শনিবার, ২৫ মে ২০১৯ ইং

সোশ্যাল মিডিয়া ডেস্ক

০২ জানুয়ারী, ২০১৯ ১৩:০২

অপরাধ ও অপরাধীর রাজনৈতিক পরিচয়

নোয়াখালীতে এক নারীর বিরুদ্ধে যৌন সহিংসতা রাজনীতিকে কলুষিত করেছে মন্তব্য করে লেখক হাসান মোরশেদ বলেন রাজনৈতিক দলের কর্মী-সমর্থকদের এসব অপরাধের বিরুদ্ধে কোন কারণ ব্যতিরেকেই সোচ্চার হওয়া উচিত।

বুধবার (২ জানুয়ারি) এক ফেসবুক পোস্টে তিনি এমন মন্তব্য করেন।

তিনি বলেন, অপরাধকে পুঁজি করে অপরাধের স্মৃতি মুছে দেয়া, অপরাধকে ম্রিয়মান করা সেটাও একটা রাজনীতি এবং তা চলমান।

যেহেতু বিএনপি-জামায়াত জোটের মতো আওয়ামী লীগ সরকারের কোন পদ্ধতিগত পরিকল্পনা নেই তাই তিনি এসব অপরাধীদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি নিশ্চিতের দাবি জানান।

ফেসবুক পোস্টে তিনি লিখেন, 'অপরাধ এবং অপরাধী'র রাজনৈতিক পরিচয় অবশ্যই থাকে। বিশেষতঃ অপরাধের কারন এবং অপরাধের ক্ষমতা যদি রাজনীতি থেকে উৎসারিত হয়ে থাকে। রাজনৈতিক দলের কর্মী-সমর্থকদের উচিত এসব অপরাধের বিরুদ্ধে সোচ্চার হওয়া, কোন ধরনের 'যদি/ কিন্তু/ তবে' ব্যতিরেকেই।

ভালো দিক হলো- নোয়াখালীতে একজন নারীর বিরুদ্ধে সংগঠিত যৌন সহিংসতা তেমন কাউকে জাস্টিফাই করতে দেখিনি। সরকার সমর্থকরাই সোচ্চার হয়েছেন এর বিরুদ্ধে- এসব অপরাধ রাজনীতিকে কলুষিত করে।

অপরাধকে পুঁজি করে অপরাধের স্মৃতি মুছে দেয়া, অপরাধকে ম্রিয়মান করা সেটাও একটা রাজনীতি। এই রাজনীতি ও চলমান।

২০০১ এর নির্বাচনের ফলাফলের সাথে সাথে দক্ষিন বঙ্গ জুড়ে বিএনপি-জামায়াত জোট হিন্দু জনগোষ্ঠীর বিরুদ্ধে যে সহিংসতা চালিয়েছিলো (যৌন সহিংসতা সহ) সেটা পরিকল্পিত এবং পদ্ধতিগত ছিলো। শীর্ষ পর্যায় থেকে এই পরিকল্পনা দেয়া হয়েছিলো এবং স্থানীয় পর্যায়ে বাস্তবায়িত হয়েছিলো।

এখন যেভাবে সবাই মিলে সোচ্চার ( সরকার সমর্থক সহ) তখন সেটা সম্ভব হয়নি। এখনো বিএনপি-জামাত সমর্থকরা সেই সহিংসতা অস্বীকার করে। এই অস্বীকার ও একটি অপরাধ।

শাহরিয়ার কবীর ও মুনতাসীর মামুন ২০০১ এর নির্যাতন ডকুমেন্টেড করে বাইরের পৃথিবীকে জানিয়েছিলেন বলে তারা দুজনেই অকথ্য পুলিশী নির্যাতনের শিকার হয়েছিলেন। বিশাল এলাকার বিপুল সংখ্যক মানুষের বিরুদ্ধে সংগঠিত অপরাধের কোন শাস্তি বিধান করেনি তৎকালীন সরকার।

যেহেতু আওয়ামী লীগ সরকারের কোন পদ্ধতিগত পরিকল্পনা নেই সরকার বিরোধীদের বিরুদ্ধে সেহেতু অবশ্যই এসব অপরাধীদের বিরুদ্ধে দ্রুত কার্যকর এবং দৃষ্টান্তমুলক শাস্তি নিশ্চিত করতে হবে।

রাজনৈতিক ভাবে বিরোধীদের মোকাবেলাই সম্ভবতঃ আওয়ামী লীগ সমর্থকদের জন্য স্বস্তিকর, অপরাধ নয়।'

আপনার মন্তব্য

আলোচিত