বৃহস্পতিবার, , ১৮ অক্টোবর ২০১৮ ইং

সোশ্যাল মিডিয়া ডেস্ক

১১ জুন, ২০১৮ ০১:৩৫

‘ধর্ষকের’ স্ত্রীকে ধর্ষণের হুমকি ‘অনলাইন ধর্ষকদের’

রাজধানীর শেরেবাংলা নগরে এক তরুণীকে প্রাইভেটকারে তুলে নিয়ে ধর্ষণের চেষ্টার অভিযোগে গ্রেপ্তার হয়েছেন মাহমুদুল হক রনি নামের এক যুবক। রাজধানীর শেরেবাংলা নগরে জনতা তাকে হাতেনাতে ধরে গণধোলাই দিয়ে পুলিশের কাছে হস্তান্তর করে।

এঘটনায় রোববার বিকেলে রণির বিরুদ্ধে মামলাও করেছেন ভোক্তভোগী নারী।
 
রনিকে আটক গণধোলাইয়ের একটি ভিডিও রোববার ফেসবুকে ছড়িয়ে পড়ে। এরপর থেকে সামাজিক যোগাযেোাগ মাধ্যমে তোপের মুখে পড়েন রনি। তাকে গালাগালিও করতে থাকেন অনেকে।  

গালি থেকে রেহাই পাচ্ছেন না রনির স্ত্রীও। ফেসবুকে রনির আপলোড করা পরিবারের সাথে বিভিন্ন ছবিতে গিয়ে তার স্ত্রীকে আপত্তিকর ভাষায় গালাগালি করছেন অনেকে। কেউ কেউ রনির স্ত্রীকে ধর্ষণেরও হুমকি দিচ্ছেন।

ধর্ষণের ঘটনা সম্পর্কে শেরেবাংলা নগর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) জি জি বিশ্বাস বলেন, শনিবার রাতে সংসদ ভবনের সামনে থেকে রনির নিজস্ব গাড়িতে দুটি মেয়েকে তোলা হয়। পরে একজন মেয়েকে ঘটনার সময় অর্ধেক রাস্তায় এসে নামিয়ে দিয়ে চলে যায়। তখন ওই মেয়েটি রাস্তায় চিৎকার শুরু করে।

এরপর রাস্তায় সাধারণ মানুষ রনির গাড়ি লক্ষ্য করে ছুটে যায় এবং একটি সিগনালে তাকে ও তার ড্রাইভারকে গণপিটুনি দেয়। গণপিটুনির এক পর্যায়ে ড্রাইভার পালিয়ে যায়।

এদিকে, গণপিটুনির সময় উপস্থিত অনেকে এ ঘটনার ভিডিও ফেসবুকে ছড়িয়ে দেন। যা মূহূর্তেই ভাইরাল হতে শুরু করে। অনেকেই শেয়ার করতে থাকেন রনির ব্যক্তিগত ফেসবুক প্রোফাইল।

আর সেই প্রোফাইলেই হুমড়ি খেয়ে পড়েন অনেক ফেসবুক ব্যবহারকারী। রনির শেয়ার করা পারিবারিক বিভিন্ন ছবিতে করতে থাকেন অশালীন সব মন্তব্য।

অনেক ব্যবহারকারীই রনির পারিবারিক ছবিতে তার স্ত্রীকে ধর্ষণের ইচ্ছা পোষণ করেও মন্তব্য করতে দেখা যায়।

রনির ফেসবুক ঘুরে দেখা যায়, বেশিরভাগ মন্তব্যই গালিতে ভরপুর। রনির স্ত্রী ও সন্তানদের প্রতি ছুড়ে দিয়েছেন যৌন হায়রানিমূলক মন্তব্য।

বাদ যায়নি রনির সন্তাররাও। তাদের প্রতিও বিদ্বেষপূর্ণ মন্তব্যে সেই সব ছবিগুলোতে লক্ষ করা যায়।

আপনার মন্তব্য

আলোচিত