সোমবার, ২৪ জুন ২০১৯ ইং

বেনাপোল প্রতিনিধি

২০ মার্চ, ২০১৯ ১২:৪৮

দুর্ঘটনায় স্কুলছাত্রীর পা বিচ্ছিন্ন হওয়ার প্রতিবাদে সড়ক অবরোধ

যশোরের শার্শায় জিপ গাড়ির চাপায় নাভারণ পাইলট মাধ্যমিক বালিকা বিদ্যালয়ের স্কুলছাত্রীর শরীর থেকে পা বিচ্ছিন্ন হয়ে যাওয়ার প্রতিবাদে মহাসড়কে টায়ার জ্বালিয়ে সড়ক অবরোধ করে রেখেছে বিক্ষুব্ধ শিক্ষার্থীরা।

বুধবার (২০ মার্চ) সকাল সাড়ে ৮টার দিকে নাভারণ বাজারে একটি জিপ গাড়ি তিনজন স্কুলছাত্রী বহনকারী একটি ভ্যানকে চাপা দেয়।

এতে নিপা নামে সপ্তম শ্রেণির এক শিক্ষার্থীর শরীর থেকে পা বিচ্ছিন্ন হয়ে যায়। এ সময় সপ্তম শ্রেণির ছাত্রী স্মৃতি ও নবম শ্রেণির রিপা ভ্যান থেকে ছিটকে পড়ে আহত হয়। পরে এলাকাবাসী ও স্কুল-কলেজের শিক্ষার্থীরা সড়ক অবরোধ করে রাখে।

দুর্ঘটনার শিকার নিপা নাভারণের বুরুজবাগান গ্রামের রফিকুলের মেয়ে।

নাভারণ পাইলট মাধ্যমিক বালিকা বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মোকারম হোসেন বলেন, বুধবার সকালে স্কুলে আসার সময় যশোর থেকে একটি জিপ গাড়ি শিক্ষার্থী বহনকারী ভ্যানটিকে ধাক্কা দেয়। পরে নিপার পায়ের ওপর দিয়ে গাড়ি উঠিয়ে দিলে তার পা শরীর থেকে বিচ্ছিন্ন হয়ে যায়। গুরুতর আহত নিপা ও অপর দুই শিক্ষার্থীকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

শার্শার ইউএনও পুলক কুমার মন্ডল, উপজেলা চেয়ারম্যান সিরাজুল হক মঞ্জু, শার্শা থানা পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন।

ইউএনও পুলক কুমার মন্ডল বলেন, সড়ক দুর্ঘটনায় ছাত্রীর পা বিচ্ছিন্ন হয়ে যাওয়ার ঘটনাটি খুব দুঃখজনক।

মোকারম হোসেন আরও বলেন, বেপরোয়াভাবে যেভাবে চালক গাড়ি চালিয়ে এ দুর্ঘটনা ঘটিয়েছে তার জন্য এ ঘটনার বিচার চাই।

আপনার মন্তব্য

আলোচিত