বুধবার, ১৬ অক্টোবর ২০১৯ ইং

চুনারুঘাট প্রতিনিধি

০৪ জুলাই, ২০১৯ ২২:১৭

চুনারুঘাটে ব্যাটারি চালিত টমটম ও রিকশা ভাড়া নিয়ে নৈরাজ্য

হবিগঞ্জের চুনারুঘাট পৌরশহরে ব্যাটারি চালিত টমটম ও রিকশা ভাড়া নিয়ে নৈরাজ্য কিছুতেই থামছে না। এ বিষয়ে পৌর কর্তৃপক্ষের ভাড়া নির্ধারণ কোন পদক্ষেপ না থাকায় দ্বিগুণ বেশীও ভাড়া আদায় করছে চালকরা। এদিকে লাইসেন্স বিহীন ব্যাটারি চালিত টমটম ও রিকশা পৌরশহরে চলাচল বেড়েছে কয়েকগুণ।

সংশ্লিষ্ট বিভিন্ন সূত্রে জানা যায়, সাবেক পৌরসভার মেয়র মোহাম্মদ আলী থাকাকালীন পৌরশহর এলাকার জন্য প্রথম ব্যাটারি চালিত টমটম ও রিকশা ভাড়া নির্ধারণ করেন। নির্ধারিত ভাড়া অনুযায়ী পৌরশহরের উত্তর বাজার একচেঞ্জ অফিস হইতে বালিকা উচ্চ বিদ্যালয় পর্যন্ত এবং একচেঞ্জ অফিস থেকে বাল্লা রোডের শেষ পর্যন্ত টমটম ভাড়া ৫ টাকা ও রিকশা ভাড়া ১০ টাকা।

সে সময় পৌরশহরে টমটম ও রিকশা চালক ও যাত্রীদের স্বস্তি ফিরে আসলেও তা বেশিদিন স্থায়ী হয়নি। কয়দিন পর থেকে ক্রমেই বাড়তে থাকে চালকদের দৌরাত্ম। অনেকে মনে করেন নির্ধারিত ভাড়া কার্যকরে সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের তদারকির অভাবে সর্বমহলে প্রশংসিত এ উদ্যোগ অল্প সময়ে ভেস্তে যায়। পরবর্তী মেয়র নাজিম উদ্দিন শামসু সিএনজি, ব্যাটারি চালিত টমটম ও রিকশা চালক-মালিকদের সাথে দফায় দফায় বৈঠক করে যানজট নিরসন করেন। কিন্তু যানজট নিরসন হলেও পৌরশহরে টমটম ও রিকশা চালকরা অতিরিক্ত ভাড়া আদায় করছে।

সাবেক পৌর মেয়র মোহাম্মদ আলীর তৎকালীন সময়ও এনিয়ে বিভিন্ন সভা-সমাবেশে আলোচনা হলেও কাজের কাজ কিছুই হয়নি। এনিয়ে প্রতিনিয়ত চালকদের সাথে যাত্রীদের বাকবিতণ্ডা এমনকি হাতাহাতি নিত্যনৈমিত্তিক ব্যাপার হয়ে দাঁড়িয়েছে। এতে স্কুল-কলেজগামী শিক্ষার্থীরা ছাড়াও স্বল্প আয়ের মানুষ দারুণ ভোগান্তির শিকার হচ্ছে।

জুলেখা খাতুন নামে এক নারী যাত্রী জানান, পৌর এলাকার একচেঞ্জ অফিসের পাশ থেকে রিকশা যোগে উপজেলা গেইট পর্যন্ত যাই। রিক্সা চালক আমার কাছে ৪০ টাকা দাবি করেন। আমি বাধ্য হয়েছে ৪০ টাকা ভাড়া দিয়েছি।

কলেজ পড়ুয়া ছাত্র জুনায়েদ মিয়া, এমরান মিয়া, যুবায়ের আহমেদ, মো. শাহিন মিয়া জানান, পৌরশহর হইতে পৌরশহর পর্যন্ত টমটম উঠানামা করতে ১০ টাকা ও রিক্সা ২০ টাকা ভাড়া দিতে হয়। এতে আমরা প্রতিনিয়ত দূর্ভোগের শিকার হতে হচ্ছি। যাত্রী হয়রানী বন্ধে প্রশাসনের কার্যকরী উদ্যোগ গ্রহণ করা উচিত।

এ ব্যাপারে চুনারুঘাট পৌরসভার মেয়র মো. নাজিম উদ্দিন শামসু বলেন, ব্যাটারি চালিত টমটম ও রিকশা ভাড়া নির্ধারণ ও যানজট নিরসনের জন্য ইতিমধ্যে মালিক-চালকদের সাথে বৈঠক হয়েছে। শীঘ্রই তা কার্যকর করা হবে বলে তিনি জানান।

আপনার মন্তব্য

আলোচিত