বুধবার, ১৬ অক্টোবর ২০১৯ ইং

নিজস্ব প্রতিবেদক

১৯ সেপ্টেম্বর, ২০১৯ ০১:৩৫

শাবি শিক্ষার্থীর বুদ্ধিমত্তায় ৪ ছিনতাইকারী গ্রেপ্তার, অটোরিকশা জব্দ

অটোরিকশায় করে যাওয়ার সময় ছিনতাইয়ের শিকার হয়েছিলেন শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র বাহারুল হক সুমন (২৪)। বুদ্ধি করে অটোরিকশার নাম্বারসহ পেছনের ছবি তুলে রেখেছিলেন তিনি। সেই সূত্র ধরে ৪ ছিনতাইকারীকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। উদ্ধারকৃত অটোরিকশাও উদ্ধার করা হয়েছে।

মঙ্গলবার (১৭ সেপ্টেম্বর) নগরীর গোয়াবাড়ী এলাকায় অভিযান চালিয়ে ৪ জনকে গ্রেপ্তার করা হয়।

গ্রেপ্তারকৃতরা হলেন, সুনামগঞ্জের মোহাম্মদপুরের মো. আবদুল আজিজের ছেলে বাবুল মিয়া (২৭), কিশোরগঞ্জের অষ্টগ্রাম থানার খয়েরপুর গ্রামের মো. মুছন মিয়ার ছেলে মো. আবদুল হক (২৯), বাগেরহাটের মোড়লগঞ্জ থানার পঞ্চগ্রাম এলাকার মো. সিদ্দিক শরীফের ছেলে মো. সুমন শরীফ (২৫) এবং সিলেটের দক্ষিণ সুরমার বরাইকান্দি গ্রামের মৃত মীর আহমদের ছেলে আসাদুজ্জামান সানি (২৫)।

জানা যায়, গত ১৪ সেপ্টেম্বর দুপুরে শাবি শিক্ষার্থী বাহারুল হক সুমন (২৪) খাসদবীর পয়েন্ট থেকে আম্বরখানা পয়েন্টে যাওয়ার উদ্দেশ্যে একটি সিএনজি যোগে অজ্ঞাতানামা ৪ জন এবং সিএনজি ড্রাইভারসহ রওয়ানা করেন। পথিমধ্যে অজ্ঞাতনামা যাত্রীগণ চলন্ত সিএনজির মধ্যে তাকে একটি ধারালো চাকু প্রদর্শন করে মোবাইল ফোন এবং পকেটে থাকা টাকা-পয়সা ছিনিয়ে নেওয়ার চেষ্টা করে। এসময় সিএনজিতে তাদের সাথে সুমনের ধস্তাধস্তি হয়।

পরে নগরীর মজুমদারীস্থ আলী ভবন নামক বিল্ডিংয়ের সামনে পাকা রাস্তার উপর পৌঁছা মাত্রই সিএনজি থামিয়ে অজ্ঞাতনামা ব্যক্তিরা সুমনকে লাথি মেরে সিএনজি থেকে ফেলে দেয় এবং সিএনজি থেকে নেমে প্রকাশ্য স্থানে আতংক সৃষ্টি করে তার পরিহিত প্যান্টের ডান পকেট হতে নগদ ৫শ’ ৮০ টাকা জোরপূর্বক ছিনিয়ে নেয়।

পরে সিএনজি চালকের সহায়তায় সিএনজিযোগে তারা দ্রুত পালিয়ে যায়। এসময় সুমন তাৎক্ষণিক তার ব্যবহৃত মোবাইল ফোন দিয়ে পিছন থেকে অটোরিকশার  ছবি তুলে রাখে যাতে তার নাম্বার সিলেট-থ-১১-৯২০৪ স্পষ্ট বুঝা যায়।

সিলেট মেট্রোপলিটন পুলিশের অতিরিক্ত উপ পুলিশ কমিশনার জেদান আল মুসা বলেন, ছিনতাইয়ে ব্যবহৃত সিএনজি (যার নং সিলেট-থ-১১-৯২০৪) জব্দ করা হয়েছে। আর সিএনজি চালক বাবুল মিয়ার স্বীকারোক্তি অনুযায়ী বাকীদের গ্রেপ্তার করা হয়। পরে ছিনতাইয়ের শিকার ব্যক্তি এসে আসামীদের সনাক্ত করে এজাহার দায়ের করেন। এর প্রেক্ষিতে সিলেটের বিমানবন্দর থানায় মামলা (মামলা নং-১৮/২৪৩, তাং-১৮/০৯/২০১৯) রেকর্ড করা হয়।

আপনার মন্তব্য

আলোচিত