বুধবার, ১৭ জুলাই ২০১৯ ইং

শ্রীমঙ্গল প্রতিনিধি

১৯ এপ্রিল, ২০১৯ ২৩:৫৩

শ্রীমঙ্গলে ধর্ষণের শিকার ৬ষ্ঠ শ্রেণির ছাত্রী

মৌলভীবাজারের শ্রীমঙ্গলে ধর্ষণের শিকার হয়েছে ৬ষ্ঠ শ্রেণির এক ছাত্রী । গত মঙ্গলবার উপজেলার সিন্দুরখান ইউনিয়নে ধর্ষণের শিকার হয় ওই ছাত্রী। এ ঘটনার দু’দিন পর বৃহস্পতিবার থানায় মামলা করে নির্যাতিত শিশুটির পরিবার। তবে এখনো অভিযুক্তকে ধরতে পারেনি পুলিশ।

ওই মেয়ের পারিবারসূত্রে জানা যায়,  শিশুটির পিতা দিনমজুর। গত মঙ্গলবার বিকেল সাড়ে ৪ টার দিকে তাদের পাশের বাড়ির বখাটে মুন্না মিয়া(১৮) মেয়েটিকে একা পেয়ে ধর্ষণ করে। মুন্না একই গ্রামের মতলিব মিয়ার ছেলে।

মেয়ের বাবা বলেন, ওই দিন বিকেলে কাজ শেষে বাড়ি ফিরে তিনি মুন্নাকে ঘরে দেখতে পান। তাকে দেখে মুন্না দৌড়ে পালিয়ে যায়। এরপর মেয়েকে উদ্ধার মৌলভীবাজার সদর হাসপাতালে ভর্তি করেন। এখনও সে ওই হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছে।

বৃহস্পতিবার বিকেলে মেয়েটির বাবা বাদী হয়ে শ্রীমঙ্গল থানায় মামলা করেন। মামলাটি বৃহস্পতিবার রেকর্ড করে এসআই রাশেদুলকে তদন্তের দায়িত্ব দেয়া হয়।

মৌলভীবাজারের পুলিশ সুপার মো. শাহজালাল বৃহস্পতিবার হাসপাতালে গিয়ে তার খোঁজখবর নেন।

শ্রীমঙ্গল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা(তদন্ত) মো. সোহেল রানা বলেন, ধর্ষণের অভিযোগে মামলা হয়েছে। যত দ্রুত সম্ভব অপরাধীকে আইনের আওতায় নিয়ে আসা হবে।

মৌলভীবাজারের ২৫০ শয্যা সদর হাসপাতালের তত্ত্বাবধায়ক ডা. পার্থ সারথী পাল কানুনগো বলেন, মেডিকেল বোর্ড গঠন করে মেয়েটির চিকিৎসা দেয়া হচ্ছে। আইনের বাধ্যবাধকতা থাকায় সবকিছু বলা যাচ্ছে না।

আপনার মন্তব্য

আলোচিত