বুধবার, ১৮ সেপ্টেম্বর ২০১৯ ইং

নিজস্ব প্রতিবেদক

২৪ মে, ২০১৯ ২০:২২

মানব পাচারের জন্য দালালদের পাশাপাশি পরিবারও দায়ী: পররাষ্ট্রমন্ত্রী

পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. একে আব্দুল মোমেন বলেছেন, মানব পাচারের জন্য দালালদের পাশাপাশি পরিবারও দায়ী। আমাদের এখানে সন্তানরা যখন দেশে কিছু করতে চান তখন বাবা, মা টাকা দেন না। কিন্তু বিদেশ যাওয়ার জন্য যেভাবে পারেন টাকা যোগার করে দেন। দেশে কাজ করার জন্য পরিবার উৎসাহিত করে না যার জন্য অবৈধ পথে বিদেশ গিয়ে প্রাণ দিচ্ছেন আমাদের দেশের মানুষজন।  

তিনি বলেন, আমাদের দেশের সম্পদ বিদেশ চলে যায় কাজের জন্য কিন্তু দেশে যে কাজের সুযোগ আছে সেটা তারা বুঝেন না। কারণ তারা মানসিক ভাবে দুর্বল। আমাদের দূর্বলতা হচ্ছে আমরা যে পাড়ি সেটা সঠিক সময়ে আমরা উপলব্দি করতে পারি না।

শুক্রবার সন্ধ্যায় নগরীর হাফিজ কমপ্লেক্সে নর্থ ইস্ট ইউনিভার্সিটি বাংলাদেশ আয়োজিত ইফতার ও দোয়া মাহফিলে প্রধান অতিথির বক্তব্য তিনি এসব কথা বলেন।

পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, আমরা খুব সৌভাগ্যবান এজন্য যে, আমাদের দেশের জনসংখ্যার ৪৯ শতাংশই তরুণ। আর কর্মক্ষম ব্যক্তি আছে ৭৪%। তবে সত্যিকার অর্থে এটি সৌভাগ্য হবে যখন এই বিশাল জনগোষ্ঠীকে কাজে লাগবে।
 
এসময় ছাত্রছাত্রীদের উদ্দেশ্যে তিনি বলেন, তরুণদের আত্মপ্রত্যয়ে গড়ে তুলতে হবে। তারা যেন এই প্রত্যয় নেয় আমরা চাকরি করবো না চাকরি দিব। অন্য লোকের কর্মের ব্যবস্থা করে দিব। এবং এর জন্য শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলোকে কাজ করতে হবে।

মন্ত্রী বলেন, আমাদের দেশের সম্পদ এই তরুণ জনগোষ্ঠীকে অধ্যায়ন করতে হবে। শুধু বই পুস্তক বা শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে নয় সকল বিষয়ে অধ্যায়ন করতে হবে। প্রযুক্তি শিক্ষা আয়ত্ত্বে আনতে হবে। উচ্চ শিক্ষার পাশাপাশি গুনগত শিক্ষায় শিক্ষিত হতে হবে। এসব করতে পারলে শুধু বাংলাদেশ নয় সারা বিশ্বে কর্মক্ষেক্রের দোয়ার খুলবে। আমাদের জনশক্তিকে সোনার মানুষ হিসেবে গড়ে তুলতে হবে।

পররাষ্ট্র মন্ত্রী, বলেন, বাংলাদেশ ভারত সর্ম্পক অনেক উষ্ণ। বিশ্বের অন্যান্য মুসলিম দেশ যেখানে তাদের পাশ্ববর্তী দেশের সাথে বিভিন্ন বিষয়ে ভালো সর্ম্পক রাখতে পারে না সেখানে আমরা মুসলমান দেশ হিসেবে পাশের দেশ ভারতের সাথে আলাপ আলোচনার মাধ্যমে বিভিন্ন সমস্যর সমাধন করি। ভারতের সাথে আমাদের কয়েকটি ইস্যু যেমন গঙ্গা পানি চুক্তি, ছিট মহল, সমুদ্রসীমা সংক্রান্ত সমস্যা্ আলাপ আলোচনার মাধ্যমে সমাধান করেছি।

ইফতার মাহফিলের পূর্বে আলোচনা অনুষ্ঠানে আরও বক্তব্য রাথেন নর্থ ইস্ট ইউনিভার্সিটির ট্রাস্ট্রি বোর্ডের চেয়ারম্যান ইকবাল আহমদ চৌধুরী, উপাচার্য অধ্যাপক আফতুল হাই শিবলী প্রমুখ।

আপনার মন্তব্য

আলোচিত