সোমবার, , ১০ ডিসেম্বর ২০১৮ ইং

ডা. এহতেশামুল হক চৌধুরী

২৬ নভেম্বর, ২০১৮ ১৩:১৭

হে তরুণ, আমাদের অভিধানে পরাজয় নেই

হে প্রিয় তরুণ-তরুণী, এসো সত্যের পথে; এসো ন্যায়ের সাথে। ভোরের আলোয় বাতায়ন খুলে চেয়ে দেখো কী সুন্দর তোমার এই প্রিয় মাতৃভূমি। এদেশেই একদিন ছিল তোমার পিতামহের অহঙ্কারের গোলাভরা ধান, মাঠ ভরা ফসল, গোয়াল ভরা গরু আর পুকুর ভরা মাছ। এ সবটুকুনই পুনরায় আজ তোমার চারিদিকে দৃশ্যমান। আর তা সম্ভব হয়েছে একজন নেতার দূরদর্শিতা আর গভীর বিচক্ষণতার কারণে, তিনিই এদেশের এক ক্যারিশমেটিক মহিয়সি নারী- শেখ হাসিনা। তিনিই পারেন আমাদের স্বপ্ন দেখাতে আর তা বাস্তবায়ন করতে।

তাকিয়ে দেখো কী সুন্দর মায়াবী আকাশে পতপত করে উড়ে চলেছে লালসবুজের ঝকঝকে পতাকা। তোমরা জ্ঞানী, শেখ হাসিনার ডিজিটাল বাংলাদেশের এন্ড্রয়েড ডিভাইস আর ট্যাবের কল্যাণে পুরো পৃথিবীটাই আজ তোমাদের হাতের মুঠোয়।

সকলেই জানে এদেশে আজ আর খাদ্যের অভাব নেই, বাসাবাড়ি কলকারখানায় বিদ্যুতের যাদুকরী ঝলকানি, রাস্তাঘাট কত সুপ্রশস্ত, অকালে শিশু মৃত্যু, মাতৃমৃত্যুর হার কমেই চলেছে, মানুষের গড় আয়ু ৭২-৭৪ বছর, মাথাপিছু আয় এতই বেড়েছে যে নির্ধারিত আরও দুই দশকের পূর্বেই তোমরা স্থান করে নিবে উন্নত দেশের শিখরে, ব্যাংক রিজার্ভ - শিক্ষিতের হার আকাশচুম্বী, ছিটমহলের কর্তৃত্ব আর সমুদ্র বিজয় আজ ইতিহাস, পদ্মা সেতু আমাদের অহঙ্কার, আমরা সাবমেরিন ক্লাবের সম্ভ্রান্ত সদস্য, আকাশে বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট অনেকের ঈষা'র কারণ হয়ে উঠেছে। এসব মিলিয়ে একটি আধুনিক প্রিয় মাতৃভূমি কত কাঙ্ক্ষিত ছিল সকলের। আমরা আজ উন্নয়নের মহাসড়কে।

তোমাদের কি মনে আছে, তোমাদেরই পূর্বপুরুষেরা কিন্তু এদেশের জন্য শহীদ হয়েছিলেন, মা বোনেরা তাদের সম্ভ্রম হারিয়েছিলেন।

আজ যদি কোন এক শহীদ তোমার স্বপ্নে এসে প্রশ্ন করেন, হে তরুণ আমরা ত' তোমাদের ভবিষ্যৎ বিনির্মাণের জন্য আমাদের জীবন বিলিয়ে দিয়েছি, এ দেশ রক্ষা আর সুন্দর করে গড়ে তুলতে তোমাদের কি কোন দায়িত্ব নেই? কী উত্তর হবে তোমার? আমি-তুমি কি স্বার্থপর?

না, তুমি সাহসী হয়ে উত্তর দিবে আমরাও আজ অনেক দায়িত্বশীল হবো। শকুনেরা আবারো খামচে ধরেছে আমাদের প্রিয় পতাকা, মা বোনের সম্ভ্রম আজ হুমকির মুখে। লুটেরা, আগুন সন্ত্রাসী, বোমাবাজ, একাত্তরের হায়েনাদের উত্তরসূরি আর কিছু নষ্ট ভ্রষ্ট সাম্প্রদায়িক ক্ষমতালিপ্সু ভাড়াটিয়া রাজনীতিবিদ একত্রিত হয়ে প্রতারণার আশ্রয়ে ধেয়ে আসছে মাতৃভূমির পবিত্রতা নষ্ট করতে।

সাবধান, তাদের চেয়ে আরও বেশি বলীয়ান হয়ে তোমাদের জেগে উঠতেই হবে।

তোমাদের পূর্বসূরিরা কিন্তু তাদের দায়িত্ব ঠিকই পালন করে গেছেন, আজ তোমাদের পালা। আমাদের যদি কোন ভুল থাকে তোমরা ক্ষমা করে দিও। তোমাদের কোন ভুল কিন্তু কাম্য নয়, কারণ তোমরা যে আমাদের চেয়ও জ্ঞানী। মনে রেখো, আমরা এ দেশটাকে অনেক ভালোবাসি, আর ভালোবাসি তোমাদেরকে। তোমাদের উপর আমাদের আস্থা অবিচল।

আমরা নিশ্চিত তোমরা বিজয়ী হবেই। ইতিহাস কিন্তু দুর্বৃত্তদের ক্ষমা করেনা। সত্য ও ন্যায়ের বিজয় অবশ্যম্ভাবী। Truth shall prevail. মনে রেখো, নৌকা আমাদের বিজয়ের প্রতীক, আওয়ামীলীগ আমাদের স্বাধীনতার মশাল, বঙ্গবন্ধু আমাদের জাতির পিতা। আমরা বীরের জাতি, আমাদের অভিধানে পরাজয় নেই।

  • ডা. এহতেশামুল হক চৌধুরী: মহাসচিব, বাংলাদেশ মেডিকেল অ্যাসোসিয়েশন (বিএমএ)।

আপনার মন্তব্য

আলোচিত