রোববার, ২৬ জানুয়ারি ২০২০ ইং

শ্রীমঙ্গল প্রতিনিধি

১৩ ডিসেম্বর, ২০১৯ ১৭:৪২

মনিপুরী নারী বিদ্রোহ দিবস পালন

মৌলভীবাজারের শ্রীমঙ্গলে অনুষ্ঠিত হয়েছে ৩০তম নুপীলান স্মরণ দিবস উদযাপন।

বৃহস্পতিবার রাতে উপজেলার রামনগর মনিপুরী পাড়ায় মণিপুরী ওমেন্স স্যোশাল ডেবোলাপমেন্ট অরগানাইজেশন এর আয়োজনে অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন মৌলভীবাজার ৪ আসনের সাংসদ আব্দুস শহীদ।

মণিপুরী ওমেন্স স্যোশাল ডেবোলাপমেন্ট অরগানাইজেশন এর সভাপতি ফজাতম্বী দেবীর সভাপতিত্বে এসময় বক্তব্য রাখেন শ্রীমঙ্গল উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা নজরুল ইসলাম, মৌলভীবাজার জ্যেষ্ঠ সহাকারি পুলিশ সুপার  আশরাফুজ্জামান, ভারতের মনিপুর প্রদেশের বিজিপি (ভারতীয় জনতা পার্টি) সভাপতি এল বিরজিৎ সিং, অল মনিপুর ওমেন ভলেন্টিয়ারী এসোসিয়শেন সভানেত্রী কুঞ্জ রানী দেবী, লেখক ও কবি এ কে শেরাম। অনুষ্ঠানে সঙ্গীত পরিবেশন করে ভারত থেকে আসা জনপ্রিয় কন্ঠ শিল্পী নব শর্মা। স্মরণ দিবস উপলক্ষে আলোচনা সভা মনিপুরী নৃত্য ও সঙ্গীত পরিবেশন করে।

আয়োজকদের সাথে কথা বলে জানা যায়, ১৯৩৯ সালে ভারতের মনিপুর রাজ্যে ব্রিটিশ সরকারের বিরুদ্ধে আন্দোলনে নামেন মণিপুরি নারীরা। নারীরা মিছিল ব্রিটিশদের বিভিন্ন অন্যায় আদেশ প্রত্যাহারের দাবি জানান। মণিপুরি নারীরা তাদের দাবি নামায় মণিপুর থেকে ধান-চাল পাঠানো বন্ধ করতে চাপ সৃষ্টি করেন। এসময় সৈন্যদের বন্দুকের আঘাতে ওই স্থানে মণিপুরি অনেকে নারী আহত হন। তাদের অনেককেই আশঙ্কাজনক অবস্থায় হাসপাতালে পাঠানো হয়। শীর্ষ মণিপুরি নারী নেত্রীদের ১০ জনকে বন্দি করা হয়। এ অবস্থায়ও মণিপুরি নারীরা পিছু হটে যাননি। ১২ ডিসেম্বর মুনিপুর রাজ্যে বিশাল আন্দোলনে রুপ নেয়। পরদিন ১৩ ডিসেম্বর মণিপুর থেকে ধান-চাল অন্যত্র পাঠানো বন্ধ করার ঘোষণা প্রদান করেন। এ দিবসটিকে মণিপুরি সমাজ 'নারী বিদ্রোহ' বা 'নুপীলান দিবস' হিসেবে প্রতি বছর পালন করে আসছে।

আপনার মন্তব্য

আলোচিত