বুধবার, ২৬ জুন ২০১৯ ইং

নিজস্ব প্রতিবেদক

০৯ জুন, ২০১৯ ১৬:২৬

নির্বাচিত নতুন কমিটির কাছে দায়িত্ব তুলে দিতে সহযোগিতা চান আসাদ

দি সিলেট চেম্বার অব কমার্স এন্ড ইন্ডাস্ট্রির নবনিযুক্ত প্রশাসক আসাদ উদ্দিন আহমদ বলেছেন, বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের নির্দেশ অনুযায়ী ১২০ দিনের মধ্যে সিলেট চেম্বারের আগামী নির্বাচন আয়োজনক্রমে নতুন কমিটির নিকট দায়িত্ব হস্তান্তরের লক্ষ্যে সকলের সার্বিক সহযোগিতা কামনা করছি।

রোববার (৯ জুন) বেলা সাড়ে ১২টায় চেম্বার কনফারেন্স হলে বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের আদেশে সিলেটের ব্যবসায়ীদের শীর্ষ সংগঠন দি সিলেট চেম্বার অব কমার্স এন্ড ইন্ডাস্ট্রির প্রশাসকের দায়িত্বভার গ্রহণ করেন সিলেট মহানগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আসাদ উদ্দিন আহমদ।

আয়োজিত দায়িত্ব গ্রহণ অনুষ্ঠানে সদ্য বিদায়ী সভাপতি এফবিসিসিআইর পরিচালক খন্দকার সিপার আহমদের কাছ থেকে তিনি দায়িত্বভার গ্রহণ করেন।

আসাদ উদ্দিন আহমদ বলেন, সরকার সিলেট চেম্বার অব কমার্সের মতো একটি স্বনামধন্য সংগঠনের নির্বাচন আয়োজনের যে গুরুদায়িত্ব আমার উপর অর্পণ করেছেন তা যথাযথভাবে পালনে আমি সচেষ্ট থাকবো।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন সিলেট-৩ আসনের সংসদ সদস্য জনাব মাহমুদ উস সামাদ চৌধুরী।

সিলেট-৩ আসনের সংসদ সদস্য মাহমুদ উস সামাদ চৌধুরী সিলেট চেম্বারের নবনিযুক্ত প্রশাসকের সার্বিক সফলতা কামনা করে বলেন, আসাদ উদ্দিন আহমদ দায়িত্ব ও কর্তব্য পালনে পরীক্ষিত ব্যক্তি। তিনি অবশ্যই একটি সুষ্ঠু নির্বাচন আয়োজনে সক্ষম হবেন।

সদ্য প্রাক্তন সভাপতি খন্দকার সিপার আহমদ বলেন, আমরা নিয়ম মাফিক নির্বাচন আয়োজনের লক্ষ্যে যথাসাধ্য চেষ্টা করেছি, কিন্তু দুর্ভাগ্যজনকভাবে তা সম্ভব হয়নি। বর্তমান প্রশাসকের মাধ্যমে সিলেট চেম্বার অব কমার্সের আগামী নির্বাচন সুষ্ঠু ও সুন্দরভাবে সম্পন্ন এই প্রত্যাশা আমাদের।

সভায় অন্যান্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন সিলেট চেম্বারের সদ্য প্রাক্তন সিনিয়র সহসভাপতি মাসুদ আহমদ চৌধুরী, সহসভাপতি মো. এমদাদ হোসেন, সাবেক পরিচালক মো. সাহিদুর রহমান, মো. ওয়াহিদুজ্জামান (ভূট্টো), মুশফিক জায়গীরদার, এহতেশামুল হক চৌধুরী, ফালাহ উদ্দিন আলী আহমদ, মো. আব্দুর রহমান (জামিল), মো. আতিক হোসেন, মুজিবুর রহমান মিন্টু, ইমজার সাবেক সভাপতি আল-আজাদ, সিলেট জেলা প্রেসক্লাবের সভাপতি তাপস দাস পুরকায়স্থ, সাধারণ সম্পাদক শাহ দিদার আলম নবেল, সিলেট জেলা ব্যবসায়ী ঐক্য কল্যাণ পরিষদের সভাপতি শেখ মোঃ মকন মিয়া, রাজনৈতিক ব্যক্তিবর্গ, সাংবাদিক ও বিভিন্ন সংগঠনের নেতৃবৃন্দ।     


আপনার মন্তব্য

আলোচিত