রবিবার, ২০ অক্টোবর ২০১৯ ইং

শ্রীমঙ্গল প্রতিনিধি

১০ জুলাই, ২০১৯ ১৪:২০

শ্রীমঙ্গলে ইসকন মন্দিরে ছদ্মবেশী চোর আটক

মৌলভীবাজারের শ্রীমঙ্গলে ইসকন (আর্ন্তজাতিক কৃষ্ণভাবনামৃত সংঘ) মন্দিরে দুর্ধর্ষ চুরির ঘটনায় ছদ্মবেশী এক চোরকে আটক করেছেন ইসকন শ্রীমঙ্গল শাখার সদস্যরা ৷

জানা যায়, ইসকন শ্রীমঙ্গল শাখার রথ উৎসব চলছিলো উপজেলার সবুজবাগ এলাকায়। এরই মধ্যে ৬ জুলাই দিবাগত রাতে মন্দিরে দুর্ধর্ষ চুরি সংগঠিত হয়। চোরেরা পূজার মূল্যবান জিনিসপত্র ও প্রণামী বাক্স ভেঙ্গে নগদ টাকাও নিয়ে যায় ৷ এ বিষয়ে থানায় একটি মামলাও হয়।

চুরির পর থেকেই ইসকনের সদস্যরা সতর্ক পাহারা বসান। প্রথম থেকেই তাদের ধারনা ছিলো ছদ্মবেশী কেউ এ ধরনের ঘটনা ঘটিয়েছে।

স্থানীয় লিটন ধাম জানান, চুরির ঘটনায় ইসকন প্রভুদের বেশ ধারণ করে আব্দুল্লাহ মন্ডল (পিতা আনোয়ার মন্ডল, সাং- বগুড়া, শিবগঞ্জ) শ্রীমঙ্গলে বাধন গৌড় দাশ নামে পরিচিত হয়ে সে ইসকন মন্দিরে জায়গা নেয় এবং পরবর্তীতে চুরির ঘটনা ঘটায় বলে প্রাথমিকভাবে সবার নিকট স্বীকার করে।

তিনি আরও জানান, তার চলাফেরা সন্দেহজনক হওয়ায় আমরা তার দিকে নজরদারি বাড়িয়ে দেই। আমিসহ ইসকনের কানাইদাস প্রভু, সংকীর্তন প্রভু ও ইসকনের অন্যান্য প্রভু এবং সবুজবাগের স্থানীয় আরও যুবকদের সহযোগিতায় ৯ জুলাই বিকেলে ধরতে সক্ষম হই এবং তাকে পুলিশের কাছে সোপর্দ করি।

এদিকে আটক আব্দুল্লাহ মন্ডল তার জবানবন্দিতে ইসকন মন্দিরে আলোচিত চুরির ঘটনায় তার সম্পৃক্ততার কথা প্রাথমিকভাবে পুলিশের কাছে স্বীকার করে। পুলিশের প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে ইসকন মন্দিরের চুরিকৃত মালামাল অপর দুই সহযোগীর নিকট রয়েছে বলেও জানান তিনি।

অপর দুই সহযোগিকে গ্রেপ্তারের চেষ্টা অব্যাহত আছে বলে পুলিশ জানায়।

শ্রীমঙ্গল থানার অফিসার ইনচার্জ আব্দুস ছালেক সিলেটটুডে টোয়েন্টিফোর ডটকমকে বলেন, প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে সে তার দুই সহযোগীর নাম বলেছে। কিন্তু তারা বিভিন্ন সময় বিভিন্ন ছদ্মনাম ব্যবহার করে। তাই তাদের ধরা একটু কষ্টকর। তবে আমরা প্রযুক্তির সাহায্য নিয়ে অচিরেই তার সহযোগিদের গ্রেপ্তার করতে পারবো বলে আশা করছি।

আপনার মন্তব্য

আলোচিত