বুধবার, ১৮ সেপ্টেম্বর ২০১৯ ইং

সিলেটটুডে ডেস্ক

০৭ জুন, ২০১৯ ১৬:১০

গরুর মাংস নিয়ে সংঘর্ষে আহত ৪০

গরুর মাংসে হাড় বেশি দেওয়া নিয়ে বচসার জেরে ক্রেতা ও বিক্রেতার মধ্যে কথা কাটাকাটির ঘটনায় ব্রাহ্মণবাড়িয়ার দুটি গ্রামের লোকজনের মধ্যে রক্তক্ষয়ী সংঘর্ষে উভয়পক্ষের কমপক্ষে ৪০ জন আহত হয়েছেন। এ সময় ঢাকা-সিলেট এবং কুমিল্লা-সিলেট উভয় মহাসড়কে অন্তত এক ঘণ্টা যান চলাচল বন্ধ থাকে। সংঘর্ষে আহতদেরকে জেলা সদর হাসপাতালে চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছে।

আজ (৭ জুন) সকালে সরাইল উপজেলার কুট্টাপাড়া গ্রাম ও ব্রাহ্মণবাড়িয়া সদর উপজেলার খাটিহাতা গ্রামের লোকজনের মধ্যে এ সংঘর্ষ বাধে।

ব্রাহ্মণবাড়িয়া সদর মডেল থানার ওসি সেলিম উদ্দিন জানান, সদর উপজেলার খাঁটিহাতা ও সরাইল উপজেলার কুট্টাপাড়া গ্রামের বাসিন্দাদের মধ্যে এই সংঘর্ষের কারণে সকাল ১০টা থেকে বেলা ১১টা পর্যন্ত ঢাকা-সিলেট মহাসড়কে যান চলাচল বন্ধ থাকে। ফলে মহাসড়কের দুই পাশে তীব্র যানজটের সৃষ্টি হয়।

আহতদের সরাইল উপজেলা স্বাস্ব্য কমপ্লেক্স ও জেলা সদর হাসপাতালে চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছে বলে জানিয়েছে পুলিশ।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, সরাইল উপজেলার কুট্টাপাড়া গ্রামের এক ব্যক্তি সকালে খাঁটিহাতা বিশ্বরোড মোড়ে এক দোকানে মাংস কিনতে যান। সেখানে মাংসে হাড় বেশি দেওয়া নিয়ে দোকানীর সঙ্গে ওই ব্যক্তির কথা কাটাকাটি হয়। এর জের ধরে ক্রেতা ও বিক্রেতা দুই পক্ষ নিজের গ্রামের লোকজন জড়ো করে দেশীয় অস্ত্রশস্ত্র নিয়ে সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়ে।

সরাইল বিশ্বরোড হাইওয়ে থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা হোসেন সরকার জানান, সংঘর্ষের কারণে যানবাহন চলাচল প্রায় এক ঘণ্টা বন্ধ থাকার পর তা আবার শুরু হয়েছে। এখন পরিস্থিতি স্বাভাবিক বলে মন্তব্য করেন তিনি।

আপনার মন্তব্য

আলোচিত