সোমবার, ২৩ সেপ্টেম্বর ২০১৯ ইং

বানিয়াচং প্রতিনিধি

২৫ আগস্ট, ২০১৯ ১৯:৪০

বানিয়াচংয়ে ব্যবসায়ীর ১০ হাজার টাকা জরিমানা

বানিয়াচং-হবিগঞ্জ আঞ্চলিক মহাসড়কের পাশে অবৈধভাবে বালুর রাখার কারণে জাকারিয়া চৌধুরী নামে এক বালু ব্যবসায়ীকে দশ হাজার টাকার জরিমানা করেছে ভ্রাম্যমান আদালত।

রোববার (২৫ আগস্ট) বিকাল সাড়ে ৪টার দিকে ভ্রাম্যমান আদালতের মাধ্যমে রায় প্রদান করেন বানিয়াচং উপজেলার নির্বাহী অফিসার ও ভ্রাম্যমান আদালতের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মামুন খন্দকার।

এসময় জাকারিয়া চৌধুরীর কাছ থেকে মুচলেকা রেখে আগামী দুইদিনের মধ্যে সড়কের পাশ থেকে সব বালুর স্তূপ সরানোর জন্য তাকে নির্দেশ দেয়া হয়।

জানা যায়, জাকারিয়া ১০নং সুবিদপুর ইউনিয়নের বলাকীপুর গ্রামের হাজী জিলু মিয়ার চৌধুরীর পুত্র। রোববার হবিগঞ্জ থেকে বানিয়াচং আসার পথে উপজেলা নির্বাহী অফিসার মামুন খন্দকার রাস্তার মধ্যে ট্রাক দাঁড় করিয়ে বালু নামাতে দেখেন। পরে ইউএনও তার গাড়ি থামিয়ে ট্রাকের কাছে গিয়ে বালুর মালিক কে জানতে চান।

একপর্যায়ে সেখানেই বালুর মালিক জাকারিয়া চৌধুরী বলে জানতে পারেন। এসময় জাকারিয়া সেখানেই উপস্থিত ছিলেন। তাৎক্ষনিক ওই বালুর মালিককে আটক করে বানিয়াচং থানা পুলিশের মাধ্যমে তার কার্যালয়ে নিয়ে আসেন। সেখানে ভ্রাম্যমান আদালত বসিয়ে এই রায় প্রদান করেন উপজেলা নির্বাহী অফিসার ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মামুন খন্দকার।

দীর্ঘদিন ধরে হবিগঞ্জ আঞ্চলিক মহাসড়কের রতœা ব্রিজের কাছে ও শুটকিসহ বিভিন্ন জায়গায় বালু ফেলে যান চলাচলে বিঘ্ন ঘটিয়ে আসছে কতিপয় ব্যবসায়ীরা। এ নিয়ে জাতীয়, স্থানীয়সহ বেশ কয়েকটি পত্রিকায় ও অনলাইনে সংবাদ প্রকাশিত হয়। পাশাপাশি আমার এমপি ডটকমের জনপ্রিয় ইউটিউব চ্যানেল আমারএমপিতে মহাসড়কের বালুর স্তূপ নিয়ে একটি ভিডিও প্রকাশ করেন স্থানীয় অ্যাম্বাসেডর।

সেই সংবাদ ও ভিডিও দেখে ত্বরিতগতিতে কাজ করলেন বানিয়াচং উপজেলা নির্বাহী অফিসার মামুন খন্দকার।

আপনার মন্তব্য

আলোচিত