়োজন করেছে বর্ষবরণ উৎসবের। সকাল ৭টা থেকে বেলা ২টা পর্যন্ত নাচে-গানে আনন্দলোক মাতিয়ে রাখবে সংস্কৃত কলেজ প্রাঙ্গণ। পাশেরই ব্লু বার্ড স্কুল মাঠে প্রতিবছরের মতো এবারও বর্ষবরণের অনুষ্ঠানের আয়োজন করেছে শ্রুতি। সকাল ৬টা থেকে শুরু হওয়া এই আয়োজনকে সফল করতে শেষ মুহূর্তের প্রস্তুতি সেরে নিচ্ছে সংগঠনটি।

পহেলা বৈশাখের বিকেলে কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে নানা অনুষ্ঠানের মধ্যদিয়ে নতুন বছরকে বরণ করে নেবে উদীচী।

শহরতলীর কামাল বাজার এলাকায় লিডিং ইউনিভার্সিটি ক্যাম্পাসে এবার বৈশাখ উপলক্ষে মেলা, বাউলগান, পুতুল নাচ, সাপ খেলা, বানর খেলা, জাগলিং, বায়স্কোপ, সাংস্কৃতিক পরিবেশনা, আনন্দ শোভাযাত্রা, গ্রাম বাংলার ঐতিহ্যবাহী জিনিসপত্রের প্রদর্শনীসহ দিনব্যাপী বর্ণাঢ্য আয়োজন করেছে।

শহরতলির বটেশ্বরে মেট্রোপলিটন ইউনিভার্সিটির স্থায়ী ক্যাম্পাসে বাংলা নববর্ষ উদযাপন উপলক্ষে বর্ণিল আয়োজনের পসরা সাজিয়েছে। নববর্ষের চিরায়ত ঐতিহ্যের আদলে সাজানো হচ্ছে মেট্রোপলিটন ইউনিভার্সিটির স্থায়ী ক্যাম্পাস। নাচ, গান, বৃষ্টিবন্দনা, আবৃত্তি, পুঁথিপাঠ, সাপখেলা, বানরনাচ, পুতুলনাচ, বায়স্কোপ দেশীয় সংস্কৃতির পরিবেশনা প্রভৃতি থাকছে মেট্রোপলিটন ইউনিভার্সিটির নববর্ষ উদযাপন আয়োজনে।

এছাড়াও নগরের চাঁদনিঘাট এলাকায় ৭দিন ব্যাপী বৈশাখী মেলার আয়োজন করেছে সিলেট সিটি করপোরেশন।

সিলেট জেলা সমাজসেবা কার্যালয় : বাংলা নববর্ষ উদযাপন উপলক্ষে জেলা সমাজসেবা কার্যালয়, সিলেট এর উদ্যোগে বিভিন্ন কর্মসূচি গ্রহণ করা হয়েছে। কর্মসূচির মধ্যে রয়েছে সকাল ১০টায় বাগবাড়িস্থ সমাজকল্যাণ কমপ্লেক্স প্রাঙ্গণ থেকে বর্ণাঢ্য মঙ্গল শোভাযাত্রা, সকাল সাড়ে ১০টায় সমাজকল্যাণ কমপ্লেক্সের মুক্তমঞ্চে মনোজ্ঞ সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান।

সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানে সংগীত পরিবেশন করবে সরকারি শিশু পরিবার (বালক) ও সরকারি শিশু পরিবার (বালিকা) এর সাংস্কৃতিক দল, শেখ রাসেল শিশু প্রশিক্ষণ ও পুনর্বাসন কেন্দ্রের সাংস্কৃতিক দল, সিলেট বুদ্ধি প্রতিবন্ধী অটিস্টিক বিদ্যালয়, গ্রিন ডিসএ্যাবল্ড ফাউন্ডেশন (জিডিএফ) এর সাংস্কৃতিক দল, নগরনাটসহ সিলেটের বিশিষ্ট সংগীত শিল্পী এবং সাংস্কৃতিক সংগঠন।

কর্মসূচিতে সিলেটের সকল সুধীজন এবং সমাজসেবা অধিদফতর সিলেট জেলার সকল কর্মকর্তা ও কর্মচারীকে সপরিবারে উপস্থিত থাকার জন্য অনুরোধ জানিয়েছেন সিলেট জেলা সমাজসেবা কার্যালয়ের উপ পরিচালক নিবাস রঞ্জন দাশ।

শ্রুতি সিলেট: সিলেটের সাংস্কৃতিক সংগঠন শ্রুতির উদ্যোগে প্রতিবারের মত আগামী আজ ব্লু-বার্ড স্কুল এন্ড কলেজ প্রাঙ্গণে দিনব্যাপী বর্ণাঢ্য শতকণ্ঠে বর্ষবরণ উৎসব ১৪২৬ বাংলা অনুষ্ঠিত হবে। ‘আসবে পথে আঁধার নেমে তাই বলে কি রইবি থেমে’ শীর্ষক আয়োজন সকাল ৭টা থেকে বিকাল ৬ টা পর্যন্ত। প্রদানকরা হবে শ্রুতি সম্মাননা। দিনব্যাপী আয়োজনে সমবেত সংগীত, নৃত্য, আবৃত্তি পরিবেশন করবেন যারা শ্রুতি শতকণ্ঠ, গীতবিতান বাংলাদেশ, ছন্দনৃত্যালয়, দ্বৈতস্বর, নৃত্যশৈলী, গ্রীনডিজেবল ফাউন্ডেশন, জাতীয় রবীন্দ্র সংগীত সম্মিলন পরিষদ, আবৃত্তি বিভাগ শ্রুতি সিলেট, নগরনাট, দীপ্তর্শি, অন্বেষা শিল্পী গোষ্ঠী, মুক্তাক্ষর, নাট্যম সংগীত বিদ্যালয়, সুরের ভূবন, অনির্বান শিল্পী গোষ্ঠী, কৃষ্ণচূড়া-সিলেট কৃষি বিশ্ববিদ্যালয় একক পরিবেশনায় অংশ নেবেন পঞ্চকবির গানে সোনিয়া রায়, মৌলি দেব, সানন্দা রায় লোকসংগীতে বাউল আব্দুর রহমান, শামীম আহমেদ, গৌতম চক্রবর্তী, বাউল সূর্যলাল, প্রদীপ মল্লিক, ইকবাল শাঁই, লিংকন দাশ এবং নজরুল সংগীতে সুজিত মোস্তফা থাকবে কুষ্টিয়ার ফকির মাসুদ শাহ্ পরিবেশনা। দিনব্যাপী থাকবে বৈশাখী মেলা। শ্রুতি সিলেট আয়োজিত দিনব্যাপী বর্ণাঢ্য আয়োজনে সকলের উপস্থিতি কামনা করা হয়েছে।

উদীচী সিলেট : বাঙালির এই চিরায়ত উৎসবকে বরণ ও উদযাপন করতে উদীচী সিলেট আয়োজন করেছে ‘উদীচীর বর্ষবরণ উৎসব। ‘ভেঙে ফেলো পায়ের বেড়ি, নব আকাশে বাজলো ভেরি’ এই শ্লোগানকে প্রতিপাদ্য করে আজ সিলেট কেন্দ্রীয় শহিদ মিনারে দুপুর ২টায় থেকে শুরু হবে উদীচীর বর্ষবরণ উৎসব।

জাতীয় সংগীত পরিবেশনের মাধ্যমে দুপুর ২টায় উৎসবের উদ্বোধন হবে। উৎসব উদ্বোধন করবেন- প্রয়াত পন্ডিত রামকানাই দাসের প্রবীণ যন্ত্রশিল্পী ক্ষীতিশ দাশ।

এরপর সিলেটের বিভিন্ন সংগঠন তাদের সাংস্কৃতিক পরিবেশনায় অংশ নেবেন। উদ্বোধনী নৃত্য পরিবেশন করবে ছন্দ নৃত্যালয়। তারপর রয়েছে শিল্পাঙ্গন, সাংস্কৃতিক ইউনিয়ন, জাতীয় রবীন্দ্রসঙ্গীত সম্মিলন পরিষদ সিলেট, নগরনাট, মৃত্তিকায় মহাকাল, লিটল থিয়েটার, শিকড়, মোহনা সাংস্কৃতিক সংগঠন, থিয়েটার মুরারিচাঁদ, উদীচী লাক্কাতুরা চা বাগান শাখা ও উদীচী সিলেটের নিজস্ব পরিবেশনা। উদীচীর বর্ষবরণ উৎসবে সকলকে আমন্ত্রণ জানিয়েছেন উদীচী সিলেট জেলার সভাপতি এনায়েত হাসান মানিক ও সাধারণ সম্পাদক ইয়াকুব আলী।

আপনার মন্তব্য

আলোচিত